user-avatar

Rubidium

Rubidium

Rubidium এর সম্পর্কে
যোগ্যতা ও হাইলাইট
পুরুষ
Unspecified
Unspecified
প্রশ্ন-উত্তর সমূহ 2.46M বার দেখা হয়েছে
জিজ্ঞাসা করেছেন 933 টি প্রশ্ন দেখা হয়েছে 801.61k বার
দিয়েছেন 1.47k টি উত্তর দেখা হয়েছে 1.66M বার
0 টি ব্লগ
6 টি মন্তব্য

এটি বিভিন্ন কারণে হয়ে থাকতে পারে।যেমন কোষ্ঠকাঠিন‍্য বা শক্ত পায়খানা হওয়া।এরফলে মলদ্বার (Rectum) ছিলে যায়।আবার কৃমির উপদ্রব হলে এমনটা মলদ্বারে হতে পারে।আপনি ইসবগুলের ভূষি খান।পায়খানা নরম হবে।আর কৃমির জন‍্য একটা Albendazole 500mg রাতে ভরাপেটে খেয়ে নিন একটা।তিন মাস পরপর খাবেন।তাছাড়া পানি খান বেশি।এতে কোলন আদ্র থাকবে।মলদ্বার শুষ্ক হবেনা।

একাদশ ভর্তিতে অনলাইন আবেদনে কি কি কাগজপত্র লাগবে?মার্কশিট কি লাগবে?কপি নাকি মূল মার্কশিট লাগবে?বিস্তারিত জানান।

এই ম‍্যাসেজ নিয়ে সমাজসেবা অফিসে যান।না হলে ফোন করুন।

এই পাদ হলো সালফারের গ‍্যাস।পেটের ভিতর অতিরিক্ত গ‍্যাস তৈরি হলে এই পাদ আসে।মানে এটের ভিতর সালফারের যৌগ তৈরি হলে এই পাদ আসে।সালফার বেশি থাকলে পাদের দুর্গন্ধও বেশি হয়।বাংলাদেশের মানুষ বেশি তেল চর্বিযুক্ত খাবার খায়।মানে ভাজাপোড়া বেশি খায়।যা পেটে প্রচুর গ‍্যাস তৈরি করে।তাছাড়া এইদেশের মানুষ প্রচুর খাবার খায় একসাথে।ফলে পেটে গ‍্যাস হয়।তাছাড়া ভেজালযুক্ত খাবার আরেকটা কারণ।
আপনি সব পানি একসাথে না খেয়ে আধা ঘণ্টা পরপর খাবেন।একটু করে খাবেন।তাছাড়া প্রোটিন খাওয়া কমিয়ে দিন।কারণ অতিরিক্ত প্রোটিন ভেঙে গিয়ে এমাইনো এসিড ইউরিক এসিড এমোনিয়া ক্রিয়েটিনিন তৈরি হয়।যার কারণে প্রস্রাব দুর্গন্ধযুক্ত হয়।প্রতিদিন প্রচুর ভিটামিন সি খান।যেমন লেবু কমলা ও মাল্টা।তাছাড়া আপেল ও পেয়ারা খান।বেশি চিনি ও লবণ খাবেননা।
খুব সুন্দর প্রশ্ন করেছেন।আমাদের দেশে প্রচুর মানুষের পুষ্টি সম্পর্কে কোন ধারণা নেই।আসল কথায় আসি।পটাশিয়াম শরীরের জন‍্য অত‍্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টিউপাদান।পটাশিয়াম হার্টের স্বাস্হ‍্যের জন‍্য ভালো।উচ্চ রক্তচাপ কমায়।পেশি শক্তিশালী করে।পটাশিয়ামের অভাব হলে পেশিতে টান দেয়।ব‍্যথা করে।অবশ অবশ ভাব হয়।তাছাড়া নার্ভের ভিতর উদ্দীপনা বা signal ঠিকমতো যায়না।তাছাড়া ভিটামিন সি ছাড়া কোলাজেন প্রোটিন তৈরি হয়না।যা পেশির ক্ষয়পূরণ করে।মানে repair করে।আপনার মনে হয় এই পটাশিয়াম ও ভিটামিন সি এর অভাব দেখা দিয়েছে।আপনি পটাশিয়ামের জন‍্য প্রতিদিন দুইটা পাকা কলা,এক গ্লাস দুধ,ডাবের পানি,মিষ্টি কুমড়া ও কাঠবাদাম খান।তাছাড়া লেবু মাল্টা খান।প্রতিদিন শরীরে ভিটামিন সি এর চাহিদা 80 mg.আপনি এই চাহিদা পূরণ করুন।তাছাড়া ভিটামিন ডি খান।যেমন দই ঘি মাখন।আশা করি ভালো হবে।
20 কেজি ওজন বাড়াতে প্রচুর খাওয়া দাওয়া করতে হবে।যেমন প্রতিদিন প্রচুর মাছ মাংস খেতে হবে।প্রতিদিন সকালে কাচাছোলা ও মধু খেতে হবে।তাছাড়া সকালে ভাতের সাথে ঘী খেতে পারেন।তাছাড়া সারাদিনে দুইটা সিদ্ধ ডিম ও এক গ্লাস দুধ খেতে হবে।তাছাড়া প্রতিদিন চারটির মতো কাঠবাদাম খাবেন।আর পানি খাবেন দুই থেকে তিন লিটারের মতো।তাহলেই আশা করা যায় ওজন বাড়বে।তবে বিশ কেজি বাড়বেনা।কম বাড়বে।
Na হলো ক্ষারধাতু।আর Cl হলো হ‍্যালোজেন বা 17 নং গ্রুপের মৌল।আর ক্ষারধাতু গ্রুপের মৌল হ‍্যালোজেনের সাথে বিক্রিয়া করে লবণ তৈরি করে।তাই Na ও Cl এর সমন্বয়ে Nacl লবণ তৈরি হয়।এটি একধরণের আয়নিক যৌগ।যা জলীয় দ্রবণে আয়নিত হয়।
বর্তমানে বিল্বের সেরা ক্রিকেটার ভিরাট কোহলি (ব‍্যাটিং) আর মিচেল স্টার্ক (বোলিং)

এটা আসলে একধরণের বিশেষত্ব।যা আইন পাশ করে করা হয়েছে।সকল মহানগর বা মেট্রোপোলিটন পুলিশদের পোশাক এইরকম হালকা টিয়া কালারের।এটা একটা নিয়ম।মেট্রোপোলিটন পুলিশদের বিশেষভাবে উপস্হাপনের জন‍্য এই পোশাক দেওয়া হয়।

এই বদকাজের ফলে শরীর থেকে প্রচুর পুষ্টি বেরিয়ে যায়।যার ফলে শরীরের হাড় পেশি সব দুর্বল হয়ে যায়।শরীর শুকিয়ে যায়।একটা জিনিস বোঝেন মানুষ ঘন বীর্জ তৈরির জন‍্য পুষ্টিকর খাবার খায়।মানে পুষ্টিবিদরা এইরকম খাবার খেতে বলে।এর মানে হলো পুষ্টির সাথে শরীরের বীর্য উৎপাদনের গভীর সম্পর্ক রয়েছে।তাই হস্তমৈথুনের ফলে শরীর থেকে পুষ্টিও বলতে গেলে বের হয়ে যায়।তাই আপনি বেশি বেশি দুধ ডিম খান।ফল খান।আর হালকা ব‍্যয়াম করুন প্রতিদিন।তাছাড়া সকালে ছোলাবুট খান।খুব কাজে দিবে।তাছাড়া কাঠবাদাম ও কিসমিস খান।

ক্যারাটি শিখতে হলে কয়মাস শিখতে হবে?কি কি করতে হবে?কোন সমস্যা আছে কিনা?এখনই জানান

হাইড্রোজেন ক্লোরাইড গ্যাস পানিতে দ্রবীভূত করে যে দ্রবণ তৈরি করা হয় তাকে হাইড্রোক্লোরিক এসিড বলে। Hcl (g) +H2o (i) =Hcl (aq)  আমার প্রথম প্রশ্ন হলো এখানে হাইড্রোক্লোরিক এসিড ও হাইড্রোজেন ক্লোরাইডের সংকেত এক হলেও হাইড্রোজেন ক্লোরাইড এসিড নয় কেন?  দ্বিতীয় প্রশ্ন হলো এই গ্যাস পানিতে দ্রবীভূত করলেই এসিড হবে কেন?
কি কি কৌশল অবলম্বন করলে  এ সমস্যার সমাধান হবে সবাই দয়া করে উত্তর দিবেন
তার মানে কেউ পাতলা শুকনা মোটা নয় তার শুকনা থাকার ফলে কি কি সমস্যা হতে পারে