অহংকার করার কারণে যদি ইবলিশ ফেরেশতাদের সর্দার থেকে শয়তানে পরিণত হয়ে থাকে, তাহলে মানুষের জন‍্য অহংকার করার কুফল বা শাস্তি কতটা ভয়ংকর?

অহংকার করার কারণে যদি ইবলিশ ফেরেশতাদের সর্দার থেকে শয়তানে পরিণত হয়ে থাকে, তাহলে মানুষের জন‍্য অহংকার করার কুফল বা শাস্তি কতটা ভয়ংকর?
বিভাগ: 

2 টি উত্তর

জি হ্যা ।এই জন্য আমাদের কখনই অহংকার করা উচিৎ না । অহংকার হচ্ছে আল্লাহর চাদর ।যে ব্যক্তি অহংকার করে সে যেন আল্লাহ্‌র চাদর নিয়ে টানাটানি করে ।(মিশকাতুল মাসাবীহ)
মুহাম্মাদ ইবনু বাশশার (রহঃ) আবদুল্লাহ ইবনু মাসঊদ (রাঃ) থেকে বর্ননা করেন যে, রাসুল (সাঃ) বলেছেনঃ যার অন্তরে অণু পরিমাণ অহংকার থাকবে সে জান্নাতে প্রবেশ করবে না। [সহীহ মুসলিম, হাদিস নম্বরঃ ১৬৯] অপর হাদিসে বর্ণিতঃ- আহমাদ ইবনু ইউসূফ আযদী (রহঃ) আবূ সাঈদ খুদরী ও আবূ হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তারা বলেন, রাসুল (সাঃ) বলেছেনঃ ইজ্জত সম্মান তার ভূষণ, এবং অহংকার তার চাঁদর। যে ব্যক্তি এই ব্যাপারে আমার ''অর্থাৎ আল্লাহর'' সঙ্গে ঝগড়ায় অবতীর্ণ হবে আমি তাকে অবশ্যই শাস্তি দিব। [সহীহ মুসলিম, হাদিস নম্বরঃ ৬৪৪১] অহংকার করা হারাম এর শেষ পরিণতি জাহান্নাম। জাহান্নামের শাস্তি যে কতটা ভয়ংকর তা বলে শেষ করা যাবেনা।

সাম্প্রতিক প্রশ্নসমূহ