কোমর ব্যথায় কি করনীয়? আমার মায়ের কোমরে ব্যথা। বয়স ৪০। এখন কি করনীয়?
3 টি উত্তর
কোমড়ের ব্যথা কিছু কারণ বসত হয়ে থাকে যার মধ্যকার হলো  এলআইডি ইহা শক্তিশালী একটি কারণ। এটি সাধারণত ২৫ থেকে ৪০ বছরের মানুষের ক্ষেত্রে বেশি হয়। মানুষের হাড়ের মধ্যে ফাঁকা জায়গা থাকে। এটি পূরণ থাকে তালের শাঁসের মতো ডিস্ক বা চাকতি দিয়ে। এই ডিস্ক যদি কোনো কারণে বের হয়ে যায়, তখন স্নায়ুমূলের ওপরে চাপ ফেলে। এর ফলে কোমরে ব্যথা হতে পারে। 
  1. সাধারণত  কোমরে অল্প ব্যথা থাকলেও ধীরে ধীরে ব্যথা বাড়তে থাকে। অনেক সময় হয়তো  হাঁটতেই সমস্যা হতে পারে
  2. ব্যথা কখনও কখনও কোমর থেকে পায়ে ছড়িয়ে পড়ে।  সেক্ষেত্রে পা ঝিনঝিন ধরে থাকে।
  3. সকালবেলা ঘুম থেকে উঠে পা ফেলতে সমস্যা হতে পারে।
  4. পা অবশ ও ভারী হয়ে যায়। পায়ের শক্তি কমে যাওয়া।
  5. মাংসপেশি মাঝেমধ্যে সংকুচিত হয়ে যায়।
হালকা ব্যথা হলে ওষুধ এবং পূর্ণ বিশ্রাম নিতে  হবে । অতিরিক্ত ব্যথা বা অসহনীয় হলে  চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী হাসপাতালে ভর্তি থেকে ফিজিওথেরাপি নিতে হয়। এ ক্ষেত্রে তিন-চার সপ্তাহ পর্যন্ত হাসপাতালে ভর্তি রাখা হতে পারে। 
আপাতত কিছু নিয়ম মেনে চলতে বলবেন তা হলো 
>নিচ থেকে বা মাটি থেকে কিছু তুলতে হলে না ঝুঁকে হাঁটু ভাঁজ করে বসুন ও তারপর তুলুন।
>ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখুন। স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস গড়ে তুলুন।
> ৩০ মিনিটের বেশি একনাগাড়ে দাঁড়িয়ে বা বসে থাকা যাবে   না। হাঁটু না ভেঙে সামনের দিকে ঝুঁকবেন না। দীর্ঘ সময় হাঁটতে হলে উঁচু হিল পরবেন না। অনেকক্ষণ একনাগাড়ে দাঁড়িয়ে থাকতে হলে কিছুক্ষণ পর পর শরীরের ভর এক পা থেকে অন্য পায়ে নিন। একটু বসে বিশ্রাম নিতে বলবেন।
> নিয়মিত কায়িক শ্রম করুন বা ব্যায়াম করতে বলবেন এবং নিয়মিত হাঁটতে বলবেন ।
>চেয়ার টেবিল থেকে বেশি দূরে থাকবে না। সামনে ঝুঁকে কাজ করবেন না। কোমরের পেছনে সাপোর্ট দিন। এমনভাবে বসুন, যেন হাঁটু ও ঊরু মাটির সমান্তরালে থাকে।
  বিস্তারিত তথ্যের জন্য এখানে ও এখান  থেকে জেনে নিতে পারেন
ধন্যবাদ ।
কোন ভারি জিনিস তোলা যাবেনা বেশি ঝুকে থেকে কাজ করা যাবেনা বেশিক্ষণ দাড়িয়ে থাকা যাবেনা ব্যথার স্হানে গরম পানির শেক দিতে হবে বেশি করে পানি পান করতে হবে ব্যয়াম করতে হবে নিয়মিত 
আপনি এক সাপ্তাহ আকন্দ পাতা আগুনে হালকা গরম করে কমরে ছেকে দিন এভাবে কিছু করলে ব্যাথা শেরে যাবে যদি তাতেও উপোকার না হয় তাহলে ডাক্তারের চিকিৎসা নিন।