Share

5 টি উত্তর

অভিমান হলো আপনার প্রিয়ে কেউ যেমন আপনার সাথে মজা করছে,কিন্তু আপনি তার ক্ষতি না চেয়ে কথা বলেন না কিংবা দূরে চলে যাওয়া।আর রাগ হলো তার বিপরীত।বা তার ক্ষতি চাওয়া।আপনার সাথে মাজা করছে।কিন্তু আপনি তাকে ক্ষতি চেয় যেমন মেরে ফেলতে কিংবা অন্য কিছু করে ফেলবেন।
আমি সহজভাবে বুঝিয়ে দিচ্ছি: আপনার হাতে একটি মোবাইল রয়েছে। আপনি সেটিকে সারক্ষন ব্যাবহার করেন। যার কারনে আপনার বাবা আপনাকে কোন এক বিকেলে খুব গালাগালি করলো। এতে আপনি দুটো প্রতিক্রিয়া দেখালেন। ১ -- আপনি আপনার বাবার গালাগাল সহ্য করতে না পেরে মোবাইলটাকে এক আছাড় মারলেন। যার কারনে মোবাইলটা নষ্ট হয়ে গেলো। এটা আর ব্যাবহার যোগ্য নয়। ২ -- আপনি আপনার বাবার গালাগাল শুনে আপনার হতের মোবাইলটি আপনার বাবার হাতে দিয়ে দিলেন এবং বললেন যে আজ থেকে আমি আর কোন মোবাইল ব্যাবহার করবো না। এখানে প্রথমটি হলো রাগ দ্বিতীয়টি হলো অভিমান। রাগ কোন বস্তুকে নষ্ট করে। আর অভিমান কোন বস্তু বা ব্যাক্তি ইত্যাদি ইত্যাদি থেকে সময়ের জন্য দুরে রাখে। পরে আবার কাছে টেনে আনে বিভিন্ন প্রয়োজনে।
অনেক পার্থক্য রাগ সহজে পড়ে না এবং অভিমানে একটা লুকানো ভালবাসা থাকে|রাগ মানুষকে পশু বানায়|অভিমান ভালোবাসা বাড়ায়|
রাগ ও অভিমানের মধ্যে পার্থক্য হচ্ছে - রাগ যেকোনো মানুষের সাথেই করা যায় কিন্তু অভিমান সুধু কাছের মানুষের সাথেই করা যায়। অভিমানের মধ্যে ভালোবাসা থাকে কিন্তু রাগের মধ্যে কোনো ভালোবাসা থাকে না।
আপনার প্রশ্নের উত্তরে কয়েকজন রাগ এবং অভিমানের ব্যপারটা বলেছে । এখন আমি আরেকটা বিষয় আপনাকে জানিয়ে রাখি । অনেক সময় আমরা অভিমানকেই রাগ বলি । যেমন, ৫ বছরের একটা বাচ্চাকে খেলনা কিনে না দেওয়ার জন্য রাগ করে ভাত খাচ্ছে না । এখানে রাগ মানে অভিমান । সহজ বাংলায় বা আঞ্চলিক ভাষায় গোস্বা । আবার ১৬ বছরের একটি কিশোর টাকা না দেওয়ার জন্য জিনিসপত্র ভাংচুড় করছে । এটা আসলেই রাগ । আশা করি বুঝেছেন ।

সাম্প্রতিক প্রশ্নসমূহ