কেউ যদি অজাচার করতে যাই এবং ব্যার্থ হয় পরে ক্ষমা চাই আল্লাহর কাছে এবং মা এর সাথে অজাচার এর কুফল?

কেউ যদি অজাচার করতে যাই এবং ব্যার্থ হয় পরে ক্ষমা চাই আল্লাহর কাছে এবং মা এর সাথে অজাচার এর কুফল?
বিভাগ: 
Share

2 টি উত্তর

আপনি অজাচার বলতে কি বুঝিয়েছেন?
অজাচার শব্দের অর্থ হচ্ছে অতি খারাপ আচরণ বা জঘন‍্য খারাপ কাজ। স্বামী-স্ত্রী ব‍্যতীত অতি নিকট আত্মীয়ের মধ‍্যে যৌনসঙ্গম করাকে অজাচার বা Incest বলে (সূত্রঃ বাংলা ইংরেজি ডিকশনারী)। ইসলামে শুধুমাত্র স্বামী-স্ত্রীর মধ‍্যে যৌনসঙ্গম বৈধ বা জায়েজ। ব‍্যভিচার, অজাচার, পরকীয়া, ধর্ষণ অবৈধ বা নাজায়েজ। স্বামী-স্ত্রী ব‍্যতীত পৃথিবীর যেকোনো পুরুষ বা মহিলার সাথে যিনা করাকে ব‍্যভিচার বা পরকীয়া বলে। অতি নিকট আত্মীয় যেমনঃ মা, বোন, ফুফু, খালা, চাচী, মামী, শ্বাশুড়ি, বাবা, ভাই, ফুফা, খালু, চাচা, মামা বা শ্বশুড়ের সাথে যিনা করাকে অজাচার বা Incest বলে। কারো সাথে জোর করে যৌন সঙ্গম করাকে ধর্ষণ বলে। বর্তমানে পারিবারিক পর্ণ দেখে বা পারিবারিক চটি গল্প পড়ে অনেকেই অজাচারে লিপ্ত বা আগ্রহী হয়ে পড়েছে। পবিত্র কুরআনে আল্লাহ আমাদেরকে অশ্লীলতার ধারে-কাছে যেতে নিষেধ করেছেন এবং নামাজ অশ্লীলতা থেকে বান্দাকে দূরে রাখে। কেউ যদি অজাচার করতে গিয়ে ব‍্যর্থ হয়ে থাকে, তাহলে তার অবশ্যই আল্লাহর শুকরিয়া আদায় করা উচিত। কারণ, আল্লাহ তাকে জঘন‍্য হারাম কাজ থেকে বিরত রেখেছেন। কেউ যদি অজাচার করতে গিয়ে ফিরে আসে এবং তওবা করে আল্লাহর কাছে ক্ষমা চায়, তাহলে আল্লাহ তাকে ক্ষমা করে দিবেন। কেউ যদি অজাচার করে ফেলে এবং পরবর্তীতে ভুল বুঝতে পেরে আল্লাহর কাছে ক্ষমা চায় এবং আল্লাহর পথে সর্বদা নিজেকে নিয়োজিত রাখে এবং অজাচারের বিষয়টি কারো কাছে প্রকাশ না করে, তাহলে আল্লাহ তাকে ক্ষমা করে দিতে পারেন, এটা একান্তই আল্লাহর ইচ্ছা। কেউ যদি অজাচার করে ফেলে এবং তা সমাজের কাছে প্রকাশ পেয়ে যায়, তাহলে জনসম্মুখে তাদের উভয়কে পাথর মেরে হত‍্যা করতে হবে (ইসলামী আইন মোতাবেক)। আশা করি, আপনি আপনার কাঙ্ক্ষিত উত্তর পেয়ে গেছেন।

সাম্প্রতিক প্রশ্নসমূহ