Mahadi

Mahadi

Mahadi08

About Mahadi

I am University student. I read in B. Sc. Engg. in Mechanical Engineering.
যোগ্যতা ও হাইলাইট
পুরুষ
Single
Islam
Work Experiences
Language
Bengali/Bangla English
Trainings
Seba
  • Work
  • 4/5/2017 - 0/0/0
Education
-
  • B.Sc engineering
  • Mechanical Engineering
  • 0-এ গ্র্যাজুয়েট করবেন আশা করা হচ্ছে
Social Profile
Add social profile
প্রশ্ন-উত্তর সমূহ 4.84M বার দেখা হয়েছে এই মাসে 156.77k বার
2.20k টি প্রশ্ন দেখা হয়েছে 2.26M বার
2.55k টি উত্তর দেখা হয়েছে 2.59M বার
3 টি ব্লগ
12 টি মন্তব্য
টাইমলাইন

গ্লুকোমা (glaucoma) শব্দটি প্রাচীন গ্রিক glaukos থেকে এসেছে যার অর্থ নীল, সবুজ বা ধূসর। গ্লুকোমা চোখের একধরনের রোগ, যার ফলে অপটিক স্নায়ু বা নার্ভ ক্ষতির সম্মুখীন হয়। এতে অনেক সময় দৃষ্টি শক্তি হারিয়ে হয়ে যায়। বিভিন্ন রকমের গ্লকোমা রোগ হয়। তার মধ্যে- ওপেন-অ্যাঙ্গেল ও ক্লোজড-অ্যাঙ্গেল গ্লুকোমা অন্যতম। রোগের প্রাথমিক অবস্থায় ভালো চিকিৎসা করালে, দৃষ্টি শক্তি বজায় রাখা যায়। বিভিন্ন প্রকার গ্লুকোমার ক্ষেত্রে বিভিন্ন লক্ষণ দেখা যায়।  

চশমার পাওয়ার /ক্ষমতা -২.০০ বলতে বুঝায় ঐ চশমার লেন্সটি অবতল লেন্স। এটি প্রধান অক্ষের সমান্তরাল একগুচ্ছ আলোকরশ্মিকে এমনভাবে অপসারী করে যেন মনে হয় এগুলো লেন্স থেকে ১/২ মিটার দূরের কোনো বিন্দু থেকে অপসৃত হচ্ছে।

ক্ষীণদৃষ্টি বা হ্রস্বদৃষ্টি বা মায়োপিয়া -এধরনের চোখের ত্রুটিতে অবতল লেন্স ব্যবহার করতে হয়।

যখন চোখ কাছের বস্তু দেখতে পায়, কিন্তু দূরের বস্তু দেখতে পায় না, তখন চোখের এই ত্রুটিকে হ্রস্বদৃষ্টি বলে।

সুরা বাকারার ৮৯ নং আয়াতের অনুবাদ: "এবং যখন আল্লাহর সন্নিধান হতে তাদের নিকট যা আছে তার সত্যতা প্রতিপাদক গ্রন্থ উপস্থিত হলো, এবং পূর্ব হতেই তারা কাফিরদের নিকট তা বর্ণনা করতো, অতঃপর যখন তাদের নিকট সেই পরিচিত কিতাব আসলো, তখন তারা তাকে অস্বীকার করে বসলো, সুতরাং এরূপ কাফিরদের উপর আল্লাহর লা'নত বর্ষিত হোক।"


যখন ইয়াহুদী ও আরবের মুশরিকদের মধ্যে যুদ্ধ হতো, সে সময় ইয়াহুদীরা কাফিরদের বলতো, অতি দ্রুত একজন নবী(সা.) আল্লাহর কিতাব নিয়ে আবির্ভাব করবেন। আমরা তাঁর অনুসারী হয়ে তোমাদেরকে এমনভাবে হত্যা করবো যে, তোমাদের নাম-নিশানা ও মুছে যাবে। তারা এ জন্যে আল্লাহর কাছে প্রার্থনা ও করতো। এরপর যখন নবী (সা.) প্রেরিত হলেন, তখন তাওরাতের বর্ণনা মতে, তারা নবী (সা.) কে চিনতে পারে। কিন্তু, নবী আরবের ছিলেন বলে, তারা হিংসার বশবতী হয়ে তাঁর নবুয়ত অস্বীকার করে বসলো। এতে, তাদের উপর আল্লাহর অভিশাপ নেমে আসলো। 

এ আয়াতের মধ্যে তারই বর্ণনা আছে যে, তারা প্রথম হতেই মানতো, অপেক্ষামানও ছিল, কিন্তু তাঁর আগমনের পর হিংসা ও অহংকারের কারনে এবং শাসন ক্ষমতা হাত ছাড়া হয়ে যাওয়ার ভয়ে স্পষ্টভাবে অস্বীকার করে বসে।

কবির দিন দিন আয়ু ও বল ফুরিয়ে যায়।

ঐক্যতান কবিতার মতে কবি বিচিত্র পথে অগ্রসর হলেও জীবনের সকল স্তরে পৌঁছাতে পারেননি। জীবন সায়াহ্নে কবি অনাগত ভবিষ্যতের সেই মৃত্তিকা-সংলগ্ন মহৎ কবির আবির্ভাব প্রত্যাশা করেছেন।