২০২০ সাল পর্যন্ত বিয়ের আসরে বসতে চাই না।?

২০২০ সাল পর্যন্ত বিয়ের আসরে বসতে চাই না।?

আমার বর্তমান বয়স ১৮+. তবে এখন ও ১৯ হয় নাই। আমি জানি এই সময় টাই মেয়ে দের বিয়ের জন্য অনেক টাই চাপের মুখে পড়তে হয়। এই সময় টাতেই বাবা,মা চাই মেয়ের বিয়ে দিয়ে দিতে। কিন্ত এখন আমার বিয়ে করার কোন ইচ্ছা নাই। আমার জানা মতে আবার বাবা,মায়ের ও নাই। কিন্ত পাড়াপড়শি আর গ্রামের বাসার লোক তো বাবা,মায়ের মাথা চিবিয়ে খাচ্ছে। মেয়ের বিয়ে দাও মেয়ের বিয়ে দাও বলে চিল্লাচিল্লি শুরু করেছে। যদিও বাবা,মা রাজী নন। অন্য দিকে ভাইয়া( দুলাভাই) কেউ অনেকেও ধরেছে বিয়ে দেওয়ার জন্য। 


আমার নিজের একটা স্বপ্ন আছে। আমি চাই সে স্বপ্ন টা পূরণ করে তাঁর পর অন্য কথা ভাবতে।


কোন উপায় অবলম্বন করে বিয়ের ব্যাপার টা নিয়ে আলোচনা করা বন্ধ করব।

বিভাগ: 

3 টি উত্তর

আপনি এখন যে সমস্যাটায় পড়েছেন তা আমাদের দেশের ১০০ ভাগের ৯০ ভাগ মেয়েদের ক্ষেত্রে হয়। আপনি যেহেতু বলছেন আপনার মা-বাবা বিয়ে দিতে রাজি নন এবং আপনার একটা স্বপ্ন আছে সেক্ষেত্রে আপনি সরাসরি আপনার মা-বাবার সাথে বসে কথা বলতে পারেন। তাছাড়াও আপনার ভাইয়া (দুলাভাই) কেও কথাটা বুঝিয়ে বলেন যে আপনার একটা স্বপ্ন আছে যেটা পূরণ হওয়ার পর আপনি বিয়ে করতে পারবেন। সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে আপনি আপনার পরিবারের সবার সাথে সরাসরি এই ব্যাপারে কথা বলুন। এছাড়াও আরো একটি কথা আপনাকে আপনার পরিবারের সদস্যদের মধ্যে যে সব থেকে বেশি ভালবাসে আপনি তাকে গিয়ে সব কথা খুলে বলুন আশা করি কাজ হবে। ধন্যবাদ.....
যে কোন ধরনের উপায় অবলম্বণ করুন না কেন, মানুষের মুখ বন্ধ করা, আসলে সম্ভব নয়। কিছু মানুষ বিবেকবান হলেও, সব মানুষই যে আপনার মনের ভাব বুঝবে, তা কিন্তু নয়। কারণ_ এখনও কিছু মানুষ আছে যারা মনে করে, মেয়ে মানেই রাধুনী/গৃহিনী ছাড়া আর কিছু নয়। তারা বুঝতে চায় না যে, মেয়েদেরও লাইফ বলে ১টা কথা আছে। তাই তারা সমালোচনা করে। সমালোচকদের পাত্তা না দিয়ে আপনি আপনার গন্তব্যের পথে চলতে থাকুন। ইনশাআল্লাহ আপনি নির্দিষ্ট লক্ষ্যে পৌছাতে পারবেন। তারপরও যদি মনে হয় যে_ সমালোচকদের জ্বালায় আর থাকা যায় না। তাহলে আপনি আপনার মা বাবার পরামর্শক্রমে বাড়ি থেকে অন্য কোথাও গিয়ে পড়ালেখা করতে পারেন। তাতে সমালোচনা একটু হলেও কমবে।
আমার মনে হয় আপনার প্রথমে যে কাজটা করা দরকার।তা হলো বাড়ির গাড়জিয়ান তথা মা বাবা ভাই এবং দুলাভাইকে আপনার মনের কথাগুলো শেয়ার করতে পারেন।আপনি আপনার লেখাপড়া চালিয়ে যান কিজন্য আপনি এখন বিয়ে করতে আগ্রহি নন এবং আপনার ভবিষ্যত পরিকল্পনাগুলো পরিবারের সাথে শেয়ার করতে পারেন।এর পাশাপাশি আপনার ভাইও দুলাভাই কে বুঝান যে গ্রামের কথায় কান না দিতে।

সাম্প্রতিক প্রশ্নসমূহ