এ বিষয়ে ইসলামিক, বৈজ্ঞানিক, গবেষণালব্ধ বা গ্রহণযোগ‍্য ব‍্যাখ‍্যা কী?

1 Answer

 (15167 পয়েন্ট) 

উত্তরের সময় 

এগুলো হলো কুসংস্কার টাইপের আর ইসলাম ধর্ম ও বিজ্ঞানের কাছে কুসংস্কারের কোনো স্থান নেই। বোকা আর অন্ধ বিশ্বাসী ও কুসংস্কারাবিষ্ট ছাড়া কারো বিশ্বাস করার কথা নয় এসব। উল্লিখিত কিছুই বিধিবিধান অনুযায়ী নিষেধ নেই।  সপ্তাহের সব সময়ই আল্লাহ সৃষ্টি করেছেন তাই বৈধ ভাবে বিশেষ কিছু নির্দেশনা ছাড়া বাকী সব সময়ই সহবাস করা যাবে। চারটি ক্ষেত্রে বৈবাহিক সঙ্গমের ব্যাপারে সুস্পষ্টভাবে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। এগুলো হলঃ পায়ুমৈথুন রজঃস্রাবকালীন সময় সন্তান জন্মের পর প্রথম চল্লিশদিন, রমজান মাসে রোজা রাখা অবস্থায় এবং হজ্জ ও ওমরাহ পালনের সময়। হজ্জ বা ওমরা চলাকালীন সময়ে বিবাহ হলে তা সক্রিয় বলে গণ্য হবে না। মুসলিম পুরুষদের জন্য মূর্তিপূজারী নারীর সঙ্গে বিবাহ (ও সঙ্গম) নিষিদ্ধ। একইভাবে, পিতার স্ত্রীগণ, মাতা, কন্যা, বোন, পিতার বোন, মাতার বোন, ভাইয়ের কন্যা, বোনের কন্যা, দুধ-মাতা, দুধ-বোন, শাশুড়ি, পূর্বে বৈবাহিক বা বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক ছিল এমন নারীর কন্যা, পালক পুত্রের মাতা, এবং একই পরিবারের দুই বোন ও নিজ ক্রয়কৃত দাসী ব্যতীত সকল বিবাহিত নারী। 
সম্পর্কিত প্রশ্নসমূহ

Loading...

জনপ্রিয় বিভাগসমূহ

Loading...