user-avatar

sinesis

◯ sinesis

এসব  সমস্যা  যারা হস্তমৈথুন করে তাদের বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায়। হস্তমৈথুন  থেকে প্রস্রাবের সমস্যা, ধাতু ক্ষয় রোগ সহ আরো অনেক জটিলতা দেখা দেয় । মুলত হস্তমৈথুন এর সময় পুরুষের শুক্রাশয় ও মহিলাদের ডিম্বাশয়/জরায়ুতে   চাপ পড়ার কারণে শরীরে  এরকম হতে পারে।  হস্তমৈথুন বন্ধ করে দেন পুরোপুরি, নিয়ম মাফিক জীবনযাপন করেন, খাবারের পুষ্টিমানের দিকে নজর দেন,নিজেকে অসুস্থ ভাববেন না। ঠিক হয়ে যাবে ।

শাইখুল আরব ওয়াল আজম হযরত মাওলানা হুসাইন আহমাদ মাদানী (রহ.) থেকে বর্ণিত যে, ‘সূরা ফাতিহা’র নিম্নোক্ত আমলটি এমন সব রোগ থেকে আরোগ্য লাভের জন্য পরীক্ষিত যেসব রোগ সম্পর্কে ডাক্তারগণ কোন চিকিৎসা নেই বলে দিয়েছেন। (মা’মুলাতে মাছুরা, পৃ. ৬৭)
১। দুরূদ শরীফ ৭ বার।
২। প্রথমে একবার ﺍَﻋُﻮْﺫُ ﺑِﺎﻟﻠﻪِ ﻣِﻦَ ﺍﻟﺸَّﻴْﻄَﺎﻥِ ﺍﻟﺮَّﺟِﻴْﻢِ পড়বে।
অতঃপর ﺑِﺴْﻢِ ﺍﻟﻠﻪِ ﺍﻟﺮَّﺣْﻤٰﻦِ ﺍﻟﺮَّﺣِﻴْﻢِ -কে ‘সূরা ফাতিহা’র সাথে মিলিয়ে পড়বে, যেমন, ﺑِﺴْﻢِ ﺍﻟﻠﻪِ ﺍﻟﺮَّﺣْﻤٰﻦِ ﺍﻟﺮَّﺣِﻴْﻢِ ﺍﻟْﺤَﻤْﺪُ ﻟِﻠّٰﻪِ ﺭَﺏِّ ﺍﻟْﻌَﺎﻟَﻤِﻴْﻦَ । এরপর আমীন বলবে। এভাবে ৭ বার ‘সূরা ফাতিহা’ পড়বে।
৩। দুরূদ শরীফ ৭ বার
অতঃপর সে পানি বা তেল এ ফুঁক দিবে। এ পানি বা তেল রোগী ব্যবহার করলে ‘সূরা ফাতিহা’র বরকতে ইনশাআল্লাহ অবশ্যই আরোগ্য লাভ হবে ।
দ্রষ্টব্য, ফজরের সুন্নাত ও ফরয নামাযের মধ্যবর্তী সময়ে উক্ত নিয়মে (অর্থাৎ বিসমিল্লাহকে সূরা ফাতিহার সাথে মিলিয়ে) ৪১ বার ‘সূরা ফাতিহা’ পড়লে কঠিন ও জটিল রোগ (যার চিকিৎসার আশা রোগী ছেড়ে দিয়েছে) ভাল হবে ইনশা-আল্লাহ। শুরু এবং শেষে ১১ বার দুরূদ শরীফ পড়তে হবে। যদি সুন্নাত ও ফরয নামাযের মধ্যবর্তী সময়ে পড়া সম্ভব না হয় তাহলে ফজরের নামাযের পর পড়বে এবং শেষে বুকে ফুঁক দিতে হবে।
(মা’মুলাতে ইয়াওমিয়া, পৃ. ১১)

এই সমস্যা টা যারা হস্তমৈথুন করে তাদের বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায়। করার আগে সব স্বাভাবিক থাকলেও করার পরে পেটের মধ্যে একরকম  অস্থির ভাব বা বমি বমি টাইপের অনুভব ও শুরু হয়। এ  থেকে প্রস্রাবের সমস্যা, ধাতু ক্ষয় রোগ সহ আরো অনেক জটিলতা দেখা দেয় । মুলত হস্তমৈথুন এর সময় পুরুষের শুক্রাশয় ও মহিলাদের ডিম্বাশয়/জরায়ুতে   চাপ পড়ার কারণে এরকম হতে পারে। সেক্সএর সময় এই সমস্যা হয় না তবে হস্তমৈথুন করা বন্ধ না করলে যখনই বীর্যপাত হবে তখনই এরকম সমস্যা হবে। 

উপদেশঃ

1.  আক্রান্ত স্থানে হাত দিবেন না, চুল্কাবেন না।
3. আপনার জামা অন্য কেউ পড়বেনা। আপনিও কারু জামা পড়বেন না
4. ঢিলাঢালা জামা পড়বেন। শরীরে ঘাম বসতে দিবেন না। গরমে 2 বেলা গোসল করবেন।
5. আক্রান্ত স্থানে সাবান / ডেটল ইত্যাদি লাগাবেন না। Nizoder/ ketocon shampoo দিয়ে ওয়াশ করবেন।

আপনি খেজুরের সাথে শসা মিশিয়ে খেয়ে দেখতে পারেন এই উপায়টা অত্যন্ত কার্যকরী । একইসাথে  খাবারে স্নেহ ও আমিষ এর পরিমাণ বাড়িয়ে দিবেন। 

ইসলামে পুরুষ কিংবা মহিলা যে কারো খেলার বৈধতার অন্যতম একটি শর্ত হচ্ছে সতর ঢাকা থাকতে হবে। মহিলারা সতর ঢাকা অবস্থায় খেলতে পারবেন এতে কোন সমস্যা নেই ।

ডিপ্রেশন একটি জটিল রোগ। কেন এ রোগ হয় নির্দিষ্ট করে কারো পক্ষেই তা বলা সম্ভব না। তবে অনেকের ক্ষেত্রেই কিছু কমন কারণ থাকে যার জন্য এ রোগের উৎপত্তি হতে পারে।

. অপমানবোধ

মানসিক বা শারীরিকভাবে অবমাননার স্বীকার হলে অনেকে ডিপ্রেশন বা বিষন্নতায় আক্রান্ত হয়।

২. নিরাপত্তাহীনতা বা একাকীত্ব

সামাজিক ও পারিবারিক নিরাপত্তাহীনতার কারণে অনেকে বিষন্নতার স্বীকার হয়। তাছাড়া, বাবা-মা, বন্ধু-বান্ধব বা অন্যান্য কাছের মানুষদের সাথে সম্পর্কহীনতা বা মতবিরোধ থেকেও অনেকে বিষন্নতায় ভোগে থাকে।

৩. মৃত্যুশোক

কাছের মানুষের মৃত্যু অনেকের ক্ষেত্রে বিষন্নতার ঝুঁকি বাড়ায়।

৪. বংশগত প্রভাব

পরিবারে কারো ডিপ্রেশন থাকলে তা অন্যদের উপর প্রভাব বিস্তার করতে পারে।

৫. জীবন পদ্ধতিতে বড় ধরণের পরিবর্তন

জীবনে বড় কোন পরিবর্তন ঘটলে তা থেকে অনেকে বিষন্নতায় ভুগে। চাকরি হারালে, অবসরে গেলে, আয় কমে গেলে, জায়গা পরিবর্তন করলে, বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটলে, এমনকি, নতুন বিয়ে করলেও অনেকে ডিপ্রেশনের শিকার হয়।

৬. বড় কোন রোগের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া

বড় ধরণের কোন রোগ থাকলে রোগী ডিপ্রেশনের শিকার হতে পারে।

৭. ঔষধের প্রভাব

নির্দিষ্ট কিছু ঔষধ সেবনের ফলেও কেউ কেউ বিষন্নতায় আক্রান্ত হয়। যেমন, ব্রণের চিকিৎসায় ব্যবহৃত আইসোট্রেটিনিয়ন বা অ্যান্টিভাইরাল ‘ইন্টারফেরন-আলফা’ জাতীয় ঔষধ সেবনেও অনেকে বিষন্নতায় আক্রান্ত হয়।

এছাড়াও বিভিন্ন কারণে মানুষ বিষন্নতায় ভুগে থাকে। ব্যক্তিভেদে বিষন্নতার কারণে পার্থক্য দেখা যায়।


এইচএসসি  পরীক্ষায়  অর্থনীতিতে মোট ১০০ মার্ক ।

না ব্যবহারিক নেই।

বিগত কয়েকদিন থেকে আমার ইউরিনে সমস্যা হচ্ছে। আমার প্রস্রাবের বেগ/চাপ আসে না ।কিন্ত এই সময় যদি আমি প্রস্রাব করতে যাই তাহলে ঠিকই প্রস্রাব হবে । এই সমস্যা কি এখানে আর কারো হয়?কি করলে এটা ঠিক হবে কেউ বলবেন? 


আমি মহিলা 

আমার বয়স:20

সিসি ক্যামেরা অন করলে কি আলো জ্বলবে?কিভাবে বুঝবো সিসি ক্যামেরা গুলো অন আছে?
আমি এইচএসসি পরীক্ষার্থী।  এইচএসসি পরে আমি দেশের বাইরে লেখা পড়া করতে চাই, আমার প্রশ্ন হলো: বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির আবেদন কি আমি রেজাল্ট পাওয়ার পরে করব? নাকি আগে? এক্ষেত্রে কোন সংস্থা কি আমাকে সাহায্য করতে পারবে?
এডুকেশন লোন ও প্রবাসী লোন এর জন্য আবেদন করতে কি কি লাগে?
একই সাথে একাধিক ব্যাংক থেকে কি লোন উঠানো যায়?