সূর্যের আলো ও বৈদ্যুতিক লাইটের আলোর মধ্যে পার্থক্য কোথায়?
 (142 পয়েন্ট)

জিজ্ঞাসার সময়

সূর্যের আলোয় এমন কি আছে যা বৈদ্যুতিক লাইটের আলোয় নেই?

5 Answers

 (730 পয়েন্ট) 

উত্তরের সময় 

সাধারন অর্থ সূর্যের আলো প্রকৃতিক যা আল্লাহ্ তায়ালা প্রদত্ত আর বৈদ্যুতিক আলো কৃতিম যা মানুষ তৈরি করছে ।
 (944 পয়েন্ট) 

উত্তরের সময় 

সূর্যের আলোতে উদ্ভিদ খাদ্য তৈরি করতে পারে, কিন্তু বাল্বের আলোতে উদ্ভিদ খাদ্য তৈরি করতে পারবেনা।
 (5627 পয়েন্ট) 

উত্তরের সময় 

আপনি এখানে ২টি প্রশ্ন করেছেন। ১ম প্রশ্নের উত্তরঃ- সূর্যের আলো আল্লাহ প্রদত্ত প্রাকৃতিক আলো অপর পক্ষে বৈদ্যুতিক লাইটের আলো মানব সৃষ্ট কৃতিম পদ্ধতির মাধ্যমে পাওয়া আলো। সূর্যের আলো চাইলেই পাওয়া যায়না অপর পক্ষে লাইটের আলো যখন ইচ্ছা তখনঈ পাওয়া যায়। সূর্যের আলো খরচ ছাড়াই উৎপাদিত হয় অপরপক্ষে খরচ ছাড়া লাইটের আলো উৎপাদন হয় না। ২য় প্রশ্নের উত্তরঃ- সূর্যের আলোয় ভিটানিন-ডি আছে যা বৈদ্যুতিক লাইটের আলোয় নেই।
 (5272 পয়েন্ট) 

উত্তরের সময় 

সূর্যের আলো ফিউশন বিক্রিয়ার  মাধ্যমে উৎপন্ন আলো, এর তরঙ্গদৈর্ঘ ক্ষুদ্র হওয়ায় শক্তি বেশি। এটি তাড়িৎ চুম্বকীয় বিকিরন। এবং এই আলোতে ৭টি ভিন্ন তরঙ্গদৈর্ঘ্য বিশিষ্ট আলো আছে, একসাথে সাদা দেখায়।


অপরদিকে বৈদ্যুতিক লাইটের আলো বিদ্যুৎ প্রবাহের ফলে উত্তপ্ত হয়ে সৃষ্টি হয়। এটির বেশিরভাগ অবলোহিত বিকিরন। এই আলোর তরঙ্গদৈর্ঘ বড় তাই তাই শক্তি কম। এই আলোতে মাত্র কয়েকটি ২ বা ৩ টি ভিন্ন তরঙ্গের আলো থাকে, তাই এটি পিওর সাদা নয়(ফ্লুরেসেন্ট আলোর ব্যখ্যা আলাদা)
সূর্যের আলোতে আলোক বর্নালীর ভিজিবল সবগুলো তরঙ্গ আছে কিন্তু বিদ্যুতের আলোতে তা নাই
 (382 পয়েন্ট) 

উত্তরের সময় 

সূর্যে হাইড্রোজেন ও হিলিয়ামের বিক্রিয়ার সময় প্রচুর আলো ও তাপ উৎপন্ন হয়।এর তরঙ্গদৈর্ঘ ক্ষুদ্র হওয়ায় এর শক্তি বেশি।অপরদিকে বৈদ্যুতিক বাল্বের ফিলামেন্ট এ বিদ্যুৎ প্রবাহের মাধ্যমে তাপ ও আলো উৎপন্ন হয়।এই আলোর তরঙ্গদৈর্ঘ বেশি তাই এর শক্তি কম।
সম্পর্কিত প্রশ্নসমূহ
Loading interface...
জনপ্রিয় টপিকসমূহ
Loading interface...