user-avatar

Sayem765

◯ Sayem765

আজকাল প্রেমিক প্রেমিকারা সাহিত্যিক বা বিভিন্ন কোডে এসএমএস প্রেম করেন যাতে পরিবারের অন্য কেউ মেসেজ দেখলে বুঝতে না পারে। 


সেগুলো কিভাবে কিভাবে হয় যদি জানাতেন,, ধন্যবাদ

বিভিন্ন জায়গায় দেখা যায় যে যুদ্ধ বা অন্যান্য ক্ষেত্রে কোন একটি তথ্য ম্যসেজ এমন ভাবে পাঠানো হয় যে সেটা যাকে পাঠানো হয়েছে সে ছাড়া কেউ বুঝে না, অর্থাৎ সিক্রেট কোড আকারে!


আমি ওই সম্পর্কে টুকটাক জানতে চাই, এবং এক আদটু শিখতেও চাই, তবে বিশাল কোডিং সিস্টেম নয়, শুধু ব্যসিক কিছু ধারনা নেব, এবং নিজে ছোটখাটো কোন সিক্রেট ম্যসেজ বন্ধুদের দিতে পারব,।


আর এগুলো টুকিটাকি শেখার জন্য অনলাইনে কোন ফ্রি পিডিএফ বই থাকলেও জানাবেন!


ধন্যবাদ।

গে রা কি ইচ্ছে করেই গে হয় নাকি নারী পুরুষের মতো এটাও তার শরীরের একটি চাহিদা?


পারলে বিভিন্ন সোর্সসহ বিস্তারিত জানালে খুব উপকৃত হতাম। ধন্যবাদ

গে বা লেজবিয়ান আমি জানি ইসলাম এ অপরাধ। এটা করলে তার জন্য ইসলামি বিধানে কি শাস্তি আছে??



আর আমার জানায় কিছু ভুল থাকলে অবশ্যই বিস্তারিত জানাবেন। ধন্যবাদ

হাস্যকর লাগলেও, আমার গার্লফ্রেন্ড এর নামটা আমার বিরক্তিকর লাগে, তার জন্য ভালো কিছু নাম সাজেশন দিলে খুব উপকৃত হতাম‌।


আমি অনেক ব্রাউজিং করেও কিছু পছন্দ করতে পারি নি!!


ধন্যবাদ

গার্লফ্রেন্ড কে উপহার দেওয়ার জন্য ভালো রোমান্টিক বা যেকোন ধরনের বই সাজেশন চাই,


যে কোনো ধরনের হোক,তবে তার পছন্দের এবং ভালো মানের হওয়া চাই, ধন্যবাদ

প্রায়ই শুনতে পাওয়া যায় এসিড নিক্ষেপ করা হয়েছে।জানতে চাই সেটা কি এসিড,মানে কি কি এসিড নিক্ষেপ এ চামড়া পুড়ে যায়,আর তার মাত্রা কি,একটু বিস্তারিত বলবেন প্লিজ, ধন্যবাদ

অধিকাংশ মানুষ এর প্রথম ভালোবাসাই হয় ভুল মানুষের সাথে।যা শুধু কষ্টের কারন ই হয়, তাছাড়া কিছু না।হতে পারে আপনার গার্লফ্রেন্ড সেই ছেলেকে সত্যি ভালোবেসেছিল বা বাসে,আর হয়তোবা হটাৎ তাকে না পাওয়ার আফসোস থেকে তার প্রতি দুর্বলতা জন্ম নিয়েছে,তাই মনে হচ্ছে যে সে হয়তো ওই ছেলেকে ভালোবাসে।আর ভালোবাসলেই বা কি, আপনার তো তাতে বড় কোন ক্ষতি নেই, হ্যাঁ এটা একটু কষ্ট বা আফসোস এর যে তার প্রথম আর শেষ ভালোবাসা হতে পারেন নি,তবে প্রথম ভালোবাসা ই শুধু ভালোবাসা হয় সেটা একদম না। কিছু কিছু সময় প্রথম ভালোবাসা থেকে দ্বিতীয় বা পরের ভালোবাসায় বেশি ভালোবাসা থাকে।আর যেমনটা আপনি বললেন,দুই বছর রিলেশন আছে,আর ওই ছেলেকে আপনার গার্লফ্রেন্ড খুব ভালো করে চিনতও না, অন্তত আপনার মতো ভালো করে তো অবশ্যই না।এটা ধিরে ধিরে তাকে বোঝানোর চেষ্টা করুন,আপনাকে যদি নাও ভালোবাসে তবুও আপনার সাথে সে দুই বছর ছিল,আর অন্যদিকে ওই ছেলের সাথে রিলেশন ই হয় নি, যদি ওই ছেলের সাথে রিলেশন হয় তাকে চিনতে পারে তখন হয়তো সে আপনার কাছেই ফিরে আসবে,কারন আপনাকে সে যে কারো থেকে ভালো করে চেনে,আর রিলেশন এ একে অন্যের প্রতি বিশ্বাস ই মূলমন্ত্র।তাকে বোঝানোর চেষ্টা করুন আপনি তাকে কতটা বিশ্বাস করেন। আর ধৈর্য ধরুন, আপনি এখন কিছু খারাপ করে বসলে আপনার ই ক্ষতি, হয়তো কিছু দিন পর সব ঠিক হয়ে যাবে কিন্তু আপনি নিজের ক্ষতি করলে তা রয়ে যাবে। ধন্যবাদ

আমার সাথে একটা মেয়ের রিলেশন চলছে,প্রায় ৬ মাস,তার সম্পর্কে মোটামুটি অনেক কিছুই জানি,, আমাদের কখনো দেখা হয় নি,মানে ভার্চুয়াল প্রেম,, পরিচয় এর এক মাসের মধ্যেই সে আমাকে প্রোপজ করে,আমি বলেছি আমার সময় লাগবে,সেই থেকে পাচ মাস হয়ে গেল,আমি এর মধ্যে কম হলেও ৫০-৬০ বার বলেছি তাকে ভালোবাসি না, কিন্তু তবুও কে কিছু মনেও করে না সে শুধু আমাকে ভালোবাসবে, ফোন এ রেগুলার ই অনেক কথা হয়, তার পরিবার সম্পর্কে ও জানি,,


তবুও জীবনসঙ্গী হিসেবে করতে গেলে একটু শিওর হওয়া উচিৎ যে সে আমাকে সত্যিই ভালোবাসে কিনা,,আমি অনেক ভাবে টেস্ট করেছি,সে সববার ই সাকসেসফুল হয়েছে, তাই আপনাদের কাছে সাহায্য চাচ্ছি,আর কোন মাধ্যম কি আছে তার ভালোবাসা নাকি আবেগ তা পরিক্ষা করার??


ধন্যবাদ