user-avatar

Natural Ayurveda Ltd

naturalayurveda

naturalayurveda এর সম্পর্কে
যোগ্যতা ও হাইলাইট
প্রকাশে অনিচ্ছুক
Unspecified
Unspecified
প্রশ্ন-উত্তর সমূহ 539 বার দেখা হয়েছে
জিজ্ঞাসা করেছেন 0 টি প্রশ্ন দেখা হয়েছে 28 বার
দিয়েছেন 9 টি উত্তর দেখা হয়েছে 511 বার
2 টি ব্লগ
1 টি মন্তব্য

হস্তমৈথুন বা স্বমেহন, আমাদের বর্তমান যুবসমাজের নিকট অত্যন্ত পরিচিত একটি নাম, যদিও আমরা সকলেই কম-বেশী এর ক্ষতিকর প্রভাব সম্পর্কে অবগত – তবুও আমাদের মাঝেই অনেকেই রয়েছে, যাদের নিকট এই হস্তমৈথুন বা স্বমেহন অনেকটা নেশার মত, তারা ছেড়ে দিতে চাইছে কিন্তু তবুও ছেড়ে দিতে পারছে না – এমন সকল যুবক ভাইদের জন্যই আমাদের আজকের এই পোষ্টটি ।

জেনে নিন, হস্তমৈথুন ছাড়ার সহজ কিছু উপায়সমূহ

১ – প্রথমেই মনে রাখতে হবে, হস্তমৈথুন একটা স্বাভাবিক প্রক্রিয়া। এটা করে ফেলে কোন প্রকার অনুশোচনা, পাপ, বা অপরাধবোধে ভুগবেন না। এমন হলে ব্যাপারটা সব সময় মাথার মধ্যে ঘুরবে এবং এ থেকে মুক্তি পেতে আবার এটা করে শরীর অবশ করে ফেলতে ইচ্ছে হবে। মনে রাখবেন, আপনি মানুষ, আর মানুষ মাত্রই ভুল করে, এটা করে ফেলার পর যদি মনে করেন ভুল হয়ে গেছে তো সেজন্য অনুশোচনা করবেন না, নিজেকে শাস্তি দেবেন না, বরং দৃঢ় প্রতিজ্ঞ হোন যাতে ভবিষ্যতে মন শক্ত রাখতে পারেন।

২ – যেসব ব্যাপার আপনাকে হস্তমৈথুনের দিকে ধাবিত করে, সেগুলো ছুড়ে ফেলুন, সেগুলো থেকে দূরে থাকুন। যদি মাত্রাতিরিক্ত হস্তমৈথুন থেকে সত্যি সত্য মুক্তি পেতে চান তাহলে পর্ণ মুভি বা চটির কালেকশন থাকলে সেগুলো এক্ষুনি নষ্ট করে ফেলুন, পুড়িয়ে বা ছিড়ে ফেলুন। হার্ডড্রাইব বা মেমরি থেকে যৌন উত্তেজক সবকিছু এক্ষুনি ডিলিট করে দিন। ইন্টারনেট ব্যবহারের আগে ব্রাউজারে প্যারেন্টাল কন্ট্রোল-এ গিয়ে এডাল্ট কন্টেন্ট ব্লক করে দিন। কোন শারীরিক মিলন টয় থাকলে এক্ষুনি গার্বেজ করে দিন।

৩ – কোন কোন সময় হস্তমৈথুন বেশি করেন, সেই সময়গুলো চিহ্নিত করুন। বাথরুম বা ঘুমাতে যাওয়ার আগে যদি উত্তেজিত থাকেন, বা হঠাত কোন সময়ে যদি এমন ইচ্ছে হয়, তাহলে সাথে সাথে কোন শারীরিক পরিশ্রমের কাজে লাগে যান, যেমন বুকডন বা অন্য কোন ব্যায়াম করতে পারেন। যতক্ষণ না শরীর ক্লান্ত হয়ে যায়, অর্থাৎ হস্তমৈথুন করার মত আর শক্তি না থাকে, ততক্ষণ পর্যন্ত সেই কাজ বা ব্যায়াম করুন। গোসল করার সময় এমন ইচ্ছে জাগলে শুধু ঠাণ্ডা পানি ব্যবহার করুন এবং দ্রুত গোসল ছেড়ে বাথরুম থেকে বের হয়ে আসুন।

আরো বিস্তারিত জানতে/ সম্পুর্ন আর্টিকেলটি পড়তে - এখানে ক্লিক করুন


সত্যিকারার্থে পুরুষাঙ্গ বড়/ মোটা কিংবা শক্তিশালী করার দেশী বা বিদেশী কোন নিয়ম ই নেই, যদিও ইন্টারনেট ঘাঁটলে লিঙ্গ বড়/ মোটা কিংবা শক্তিশালী করার বেশ কিছু মেডিসিন অথবা ব্যায়াম এর কথা উল্লেক্ষিত বেশকিছু আর্টিকেল দেখাতে পাবেন, তবে সেগুলো তেমন একটা ফলপ্রুস নয় ।

আর, পুরুষাঙ্গের আকৃতি নিয়ে আমাদের সমাজে বেশ ভ্রান্ত ধারনা প্রচলিত রয়েছে । সবার আগে নিজেকে নিজে প্রশ্ন করা উচিত, পেনিস বড়/ মোটা কিংবা শক্তিশালী করার প্রয়োজন কেন ?! আবহাওয়াগত/ জাতিগত ভাবে আমাদের শারীরিক আকৃতির সাথে আমাদের পেনিসের আকৃতিরও সঠিক সামঞ্জস্যতা রয়েছে, তাই এটাকে বিশেষ বড় আকৃতি দেওয়ার ইচ্ছা বা মনোবাসনা কোনটাই উচিত নয় ।

তবে অনেকের ক্ষেত্রে দেখা যায়, দীর্ঘদিন অতিরিক্ত হস্তমৈথুন কিংবা আঘাতজনিত কারনে বা অন্যান্য কারণে পুরুষাঙ্গের আকৃতি পূর্বের চেয়ে ধীরে ধীরে অধিক ছোট কিংবা দুর্বল হয়ে গেছে, তাদের ক্ষেত্রে কিছু কিছু মেডিসিনের ব্যাবহারের ফলে পুরুষাঙ্গের পুর্বের/ প্রাকৃতিক আকৃতি বা শক্তি ফিরিয়ে আনা সম্ভব ।

ডিম প্রোটিন সমৃদ্ধ এমন একটি খাদ্য, যা আমাদের নিকট সুস্বাদু তো বটেই, পাশাপাশি সু-স্বাস্থ্য বজায় রাখতেও খুবই কার্যকর। ডিমের সাদা অংশ ভিটামিন বি সমৃদ্ধ এবং কোলেস্টেরল মুক্ত। এছাড়াও ডিমের সাদা অংশ খাওয়ার রয়েছে আরও অনেক উপকারিতা, চলুন জেনে নেওয়া যাক, ডিমের সাদা অংশের উপকারিতা সম্পর্কিত কিছু তথ্যাদি -

দুর্বল হাড়ের পক্ষে উপকারী- ডিমের সাদা অংশ ক্যালসিয়ামে ভরপুর। এটি আপনার হাড়কে শক্তিশালী ও মজবুত করতে সহায়তা করে। শরীরে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি হলে আপনি ডিমের সাদা অংশ খেতে পারেন। এছাড়াও অস্টিওপোরোসিস, রিকেটস ও হাড়ের নানান গুরুতর সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে ডিমের এই সাদা অংশ।

হৃৎপিণ্ড ভালো রাখে- রক্ত জমাট বাঁধার মতো সমস্যার জন্য ডিমের সাদা অংশ খুব উপকারী। ডিমের সাদা অংশে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এবং খনিজ পদার্থ থাকে, যা আপনার রক্ত সঞ্চালন বাড়াতে সহায়তা করে। এছাড়াও এতে পটাসিয়াম থাকে যা হৃৎযন্ত্রের সমস্যাগুলি থেকে আপনাকে দূরে রাখতে সাহায্য করে।

উচ্চ রক্তচাপের সমস্যায় উপকারী- রক্তচাপ বেশি থাকলে ডিমের সাদা অংশ খেতে পারেন। কারণ এতে প্রচুর পরিমাণে পটাসিয়াম থাকে যা আপনার রক্তচাপের স্তর নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে।

ক্লান্তি কাটাতে সহায়ক ডিম- ডিমের সাদা অংশ খেলে দেহে আয়রনের ঘাটতি দূর হয়। যদি আপনি মাথা ঘোরা বা ক্লান্ত বোধ করার মতো সমস্যায় ভোগেন তবে দিনে একটি করে ডিম খান। ম্যাগনেসিয়াম এবং ম্যাঙ্গানিজ সমৃদ্ধ এই খাদ্য আপনার শরীর থেকে ক্লান্তি দূর করবে।

পেশীর জন্য উপকারী- ডিমের সাদা অংশকে প্রোটিনের 'পাওয়ার হাউস' বলা হয়ে থাকে। ফলে মজবুত পেশী গঠনে সহায়ক ডিম। পেশী শক্ত রাখতে চাইলে প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় ডিমের সাদা অংশ রাখতে পারেন।


কলা আমাদের নিকট খুবই সহজলভ্য এবং পরিচিত একটি ফল। কলা যেমন সুস্বাদু, তেমনি এটি পুষ্টিগুণেও ভরপুর। তবে কলার একটি আলাদা বৈশিষ্ট্য আছে। আর তা হলো ফল হিসেবে যেমন এর কদর আছে, তেমনি সবজি হিসেবেও এর কদর কিন্তু কম নয়।

মূলত পাকা কলা খাওয়া হয় ফল হিসেবে আর কাঁচা কলা খাওয়া হয় সবজি হিসেবে। আসুন, আজ জেনে নেওয়া যাক, কাঁচা কলার কিছু স্বাস্থ্য উপকারিতা-

ওজন কমায় - ওজন কমাতে চাইলে খাদ্য তালিকায় রাখুন কাঁচা কলা। কাঁচা কলার ফাইবার অনেকটা সময় পেট ভরিয়ে রাখে। এটি আঁশযুক্ত হওয়ায় মেদ কমাতেও সাহায্য করে।

রক্তে শর্করা নিয়ন্ত্রণ করে - রক্তে শর্করা নিয়ন্ত্রণের জন্যেও কাঁচা কলা উপকারী। এটি আঁশযুক্ত হওয়ায় রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণ করে। ভিটামিন বি৬ গ্লুকোজ নিয়ন্ত্রণ করে টাইপ-টু ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে।

হৃদরোগের ঝুঁকি হ্রাস করে - পাকা কলার মতো কাঁচা কলাতেও প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম রয়েছে। বিভিন্ন গবেষণায় দাবি করা হয়েছে, প্রতিদিন ৪,৭০০ মিলিগ্রাম পটাসিয়াম গ্রহণে হৃদরোগের ঝুঁকি হ্রাস হয়। তবে পটাসিয়াম সবার জন্য নিরাপদ নয়। উচ্চ রক্তচাপ অথবা কিডনির রোগে আক্রান্ত রোগীদের পক্ষে তাই কাঁচা কলা খাওয়ায় নিয়ন্ত্রণ থাকা উচিত।

পেটের খারাপ ব্যাকটেরিয়া দূর করে - কাঁচা কলা আঁশযুক্ত সবজি হওয়ায় এটি খুব সহজে হজম হয়। কাঁচা কলা পেটের ভেতরের খারাপ ব্যাকটেরিয়া দূর করে দেয়। তবে অতিরিক্ত পেট ফোলার সমস্যা থাকলে কাঁচা কলা না খাওয়াই ভালো।

ডায়রিয়ায় কাঁচা কলা - কাঁচা কলায় থাকে এনজাইম, যা ডায়রিয়া এবং পেটের নানা ইনফেকশন দূর করে। তাই ডায়রিয়া হলে চিকিৎসকেরা কাঁচা কলা খাওয়ার পরামর্শ দেন।


সত্যিকারার্থে পুরুষাঙ্গ বড়/ মোটা কিংবা শক্তিশালী করার দেশী বা বিদেশী কোন নিয়ম ই নেই, যদিও ইন্টারনেট ঘাঁটলে লিঙ্গ বড়/ মোটা কিংবা শক্তিশালী করার বেশকিছু মেডিসিন অথবা ব্যায়াম এর কথা উল্লেক্ষিত আর্টিকেল দেখাতে পাবেন, তবে সেগুলো তেমন একটা ফলপ্রুস নয় ।

আর, পুরুষাঙ্গের আকৃতি নিয়ে আমাদের সমাজে বেশ ভ্রান্ত ধারনা প্রচলিত রয়েছে । সবার আগে নিজেকে নিজে প্রশ্ন করা উচিত, পেনিস বড়/ মোটা কিংবা শক্তিশালী করার প্রয়োজন কেন ?! আবহাওয়াগত/ জাতিগত ভাবে আমাদের শারীরিক আকৃতির সাথে আমাদের পেনিসের আকৃতিরও সঠিক সামঞ্জস্যতা রয়েছে, তাই এটাকে বিশেষ বড় আকৃতি দেওয়ার ইচ্ছা বা মনোবাসনা কোনটাই উচিত নয় ।

তবে অনেকের ক্ষেত্রে দেখা যায়, দীর্ঘদিন অতিরিক্ত হস্তমৈথুন কিংবা আঘাতজনিত কারনে বা অন্যান্য কারণে পুরুষাঙ্গের আকৃতি পূর্বের চেয়ে ধীরে ধীরে অধিক ছোট কিংবা দুর্বল হয়ে গেছে, তাদের ক্ষেত্রে কিছু কিছু মেডিসিনের ব্যাবহারের ফলে পুরুষাঙ্গের পুর্বের/ প্রাকৃতিক আকৃতি বা শক্তি ফিরিয়ে আনা সম্ভব ।

পুরুষ মানবদেহে যৌনস্বাস্থ্য বিষয়ক সমস্যা সৃষ্টির কারণ, প্রতিকার এবং সমাধান বিষয়ক আরো বিস্তারিত জানতে - এখানে ক্লিক করুন

সত্যিকারার্থে পুরুষাঙ্গ বড়/ মোটা কিংবা শক্তিশালী করার দেশী বা বিদেশী কোন নিয়ম ই নেই, যদিও ইন্টারনেট ঘাঁটলে লিঙ্গ বড়/ মোটা কিংবা শক্তিশালী করার বেশকিছু মেডিসিন অথবা ব্যায়াম এর কথা উল্লেক্ষিত আর্টিকেল দেখাতে পাবেন, তবে সেগুলো তেমন একটা ফলপ্রুস নয় ।

আর, পুরুষাঙ্গের আকৃতি নিয়ে আমাদের সমাজে বেশ ভ্রান্ত ধারনা প্রচলিত রয়েছে । সবার আগে নিজেকে নিজে প্রশ্ন করা উচিত, পেনিস বড়/ মোটা কিংবা শক্তিশালী করার প্রয়োজন কেন ?! আবহাওয়াগত/ জাতিগত ভাবে আমাদের শারীরিক আকৃতির সাথে আমাদের পেনিসের আকৃতিরও সঠিক সামঞ্জস্যতা রয়েছে, তাই এটাকে বিশেষ বড় আকৃতি দেওয়ার ইচ্ছা বা মনোবাসনা কোনটাই উচিত নয় ।

তবে অনেকের ক্ষেত্রে দেখা যায়, দীর্ঘদিন অতিরিক্ত হস্তমৈথুন কিংবা আঘাতজনিত কারনে বা অন্যান্য কারণে পুরুষাঙ্গের আকৃতি পূর্বের চেয়ে ধীরে ধীরে অধিক ছোট কিংবা দুর্বল হয়ে গেছে, তাদের ক্ষেত্রে কিছু কিছু মেডিসিনের ব্যাবহারের ফলে পুরুষাঙ্গের পুর্বের/ প্রাকৃতিক আকৃতি বা শক্তি ফিরিয়ে আনা সম্ভব ।

পুরুষ মানবদেহে যৌনস্বাস্থ্য বিষয়ক সমস্যা সৃষ্টির কারণ, প্রতিকার এবং সমাধান বিষয়ক আরো বিস্তারিত জানতে - এখানে ক্লিক করুন

সত্যিকারার্থে পুরুষাঙ্গ বড়/ মোটা কিংবা শক্তিশালী করার দেশী বা বিদেশী কোন নিয়ম ই নেই, যদিও ইন্টারনেট ঘাঁটলে লিঙ্গ বড়/ মোটা কিংবা শক্তিশালী করার বেশকিছু মেডিসিন অথবা ব্যায়াম এর কথা উল্লেক্ষিত আর্টিকেল দেখাতে পাবেন, তবে সেগুলো তেমন একটা ফলপ্রুস নয় ।

আর, পুরুষাঙ্গের আকৃতি নিয়ে আমাদের সমাজে বেশ ভ্রান্ত ধারনা প্রচলিত রয়েছে । সবার আগে নিজেকে নিজে প্রশ্ন করা উচিত, পেনিস বড়/ মোটা কিংবা শক্তিশালী করার প্রয়োজন কেন ?! আবহাওয়াগত/ জাতিগত ভাবে আমাদের শারীরিক আকৃতির সাথে আমাদের পেনিসের আকৃতিরও সঠিক সামঞ্জস্যতা রয়েছে, তাই এটাকে বিশেষ বড় আকৃতি দেওয়ার ইচ্ছা বা মনোবাসনা কোনটাই উচিত নয় ।

তবে অনেকের ক্ষেত্রে দেখা যায়, দীর্ঘদিন অতিরিক্ত হস্তমৈথুন কিংবা আঘাতজনিত কারনে বা অন্যান্য কারণে পুরুষাঙ্গের আকৃতি পূর্বের চেয়ে ধীরে ধীরে অধিক ছোট কিংবা দুর্বল হয়ে গেছে, তাদের ক্ষেত্রে কিছু কিছু মেডিসিনের ব্যাবহারের ফলে পুরুষাঙ্গের পুর্বের/ প্রাকৃতিক আকৃতি বা শক্তি ফিরিয়ে আনা সম্ভব ।

পুরুষ মানবদেহে যৌনস্বাস্থ্য বিষয়ক সমস্যা সৃষ্টির কারণ, প্রতিকার এবং সমাধান বিষয়ক আরো বিস্তারিত জানতে - এখানে ক্লিক করুন

সত্যিকারার্থে পুরুষাঙ্গ বড়/ মোটা কিংবা শক্তিশালী করার দেশী বা বিদেশী কোন নিয়ম ই নেই, যদিও ইন্টারনেট ঘাঁটলে লিঙ্গ বড়/ মোটা কিংবা শক্তিশালী করার বেশকিছু মেডিসিন অথবা ব্যায়াম এর কথা উল্লেক্ষিত আর্টিকেল দেখাতে পাবেন, তবে সেগুলো তেমন একটা ফলপ্রুস নয় ।

আর, পুরুষাঙ্গের আকৃতি নিয়ে আমাদের সমাজে বেশ ভ্রান্ত ধারনা প্রচলিত রয়েছে । সবার আগে নিজেকে নিজে প্রশ্ন করা উচিত, পেনিস বড়/ মোটা কিংবা শক্তিশালী করার প্রয়োজন কেন ?! আবহাওয়াগত/ জাতিগত ভাবে আমাদের শারীরিক আকৃতির সাথে আমাদের পেনিসের আকৃতিরও সঠিক সামঞ্জস্যতা রয়েছে, তাই এটাকে বিশেষ বড় আকৃতি দেওয়ার ইচ্ছা বা মনোবাসনা কোনটাই উচিত নয় ।

তবে অনেকের ক্ষেত্রে দেখা যায়, দীর্ঘদিন অতিরিক্ত হস্তমৈথুন কিংবা আঘাতজনিত কারনে বা অন্যান্য কারণে পুরুষাঙ্গের আকৃতি পূর্বের চেয়ে ধীরে ধীরে অধিক ছোট কিংবা দুর্বল হয়ে গেছে, তাদের ক্ষেত্রে কিছু কিছু মেডিসিনের ব্যাবহারের ফলে পুরুষাঙ্গের পুর্বের/ প্রাকৃতিক আকৃতি বা শক্তি ফিরিয়ে আনা সম্ভব ।

পুরুষ মানবদেহে যৌনস্বাস্থ্য বিষয়ক সমস্যা সৃষ্টির কারণ, প্রতিকার এবং সমাধান বিষয়ক আরো বিস্তারিত জানতে - এখানে ক্লিক করুন

সত্যিকারার্থে পুরুষাঙ্গ বড়/ মোটা কিংবা শক্তিশালী করার দেশী বা বিদেশী কোন নিয়ম ই নেই, যদিও ইন্টারনেট ঘাঁটলে লিঙ্গ বড়/ মোটা কিংবা শক্তিশালী করার বেশকিছু মেডিসিন অথবা ব্যায়াম এর কথা উল্লেক্ষিত আর্টিকেল দেখাতে পাবেন, তবে সেগুলো তেমন একটা ফলপ্রুস নয় ।

আর, পুরুষাঙ্গের আকৃতি নিয়ে আমাদের সমাজে বেশ ভ্রান্ত ধারনা প্রচলিত রয়েছে । সবার আগে নিজেকে নিজে প্রশ্ন করা উচিত, পেনিস বড়/ মোটা কিংবা শক্তিশালী করার প্রয়োজন কেন ?! আবহাওয়াগত/ জাতিগত ভাবে আমাদের শারীরিক আকৃতির সাথে আমাদের পেনিসের আকৃতিরও সঠিক সামঞ্জস্যতা রয়েছে, তাই এটাকে বিশেষ বড় আকৃতি দেওয়ার ইচ্ছা বা মনোবাসনা কোনটাই উচিত নয় ।

তবে অনেকের ক্ষেত্রে দেখা যায়, দীর্ঘদিন অতিরিক্ত হস্তমৈথুন কিংবা আঘাতজনিত কারনে বা অন্যান্য কারণে পুরুষাঙ্গের আকৃতি পূর্বের চেয়ে ধীরে ধীরে অধিক ছোট কিংবা দুর্বল হয়ে গেছে, তাদের ক্ষেত্রে কিছু কিছু মেডিসিনের ব্যাবহারের ফলে পুরুষাঙ্গের পুর্বের/ প্রাকৃতিক আকৃতি বা শক্তি ফিরিয়ে আনা সম্ভব ।

পুরুষ মানবদেহে যৌনস্বাস্থ্য বিষয়ক সমস্যা সৃষ্টির কারণ, প্রতিকার এবং সমাধান বিষয়ক আরো বিস্তারিত জানতে - এখানে ক্লিক করুন

সত্যিকারার্থে পুরুষাঙ্গ বড়/ মোটা কিংবা শক্তিশালী করার দেশী বা বিদেশী কোন নিয়ম ই নেই, যদিও ইন্টারনেট ঘাঁটলে লিঙ্গ বড়/ মোটা কিংবা শক্তিশালী করার বেশকিছু মেডিসিন অথবা ব্যায়াম এর কথা উল্লেক্ষিত আর্টিকেল দেখাতে পাবেন, তবে সেগুলো তেমন একটা ফলপ্রুস নয় ।

আর, পুরুষাঙ্গের আকৃতি নিয়ে আমাদের সমাজে বেশ ভ্রান্ত ধারনা প্রচলিত রয়েছে । সবার আগে নিজেকে নিজে প্রশ্ন করা উচিত, পেনিস বড়/ মোটা কিংবা শক্তিশালী করার প্রয়োজন কেন ?! আবহাওয়াগত/ জাতিগত ভাবে আমাদের শারীরিক আকৃতির সাথে আমাদের পেনিসের আকৃতিরও সঠিক সামঞ্জস্যতা রয়েছে, তাই এটাকে বিশেষ বড় আকৃতি দেওয়ার ইচ্ছা বা মনোবাসনা কোনটাই উচিত নয় ।

তবে অনেকের ক্ষেত্রে দেখা যায়, দীর্ঘদিন অতিরিক্ত হস্তমৈথুন কিংবা আঘাতজনিত কারনে বা অন্যান্য কারণে পুরুষাঙ্গের আকৃতি পূর্বের চেয়ে ধীরে ধীরে অধিক ছোট কিংবা দুর্বল হয়ে গেছে, তাদের ক্ষেত্রে কিছু কিছু মেডিসিনের ব্যাবহারের ফলে পুরুষাঙ্গের পুর্বের/ প্রাকৃতিক আকৃতি বা শক্তি ফিরিয়ে আনা সম্ভব ।

পুরুষ মানবদেহে যৌনস্বাস্থ্য বিষয়ক সমস্যা সৃষ্টির কারণ, প্রতিকার এবং সমাধান বিষয়ক আরো বিস্তারিত জানতে - এখানে ক্লিক করুন

সত্যিকারার্থে পুরুষাঙ্গ বড়/ মোটা কিংবা শক্তিশালী করার দেশী বা বিদেশী কোন নিয়ম ই নেই, যদিও ইন্টারনেট ঘাঁটলে লিঙ্গ বড়/ মোটা কিংবা শক্তিশালী করার বেশকিছু মেডিসিন অথবা ব্যায়াম এর কথা উল্লেক্ষিত আর্টিকেল দেখাতে পাবেন, তবে সেগুলো তেমন একটা ফলপ্রুস নয় ।

আর, পুরুষাঙ্গের আকৃতি নিয়ে আমাদের সমাজে বেশ ভ্রান্ত ধারনা প্রচলিত রয়েছে । সবার আগে নিজেকে নিজে প্রশ্ন করা উচিত, পেনিস বড়/ মোটা কিংবা শক্তিশালী করার প্রয়োজন কেন ?! আবহাওয়াগত/ জাতিগত ভাবে আমাদের শারীরিক আকৃতির সাথে আমাদের পেনিসের আকৃতিরও সঠিক সামঞ্জস্যতা রয়েছে, তাই এটাকে বিশেষ বড় আকৃতি দেওয়ার ইচ্ছা বা মনোবাসনা কোনটাই উচিত নয় ।

তবে অনেকের ক্ষেত্রে দেখা যায়, দীর্ঘদিন অতিরিক্ত হস্তমৈথুন কিংবা আঘাতজনিত কারনে বা অন্যান্য কারণে পুরুষাঙ্গের আকৃতি পূর্বের চেয়ে ধীরে ধীরে অধিক ছোট কিংবা দুর্বল হয়ে গেছে, তাদের ক্ষেত্রে কিছু কিছু মেডিসিনের ব্যাবহারের ফলে পুরুষাঙ্গের পুর্বের/ প্রাকৃতিক আকৃতি বা শক্তি ফিরিয়ে আনা সম্ভব ।

পুরুষ মানবদেহে যৌনস্বাস্থ্য বিষয়ক সমস্যা সৃষ্টির কারণ, প্রতিকার এবং সমাধান বিষয়ক আরো বিস্তারিত জানতে - এখানে ক্লিক করুন