আত্মহত‍্যা কি কখনো কোনো সমস‍্যার সমাধান করতে পেরেছে? যদি করতে না পারে, তাহলে মানুষ আত্মহত‍্যা করে কেনো?

আত্মহত‍্যা কি কখনো কোনো সমস‍্যার সমাধান করতে পেরেছে? যদি করতে না পারে, তাহলে মানুষ আত্মহত‍্যা করে কেনো?আত্মহত‍্যা কি কখনো কোনো সমস‍্যার সমাধান করতে পেরেছে? যদি করতে না পারে, তাহলে মানুষ আত্মহত‍্যা করে কেনো? কিভাবে আত্মহত‍্যা থেকে সকলে বাঁচতে পারে?
বিভাগ: 
Share

4 টি উত্তর

মাত্র‍ ১% সমস্যা সমাধান করতে পেরেছে। আর বাকি গুলো হয় রাগ, প্রেমে ব্যর্থতা, অবৈধ সর্ম্পক বিছিন্ন হওয়ায় এরকম ইত্যাদি কারণে মানুষ আত্মহত্যা করে।
আত্মহত্যা কখনোই মানুষের জন্য সমস্যার সমাধান না।  এই কাজটা শয়তান আমাদের কে ধোকা দিয়ে করায় যেটা মহা পাপ। মানুষ যখন নিজ থেকে কোন সিদ্ধান্ত নিতে না পারে তখন তার ভিতর একটা মানসিক চাপ কাজ করে, যেটা তাকে আত্মহত্যা করতে বাধ্য করে। বর্তমানে আত্মহত্যার জন্য দায়ী আধুনিকতা ও নোংরা কালচার। 
আত্নহত্যা করে তারা যারা সমস্যা সমাধানে ভয় পায়।বিভিন্ন চাপে পড়ে যখন মানসিক অবস্থার চরম অবনতি ঘটে তখন মানুষ আত্নহত্যার সিদ্ধান্ত নেয়।আত্নহত্যা আসলে কোন সমস্যার সমাধান নয়।তারপরও মানুষ এই পথ বেছে নেয়।আত্নহত্যা থেকে সকলকে বাঁচতে হলে প্রথমেই দরকার সমাজের পরিবর্তন,সমাজের মানুষদের মানসিকতার পরিবর্তন।আমরা সমাজবাসীরা হেরে যাওয়া মানুষদেরকে বোঝা মনে করি।তাদের পরবর্তিতে সুযোগ দেবার বদলে তাদের বেঁচে থাকাই মুশকিল করে তুলি।যার কারণে মানুষ আত্নহত্যা করতে বাধ্য হয়।এজন্য সর্বপ্রথম আমাদের নিজেদেরকেই বদলাতে হবে।তবেই শুধু এই সমস্যা নয়,সমাজের সব সমস্যাই দূর হবে।
কখনোই আত্মহত্যা কোন কিছুর সমাধান হতে পারে না। মানুষ আত্মহত্যা করে আবেদ এর বসে বা জেদ এর বসে। যেমনঃ আপনার একটি মেয়ে কে পছন্দ হয়েছে কিন্ত আপনার পরিবার এর তাকে পছন্দ হয় নাই।আপনি মেয়ে টিকে বিয়ে করতে চান।কিন্ত আপনার পরিবার থেকে তার সাথে আপনার বিয়ে কখনোই দিবে না বলে তাঁ্রা ঠিক করে।তো তখন আপনি ঠিক করেন বা জেদ করেন যে ঃ মেয়ে টির সাথে বিয়ে না দিলে আপনি আত্মহত্যা করবেন। এবং সে টা করেও ফেলে। দেখতে গেলে এই খানে কারো কোন ক্ষতি হয় না।ক্ষতি টা আপনার হয়।আপনি সবাইকে ছেড়ে চলে যান। আত্মহত্যা মূলত জেদ এর বসে করা হয়।

সাম্প্রতিক প্রশ্নসমূহ