ধান, চাউল আর ভাতের মধ‍্যে পার্থক‍্য কী?

ধান, চাউল আর ভাতের মধ‍্যে পার্থক‍্য কী?
বিভাগ: 
Share

3 টি উত্তর

ধান হলোঃ এমন মাঝারি আকৃতির তৃণজাতীয় উদ্ভিদ বা তার সোনালি খোসায় আবৃত ছোট ও সরু বীজবিশেষ। চাউল হলোঃ ধানের খোসা ছাড়িয়ে আহত শস্য বা রোদে শুকানো ধান থেকে প্রস্তুতকৃত দ্রব্যবিশেষ।  আর ভাত হলোঃ ফুটন্ত জলে চাল সিদ্ধ করে প্রস্তুতকৃত খাবারবিশেষ।
ধান, চাউল ও ভাতেএ মধ্যে পার্থক্য নিচে দেওয়া হলো
    ধান : ধান হলো মাঝারি আকারের একধরনের তৃণজাতীয় শস্য উদ্ভিদ। ধান সাধারণত একবর্ষজীবি উদ্ভিদ, কোন কোন অঞ্চলে বিশেষ করে নাতিশীতোষ্ণ অঞ্চলে ধান দ্বি-বর্ষজীবি উদ্ভিদ হিসেবে চাষ করা হয়। ধান গাছ সাধারণত ১-১.৮ মিটার (৩.৩-৫.৯ ফুট) পর্যন্ত লম্বা হয়ে থাকে। এর পাতা সরু, লম্বা আকৃতির হয়। পাতা ৫০-১০০ সে.মি. (২০-৩৯ ইঞ্চি) পর্যন্ত লম্বা ও ২-২.৫ সে.মি. (০.৭৯-০.৯৮ ইঞ্চি) প্রশস্ত হয়ে থাকে।
    চাউল : চাল বা চাউল হলো ধানের শস্যল অংশ। ধান থেকে খোসা ছাড়িয়ে যে অংশ পাওয়া যায় তাকে চাল বলে। ধান থেকে চাল উৎপাদন করা হয়। জলে চাল ফুটিয়ে ভাত রান্না করা হয়।
    ভাত : ভাত হল চাল থেকে তৈরি খাবার। ভাত বাংলাদেশের ও ভারতের অধিকাংশ মানুষের প্রধান খাদ্য। এটি চাল কে সিদ্ধ করে তৈরি করা হয়। ভাত প্রধানত সাদা রং এর হয়। তবে চাল এর জাত এর উপর ভিত্তি করে হালকা সোনালী রঙ, বাদামী রং এর হতে পারে।
0 0 ধান, চাউল ও ভাতেএ মধ্যে পার্থক্য নিচে দেওয়া হলো ধান : ধান হলো মাঝারি আকারের একধরনের তৃণজাতীয় শস্য উদ্ভিদ। ধান সাধারণত একবর্ষজীবি উদ্ভিদ, কোন কোন অঞ্চলে বিশেষ করে নাতিশীতোষ্ণ অঞ্চলে ধান দ্বি-বর্ষজীবি উদ্ভিদ হিসেবে চাষ করা হয়। ধান গাছ সাধারণত ১-১.৮ মিটার (৩.৩-৫.৯ ফুট) পর্যন্ত লম্বা হয়ে থাকে। এর পাতা সরু, লম্বা আকৃতির হয়। পাতা ৫০-১০০ সে.মি. (২০-৩৯ ইঞ্চি) পর্যন্ত লম্বা ও ২-২.৫ সে.মি. (০.৭৯-০.৯৮ ইঞ্চি) প্রশস্ত হয়ে থাকে। চাউল : চাল বা চাউল হলো ধানের শস্যল অংশ। ধান থেকে খোসা ছাড়িয়ে যে অংশ পাওয়া যায় তাকে চাল বলে। ধান থেকে চাল উৎপাদন করা হয়। জলে চাল ফুটিয়ে ভাত রান্না করা হয়। ভাত : ভাত হল চাল থেকে তৈরি খাবার। ভাত বাংলাদেশের ও ভারতের অধিকাংশ মানুষের প্রধান খাদ্য। এটি চাল কে সিদ্ধ করে তৈরি করা হয়। ভাত প্রধানত সাদা রং এর হয়। তবে চাল এর জাত এর উপর ভিত্তি করে হালকা সোনালী রঙ, বাদামী রং এর হতে পারে আশা করি আপনার উত্তর পেয়েছেন, ধন্যবাদ

সাম্প্রতিক প্রশ্নসমূহ