আমি এক মসজিদে মোয়াজ্জিনের চাকুরী করি,ইমামের ক্বেরাত পড়া ভূল হওয়ার কারনে আমি সব সময় নামাজ দোহরায়া পড়ি,এই খানে কি আমার চাকুরী করা ঠিক হবে ?

আমি এক মসজিদে মোয়াজ্জিনের চাকুরী করি,ইমামের ক্বেরাত পড়া ভূল হওয়ার কারনে আমি সব সময় নামাজ দোহরায়া পড়ি,এই খানে কি আমার চাকুরী করা ঠিক হবে ?
বিভাগ: 
Share

3 টি উত্তর

দোহরায়া টা কি এটা বুঝলাম না এটা বলেন,তারপর উত্তর দিচ্ছি।
দেখুন ভাইয়া,নামাজ ভঙ্গের কতগুলি কারণ আছে।এরমধ্যে প্রথম কারণটাই হলো নামাজে ক্বেরাত অসুদ্ধ পড়া।যেহেতু ঈমাম সাহেব নামাজে ক্বেরাত অসুদ্ধ পড়েন তাই নামাজ হবে না।এখানে চাকরি করলে আপনার নামাজ হবে না যদি আপনি ঈমামের পিছনে নামাজ পড়েন।...তাই আপত দৃষ্টিতে আপনার এখানে চাকরি না করাই ভালো হবে।........কিন্তু আপনি চাকরি ছেরে চলে গেলে অন্য যারা ঈমামের পাছনে নামাজ পড়ে তাদের নামাজ হবে না।এ কারণে আপনার উচিত এ বিষয়টা ঈমাম সাহেব কে জানিয়ে তার ভুল ধরিয়ে দেয়া।তাহলে সবার নামাজই হবে।আর আপনার চাকরিও ছাড়তে হবে না।আশা করি বুঝতে পেরেছেন।
হ্যা, আপনি নামায দোহরাইয়া পড়েন আর নাই পড়েন,  আপনার চাকরী ঠিক হবে কোনো অসুবিধা নেই। তথ্যসূত্র :- একজন মুফতি সাহেবের ফাতওয়া।

সাম্প্রতিক প্রশ্নসমূহ