হস্তমৈথুন করেছি ৬-১০ ক্লাশ পর্যন্ত?

হস্তমৈথুন করেছি ৬-১০ ক্লাশ পর্যন্ত?আমি দীর্ঘ ৫ বছর হস্তমৈথুন করেছি প্রথম ৩ বাছর কম করলেও পরের ২ বছর অনেক করেছি প্রতিদিন ৩-৪ বার হস্তমৈথুন করেছি এখন আমার সমস্যা নিম্নরূপ ১-আমার পেনিস শক্ত ঠিকি হয় সেটা স্বল্প সময় কিন্তু সম্পূর্ন দারায় ২-আমার হজম শক্তি কম ৩-আমার বীর্য মনে হয় শুক্রানু কম আমাকে সাহায্য করুন কিভাবে পেনিস অনেক্ষন শক্ত থাকবে আমার কি শুক্রানু কম আমি হস্তমৈথুন বাদ দিয়েছি ৭ দিন হয় করি না এটা চিরতরে বাদ দিতে চাই
বিভাগ: 
Share

2 টি উত্তর

১.গ্রাম শিমুল মুল চুর্ণ বা পাউডার ১ কাপ গরম দুধে মিশিয়ে সেবন করবেন দৈনিক ১ বার ৩ মাস। অথবা ৭-১২ গ্রাম মুল চুর্ণ সমপরিমাণ চিনি সহ সেবন করবেন দৈনিক ২ বার , ২-৩ মাস। অথবা শিমুল মুল চূর্ণ / পাউডার ১ চামচ করে হালকা পানি সহ সেবন করবেন। ২.১ গ্রাম পরিমান লবঙ্গ চূর্ণ বা লবঙ্গ ফুল চূর্ণের সাথে সমপরিমাণ অশ্বগন্ধা ও শতমূলি চূর্ণ মিশিয়ে ১ গ্লাস গরম দুধে মিশিয়ে দৈনিক ২ বার ২ মাস সেবন করবেন ।তেতুল বিচির সাদা অংশ পাউডার করে দৈনিক ১ বার ১ চামচ করে সেবন করবেন ২-৩ মাস। কাঁচা পেঁপে প্রতিদিন সকালে খাবেন  তাতে হজমের প্রবলেম সলভ হবে। আবার আপনি ডাক্তারের পরামর্শ মোতাবেক-


জিনসেং প্লাস

BIOMANIX

VIGREX      (   সেবান করতে পারেন।) 


উপরোক্ত ঔষধ গুলো রোগের আবস্হা হিসাবে ১/৩/৬ মাস পর্যন্ত ব্যবহার করা লাগতে পারে।

আপনার এ সমস‍্যাগুলো থেকে উত্তরণের জন‍্য আপনাকে যা যা করতে হবেঃ ১। চিরদিনের জন‍্য হস্তমৈথুন করা ছেড়ে দিতে হবে। ২। অশ্লীলতার ধারে কাছেও যাওয়া যাবে না। ৩। নিয়মিত সকালে ঘুম থেকে উঠে আধা গ্লাস গাভীর দুধ এবং রাতে ঘুমানোর পূর্বে আধা গ্লাস গাভীর দুধ খাবেন। ৪। প্রতিদিন সকালে ১টি সিদ্ধ ডিম ও রাতে ১টি সিদ্ধ ডিম খাবেন। ৫। নিয়মিত বিকালে ১-২ চা চামচ মধু খাবেন। ৬। কালোজিরার ভর্তা দিয়ে ভাত খাবেন। কালোজিরার ভর্তা মুড়ির সাথে মেখেও খেতে পারেন। ৭। প্রতিদিন ২-৩ কোয়া কাঁচা রসুন চিবিয়ে খাবেন। কাঁচা রসুনের ভর্তা দিয়ে ভাতও খেতে পারেন। ৮। নিয়মিত দুধের সর খান। ৯। গরুর গোশত ও গরুর কলিজা খান। ১০। মিষ্টি কুমড়া ও মাষকলাই ডাল খান। ১১। নিয়মিত খুবই হালকাভাবে লিঙ্গে কয়েক ফোঁটা মধু মালিশ করুন। ১২। ভাত ও ভাতের মাড় খান। ১৩। হস্তমৈথুনের ক্ষতি থেকে বের হয়ে সমস‍্যাগুলো দূর করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসা সময়সাপেক্ষ। তবে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসা অবশ্যই সম্ভব। নিয়মিত উপরোক্ত নিয়মগুলো অনুসরণ করলে ৩-৬ মাসের মধ‍্যে পূর্ণ স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসা সম্ভব। ধন‍্যবাদ।

সাম্প্রতিক প্রশ্নসমূহ