মুসলমানরা হাঁচির পর আলহামদুলিল্লাহ্ পড়ে কেনো? কেনো তারা হাঁচির পর আল্লাহর প্রশংসা আদায় করে?

মুসলমানরা হাঁচির পর আলহামদুলিল্লাহ্ পড়ে কেনো? কেনো তারা হাঁচির পর আল্লাহর প্রশংসা আদায় করে?
বিভাগ: 
Share

6 টি উত্তর

হাচির মাধ্যমে আপনার নাক থেকে ধূলো-ময়লা- জীবানু বেরিয়ে যায়। হাঁচির সময়ে আপনি দমবন্ধ হয়ে মারাও যেতে পারতেন, কিন্তু আল্লাহ্ আপনাকে বাঁচিয়ে রেখেছেন! তার শোকর আদায় করার জন্য আমরা আলহামদুলিল্লাহ্ বলি।
হাঁচির দেওয়ার ফলে শরীর থেকে অনেক রোগজীবানু বের হয়ে যায় তাই মুসুলমানরা হাঁচি দেওয়ার পর আলহামদুল্লিহ পড়ে আল্লাহর প্রশংসা করে।
বিজ্ঞানীদের মতে হাচি দিলে কিছু মিলি সেকেন্ড এর জন্য হৃদপিন্ডের স্পন্দন বন্ধ হয়ে যায়।যদি সেটি আবার পুনরায় চালু না হয় তাহলে আমরা মারা যাব।তাই হাচি দিলে আলহামদুলিল্লাহ্‌ বললে আল্লাহ আমাদের সুরক্ষিত রাখেন।এবং হাচি দেওয়ার পর বেচে থাকার জন্য শুকরিয়া আদায় করে।আলহামদুলিল্লাহ্‌ বলে।

আপনি এই উত্তরটাদেখুন

আমরা হাঁচি দেয়ার পর আলহামদু লিল্লাহ বলি। হাঁচি দেয়ার সময় দৈহিক যে একটি ভালোলাগা সৃষ্টি হয় সেটা কি আল্লাহর নিয়ামত নয় ? হাঁচি দেবার সময় আমাদের চেহারার যে একটি বিকৃত অবস্থা সৃষ্টি হয় সেটা যদি ওভাবেই থেকে যেতো তবে কি অবস্থা হতো? আল্লাহ আমাদের চেহারাকে সে বিকৃত অবস্থা থেকে আবার পূর্বের অবস্থায় এনে দিচ্ছেন এটা কি নিয়ামত নয় ? অবশ্যই নেয়ামত। এ নিয়ামতের কৃতজ্ঞতা স্বরূপই আমরা আলহামদু লিল্লাহ পাঠ করি।

বৈজ্ঞানিক দৃষ্টিকোণ থেকে প্রমাণিত, হাঁচির সময় আমাদের হৃদপিন্ড কিছুক্ষণের জন্য আটকে (জ্যাম হয়ে থাকা) যায়। যেমনটা মৃত অবস্থায় মানুষের হৃদপিন্ড থাকে। মৃত দের হৃদপিন্ড আর পুনরায় সচল হয় না। কিন্তু আমাদের হাঁচির পরে আল্লাহ তায়ালা পুনরায় এটাকে সচল করে দেন। 

এজন্যই নতুন করে জীবন ফিরে পাওয়ায় আল্লাহ তায়ালার প্রতি শুকুর আদায় (আলহামদুলিল্লাহ) করতে বলা হয়েছে।

সাম্প্রতিক প্রশ্নসমূহ