user-avatar

Badshah Niazul Hasan Jewel Molla

BadshahNiazul

BadshahNiazul এর সম্পর্কে
I am Niaz. I am proud servant of my Allah, proud follower of my Prophet Hazrat Mohammad (sm), proud friend of my lovely best friend 'Quran', proud son of my parents, proud husband of my wife, proud patriot of my country...
যোগ্যতা ও হাইলাইট
পুরুষ
বিবাহিত
ইসলাম
প্রশ্ন-উত্তর সমূহ 4.76M বার দেখা হয়েছে
জিজ্ঞাসা করেছেন 1.93k টি প্রশ্ন দেখা হয়েছে 2.11M বার
দিয়েছেন 2.25k টি উত্তর দেখা হয়েছে 2.65M বার
4 টি ব্লগ
1 টি মন্তব্য

ব্রণ হলেঃ

  1. নিমপাতা বা নিম ফলের বীচি পানিসহ বেঁটে ৪-৫ দিন ব্রণে ব্যবহার করা উচিত।
  2. শিমুলের ছাল বেঁটে ব্রণের উপর লাগালে ব্রণ সেরে যায়।
  3. ব্রণ হলে চিরতার ক্বাথ তৈরি করে প্রত্যহ সকালে মিছরী চূর্ণসহ খাওয়া উচিত।

উপরোক্ত যেকোনো একটি উপায়ে আপনি আপনার মুখের ব্রণ দূর করতে পারেন‌। ধন্যবাদ।

'নিয়ম' হচ্ছে 'যেটা মেনে চলা উচিত'। আর 'আইন' হচ্ছে সেই সকল নিয়ম, যা মেনে না চললে বা ভঙ্গ করলে, আপনাকে শাস্তি পেতে হবে। অর্থাৎ সকল আইনই নিয়ম, কিন্তু সকল নিয়মই আইন নয়। ধন্যবাদ।
বাংলা সঠিক বানান হচ্ছে মাহদি/মাহদী। ইংরেজিতে 'Mahdi' আর আরবিতে ( مَهْدِي )। মাহদি/মাহদী নামের আরবি অর্থ ভালো নির্দেশিত, সৃষ্টিকর্তা দ্বারা পথপ্রদর্শিত, সুপথ প্রাপ্ত। তবে আপনি আপনার ছেলের নাম রাখতে পারেনঃ ১। মোহাম্মদ মাহদী। ২। মাহদী আহাম্মদ। ৩। মাহদী ইসলাম। ৪। মাহদী হাসান। ৫। মাহদী হোসাঈন। ৬। মাহদী মোহাম্মদ। (ধন্যবাদ)

amr jor?

BadshahNiazul
May 19, 07:24 PM
জ্বর হলে সাধারণত নাপা, প্যারাসিটামল খাওয়া হয়। তবে যেহেতু আপনার জ্বর ও জ্বর বিভিন্ন ধরণের হয়ে থাকে, সেহেতু ভালো একজন ডাক্তারের কাছে গিয়ে তার পরামর্শ মোতাবেক কাজ করুন এবং তিনি যেই ঔষধ আপনাকে দিবেন, সেটি সেবন করুন ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। আশা করি, শ্রীঘ্রই সুস্থ হয়ে যাবেন। ধন্যবাদ।
Arian (আরিয়ান) শব্দের অর্থ 'আর্য' আর Royal (রয়েল) শব্দের অর্থ 'রাজকীয়' বা 'রাজবংশীয়'। সুতরাং, 'আরিয়ান রয়েল' নামের অর্থ 'রাজবংশীয় আর্য'। ধন্যবাদ।

এই তাসবীহ সমূহ আমরা সারাদিনে রাতে যেকোন সময় যেকোন স্থানেই করতে পারি শুধুমাত্র টয়লেটে ও স্বামী স্ত্রীর সহাবস্থানের সময় ছাড়া। অযু থাকা বা না থাকা যেকোন অবস্থায় কেবলামুখী হই বা না হই তাতে কোন সমস্যা নেই। হাতে গুনে গুনে পড়াটাই সুন্নাহ ও উত্তম।

তাসবীহ ১ঃ

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, “যে ব্যক্তি দৈনিক ১০০ বার বলে,

«سُبْحَانَ اللَّهِ وَبِحَمْدِهِ».

(সুব্‌হানাল্লা-হি ওয়াবিহামদিহী)

‘আমি আল্লাহর সপ্রশংস পবিত্রতা ঘোষণা করছি’, তার পাপসমূহ মুছে ফেলা হয়, যদিও তা সাগরের ফেনারাশির সমান হয়ে থাকে।” বুখারী ৭/১৬৮, নং ৬৪০৫; মুসলিম ৪/২০৭১, নং ২৬৯১

তাসবীহ ২ঃ

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আরও বলেন, যে ব্যক্তি নিম্নোক্ত বাণীটি ১০ বার বলবে,

«لاَ إِلَهَ إِلاَّ اللَّهُ وَحْدَهُ لاَ شَرِيكَ لَهُ، لَهُ الْمُلْكُ، وَلَهُ الْحَمْدُ، وَهُوَ عَلَى كُلِّ شَيْءٍ قَدِيرٌ».

(লা ইলা-হা ইল্লাল্লা-হু ওয়াহদাহু লা শারীকা লাহু লাহুল মুলকু ওয়া লাহুল হামদু ওয়া হুয়া ‘আলা কুল্লি শাই’ইন ক্বাদীর)।

“একমাত্র আল্লাহ ছাড়া কোনো হক্ব ইলাহ নেই, তাঁর কোনো শরীক নেই; রাজত্ব তাঁরই, সমস্ত প্রশংসাও তাঁর; আর তিনি সকল কিছুর উপর ক্ষমতাবান।” এটা তার জন্য এমন হবে যেন সে ইসমাঈলের সন্তানদের চারজনকে দাসত্ব থেকে মুক্ত করল।” বুখারী ৭/৬৭ নং ৬৪০৪;

তাসবীহ ৩ঃ

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, “দুটি বাক্য এমন রয়েছে, যা যবানে সহজ, মীযানের পাল্লায় ভারী এবং করুণাময় আল্লাহ্‌র নিকট অতি প্রিয়। আর তা হচ্ছে,

«سُبْحَانَ اللَّهِ وَبِحَمْدِهِ، سُبْحانَ اللَّهِ الْعَظِيمِ».

(সুব্‌হানাল্লা-হি ওয়া বিহামদিহী, সুব্‌হানাল্লা-হিল ‘আযীম)।

‘আল্লাহ্‌র প্রশংসাসহকারে তাঁর পবিত্রতা ও মহিমা বর্ণনা করছি। মহান আল্লাহর পবিত্রতা ও মহিমা ঘোষণা করছি’।” বুখারী ৭/১৬৮, নং ৬৪০৪;

তাসবীহ ৪ঃ

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন,“সুবহানাল্লাহ, আলহামদুলিল্লাহ, লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ, আল্লাহু আকবার— সূর্য যা কিছুর উপর উদিত হয় তার চেয়ে এগুলো বলা আমার কাছে অধিক প্রিয়।” মুসলিম, ৪/২০৭২, নং ২৬৯৫।

তাসবীহ ৫ঃ

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, “তোমাদের কেউ কি প্রতিদিন এক হাজার সওয়াব অর্জন করতে অপারগ?” তাঁর সাথীদের মধ্যে একজন প্রশ্ন করে বলল, আমাদের কেউ কী করে এক হাজার সওয়াব অর্জন করতে পারে? নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন, “যে ব্যক্তি ১০০ বার ‘সুবহানাল্লাহ’ বলবে, তার জন্য এক হাজার সওয়াব লেখা হবে অথবা তার এক হাজার পাপ মুছে ফেলা হবে। ”মুসলিম ৪/২০৭৩, নং ২৬৯৮।

তাসবীহ ৬ঃ

“যে ব্যক্তি বলবে,

« سُبْحَانَ اللَّهِ الْعَظِيمِ وَبِحَمْدِهِ ».

(সুব্‌হানাল্লা-হিল ‘আযীম ওয়াবিহামদিহী)।

‘মহান আল্লাহর প্রশংসার সাথে তাঁর পবিত্রতা ও মহিমা ঘোষণা করছি’— তার জন্য জান্নাতে একটি খেজুর গাছ রোপণ করা হবে।”  তিরমিযী ৫/১১, নং ৩৪৬৪

তাসবীহ ৭ঃ

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, “ওহে আব্দুল্লাহ ইবন কায়েস! আমি কি জান্নাতের এক রত্নভাণ্ডার সম্পর্কে তোমাকে অবহিত করব না?” আমি বললাম, নিশ্চয়ই হে আল্লাহর রাসূল। তিনি বললেন, “তুমি বল,

«لاَ حَوْلَ وَلاَ قُوَّةَ إِلاَّ بِاللَّهِ».

(লা হাউলা ওয়ালা কূওয়াতা ইল্লা বিল্লা-হ)।

“আল্লাহর সাহায্য ছাড়া (পাপ কাজ থেকে দূরে থাকার) কোনো উপায় এবং (সৎকাজ করার) কোনো শক্তি কারো নেই।” বুখারী, ফাতহুল বারীসহ ১১/২১৩, নং ৪২০৬; মুসলিম ৪/২০৭৬, নং ২৭০৪।

তাসবীহ ৮ঃ

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, “আল্লাহ্‌র নিকট সর্বাধিক প্রিয় বাক্য চারটি, তার যে কোনটি দিয়েই শুরু করাতে তোমার কোনো ক্ষতি নেই। আর তা হলো,

«سُبْحَانَ اللَّهِ، وَالْحَمْدُ لِلَّهِ، وَلاَ إِلَهَ إِلاَّ اللَّهُ، وَاللَّهُ أَكْبَرُ».

(সুবহানাল্লা-হি ওয়ালহাম্‌দু লিল্লা-হি ওয়ালা ইলা-হা ইল্লাল্লা-হু ওয়াল্লা-হু আকবার)।

“আল্লাহ পবিত্র-মহান। সকল হামদ-প্রশংসা আল্লাহর। আল্লাহ ছাড়া কোনো হক্ব ইলাহ নেই। আল্লাহ সবচেয়ে বড়।”মুসলিম ৩/১৬৮৫, নং ২১৩৭।

তাসবীহ ৯ঃ

এক বেদুঈন রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের কাছে এসে জিজ্ঞেস করল, আমাকে একটি কালেমা শিক্ষা দিন যা আমি বলব। তখন রাসূল বললেন, “বল,

«لاَ إِلَهَ إِلاَّ اللَّهُ وَحْدَهُ لاَ شَرِيكَ لَهُ، اللَّهُ أَكْبَرُ كَبِيراً، وَالْحَمْدُ لِلَّهِ كَثِيراً، سُبْحَانَ اللَّهِ رَبِّ العَالَمِينَ، لاَ حَوْلَ وَلاَ قُوَّةَ إِلاَّ بِاللَّهِ الْعَزِيزِ الْحَكِيمِ»

(লা ইলা-হা ইল্লাল্লা-হু ওয়াহদাহু লা শারীকা লাহু, আল্লা-হু আকবার কাবীরান, ওয়ালহামদুলিল্লা-হি কাসীরান, সুবহা-নাল্লা-হি রাব্বিল আ-লামীন, লা হাউলা ওয়ালা কূওয়াতা ইল্লা বিল্লা-হিল ‘আযীযিল হাকীম।)

“একমাত্র আল্লাহ ব্যতীত কোনো হক্ব ইলাহ নেই, তাঁর কোনো শরীক নেই। আল্লাহ সবচেয়ে বড়, অতীব বড়। আল্লাহ্‌র অনেক-অজস্র প্রশংসা। সৃষ্টিকুলের রব আল্লাহ কতই না পবিত্র-মহান। প্রবল পরাক্রমশীল ও প্রজ্ঞাময় আল্লাহর সাহায্য ছাড়া (পাপ কাজ থেকে দূরে থাকার) কোনো উপায় এবং (সৎকাজ করার) কোনো শক্তি কারো নেই।”

তখন বেদুঈন বলল, এগুলো তো আমার রবের জন্য; আমার জন্য কী? তিনি বললেন: “বল,

«اللَّهُمَّ اغْفِرْ لِي، وَارْحَمْنِي، وَاهْدِنِي، وَارْزُقْنِي».

(আল্লা-হুম্মাগফির লী, ওয়ারহামনী, ওয়াহদিনী,  ওয়ারযুক্বনী)

“হে আল্লাহ! আমাকে ক্ষমা করুন, আমার প্রতি দয়া করুন, আমাকে হেদায়াত দিন এবং আমাকে রিযিক দিন।” মুসলিম ৪/২০৭২, নং ২৬৯৬।

তাসবীহ ১০ঃ

“কোনো ব্যক্তি ইসলাম গ্রহণ করলে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তাকে প্রথমে সালাত শিক্ষা দিতেন। অতঃপর এসব কথা দিয়ে দো‘আ করার আদেশ দিতেন,

«اللَّهُمَّ اغْفِرِ لِي، وَارْحَمْنِي، وَاهْدِنِي، وَعَافِنِي وَارْزُقْنِي».

(আল্লা-হুম্মাগফির লী ওয়ারহামনী ওয়াহদিনী ওয়া ‘আ-ফিনী ওয়ারযুক্বনী)।

“হে আল্লাহ! আপনি আমাকে ক্ষমা করুন, আমাকে দয়া করুন, আমাকে আপনি হেদায়াত দিন, আমাকে নিরাপদ রাখুন এবং আমাকে রিযিক দান করুন।” মুসলিম ৪/২০৭৩; নং ৩৬৯৭।

তাসবীহ ১১ঃ

“সর্বশ্রেষ্ঠ দো‘আ হল,

«الْحَمْدُ لِلَّهِ»

(আলহামদু লিল্লাহ)

“সকল প্রশংসা আল্লাহরই”। আর সর্বোত্তম যিক্‌র হল,

«لاَ إِلَهَ إِلاَّ اللَّهُ»

(লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ)

“আল্লাহ ব্যতীত কোনো হক্ব ইলাহ নেই।” তিরমিযী ৫/৪৬২, নং ৩৩৮৩;

তাসবীহ ১২ঃ

“‘আল-বাকিয়াতুস সালিহাত’ তথা চিরস্থায়ী নেক আমল হচ্ছে,

«سُبْحَانَ اللَّهِ، وَالْحَمْدُ لِلَّهِ، وَلاَ إِلَهَ إِلاَّ اللَّهُ، وَاللَّهُ أَكْبَرُ، وَلاَ حَوْلَ وَلاَ قُوَّةَ إِلاَّ بِاللَّهِ».

(সুবহা-নাল্লা-হি, ওয়ালহামদুলিল্লা-হি, ওয়া লা-ইলা-হা ইল্লাল্লা-হু, ওয়াল্লা-হু আকবার, ওয়ালা হাউলা ওয়ালা কূওয়াতা ইল্লা বিল্লা-হি)

“আল্লাহ পবিত্র-মহান। সকল হামদ-প্রশংসা আল্লাহর। আল্লাহ ছাড়া কোনো হক্ব ইলাহ নেই। আল্লাহ সবচেয়ে বড়। আর আল্লাহর সাহায্য ছাড়া (পাপ কাজ থেকে দূরে থাকার) কোনো উপায় এবং (সৎকাজ করার) কোনো শক্তি কারো নেই।” মুসনাদে আহমাদ নং ৫১৩;

(সংগৃহীত)

What is COVID-19?

BadshahNiazul
Mar 31, 08:31 PM

Corona virus disease (COVID‑19)

Also called: 2019-nCov, 2019 Novel Corona virus.

Coronavirus disease (COVID-19) is an infectious disease caused by a new virus.
 

The disease causes respiratory illness (like the flu) with symptoms such as a cough, fever, and in more severe cases, difficulty breathing. You can protect yourself by washing your hands frequently, avoiding touching your face, and avoiding close contact (1 meter or 3 feet) with people who are unwell.
 

How it spreads

Coronavirus disease spreads primarily through contact with an infected person when they cough or sneeze. It also spreads when a person touches a surface or object that has the virus on it, then touches their eyes, nose, or mouth.

Chiv: Google

What is the meaning of the word COVID-19?

BadshahNiazul
Mar 31, 08:05 PM

CO=Corona (করোনা)

 

VI=Virus (ভাইরাস)

 

D=Disease (ব্যাধি)

 

19=2019

What is the meaning of the word BISSOY?

BadshahNiazul
Mar 31, 07:26 PM

B=Brilliancy (প্রতিভা)।

I=Information (তথ্য)।

S=Surprise (বিস্ময়/চমকপ্রদ)।

S=Shine (উদ্ভাসিত/ঔজ্জ্বল্য)।

O=Oracle (সুবিজ্ঞ ব্যক্তি/জ্ঞানী লোক)।

Y=Yard (অঙ্গন/প্রাঙ্গণ)।

What is Bissoy?

BadshahNiazul
Mar 31, 06:13 PM

Bissoy is the largest question answering site in Bengali (বিস্ময় বাংলা ভাষার বৃহত্তম প্রশ্নোত্তর ভিত্তিক সমস্যা সমাধানের সাইট)।

গোলাপকে বলা হয় ফুলের রাণী, তাহলে ফুলের রাজা কে? আমকে বলা হয় ফলের রাজা, তাহলে ফলের রানী কে? আমরা কি ধরেই নিয়েছি যে, ফুল হলো মেয়ে আর ফল হলো ছেলে? কিন্তু ফলের বীজ থেকেই তো নতুন উদ্ভিদের জন্ম, তখন ফল হয় মা। তাহলে? কোনো বাংলাদেশীকে যদি জিজ্ঞেস করা হয়, আপনার মাতৃভূমির নাম কি? সে বুক ফুলিয়ে বলবে, বাংলাদেশ। কিন্তু যদি পিতৃভূমির নাম জিজ্ঞেস করেন? তাহলে? সে মাথা চুলকাবে! কিন্তু কেনো? কেউ কেউ হয়তো নিজের গ্রামের নামও বলতে পারেন। বাংলাদেশ যদি মাতৃভূমি হয়, তাহলে পিতৃভূমি কোনটি?