2 Answers

 (7407 পয়েন্ট) 

উত্তরের সময় 

হযরত মুহাম্মাদ (সঃ) সম্বন্ধেঃ

তিনি (সঃ) ছিলেন -

১. একজন দার্শনিক।

২. একজন সফল বাগ্মী।

৩. ধর্মপ্রচারক।

৪. আইনবিদ।

৫. যোদ্ধা।

৬. প্রথম রাষ্ট্রীয় সনদের প্রণয়নকারী। 

৭. সফল মহা রাষ্ট্রনায়ক।

৮. আল্লাহর কাছে তিনি শ্রেষ্ঠ বন্ধু ও শ্রেষ্ঠ রাসূলের অধিকারী।

৯. জনগনের কাছে ছিলেন তিনি দয়ার আধার। 

১০. সর্বোপরি সর্বশ্রেষ্ঠ জীবনবিধান ইসলাম ধর্ম-এর প্রবর্তক।

জনাব, এককথায় - তিনি প্রচার করেছেন এমন একটা অতুলনীয় ধর্ম, যা কোনো রকম মূর্তিপূজার ধার ধারে না। যতো দিক দিয়েই বিচার করি না কেন, আমরা অত্যন্ত সঙ্গত কারণে বলতে পারি যে, তাঁর চাইতে শ্রেষ্ঠ মানুষ আর কেউ নেই।

 (9304 পয়েন্ট) কোরা বাংলার একজন ব্যাবহারকারী, বাংলা উইকিপিডিয়ার একজন অনেক পুরাতন সম্পাদক বলতে পারেন

উত্তরের সময় 

কিছু কারণ আছে =>  খতমে নবুয়ত (মুহাম্মদ তোমাদের মধ্যে কোন পুরুষের পিতা নন। বরং তিনি আল্লাহ তায়ালার সর্বশেষ নবী(সুরা - আল আহযাব - আয়াত ৪০)। তাছাড়াও তিনি আল্লাহ প্রদত্ত শ্রেষ্ঠ খেতাব পেয়েছে। তার প্রতিটা কথা সঠিক ছিল।  প্রতিটা ভালো কাজেই তিনি পারদর্শী ছিলেন।ক্রিত দাস থেকে শুরু করে, আত্মিয়-স্বজন,এমনকি পশু পাখিকেউ ভালো বাসতেন। তিনি বলেন- জমিনের বসবাস কারীদের দয়া কর,(সুনানে তিরমিযি) তিনি তিনি সুষ্ঠু ভাবে পরিবার পরিচলনা করতেন।কথা দিয়ে কথা রাখতেন। তিনি কখনো সুদকে সমর্থন করতেন না। সুদের পরিবর্তে ব্যাবসাকে উৎসাহীত করতেন। (আল্লাহ সুদকে হারাম ও ব্যাবসাকে হালাল করেছেন (সূরা আল বাকারা> আয়াত ২৭৫) মোট কথা তিনি আদর্শের কারণে শ্রেষ্ঠ মানব। আতলে বুঝতেই পাড়ছেন কেন শ্রেষ্ঠ। আরো অনেক ঘটনা আছে। যা বললে শেষ হবে না।
সম্পর্কিত প্রশ্নসমূহ

Loading...

জনপ্রিয় বিভাগসমূহ

Loading...