অহংকারী! এটা কি আমার দোষ?

অহংকারী! এটা কি আমার দোষ? অনেক এ বলে আমি দেমাগি বা অহংকারী। আমি যে কথা কম বলি তা কিন্ত নয়।কিন্ত চেষ্টা করি কথা কম বলতে। ফেসবুকে কোন অপরিচিত ছেলে মেসেজ দিলে উত্তর করি না তখন সে বলে পার্ট বেড়ে গেল নাকি। বা এতো দেমাগ কেন। কিন্ত দেখুন আমি যদি তার সাথে কথা বলতাম বা মেসেজ এর উত্তর দিতাম তখন কিন্ত সে আমাকে এটা বলতো না। আবার কোন অপরিচিত নাম্বার থেকে কল আসলে প্রথমে সুন্দর ভাবে কথা বলি,,,কিন্ত যখন লিমিট X লরে ফেলে তখন বলি আর কল দিবেন না তখন বলে এতো দেমাগ কেন।!? কিন্ত যদি উনার সাথে কথা বলতাম তাহলে কিন্ত এই কথা বলতো না আসলে এটা কী আমার সমস্যা না তাদের বুঝতে পারি না
বিভাগ: 
Share

5 টি উত্তর

না এটা আপনার কোন সমস্যা নয় 

এটা আপনার দোষ না,বরং তাদরেই দোষটা।আপনি কারোর মন কখনো জয় করতে পারবেন না তাই কারো কাছে কখনো প্রিয় পাত্র হতে পারবেন না।কোন না কোন সমস্যা দেখবেন আছে আপনাকে বলবেই।তাই এসব এরিয়ে চলুন কে কি বললো কেয়ার করবেন না।কখনো প্রয়োজন ছাড়া কথাবার্তা বলবেন না।প্রয়োজন ছাড়া রিপ্লাইও দিবেন না।তারা তাদের মতো বলুক আপনি আপনার মতো চলুন।একসময় বিরক্তি হয়ে তারাই কেটে যাবে আপনার রাস্তা থেকে।

এখানেও পার্ট নেওয়া শুরু করছে।

আপনি আপনার অবস্থান থেকে ঠিকই আছেন। যে যাই বলুক সেদিকে কান না দিয়ে আপনি আপনার মত থাকুন।

অপরিচিত কেউ কল বা ম্যাসেজ দিলে তার সাথে লং টাইম কথা বলতেই হবে তা না। কথা বা চ্যাটিং এর শুরুতেই তার উদ্দেশ্য সম্পর্কে অবগত হোন। তারপর অবস্থা বুঝে ব্যবস্থা নিবেন। 

এতে তো দেমাগের কিছুই নেই। একটা মেয়ের তো অপরিচিত কারো সাথে কথা ভলা উচিৎ নয়। নিরাপত্তার খাতিরে কখনোই উচিৎ নয়। তারপরও আপনি বলেন সেটা অনেক বেশি। তাও যদি কেউ এ বিষয়ে এরকম মন্তব্য করে তাহলে তো সেটা তাদের সমস্যা।

আরেকটা কি আমাদের সমাজে মেয়েদের খুঁত ধরার জন্য সবাই বসে থাকে। সামান্য বিষয় নিয়ে এমনিই মেয়েদের ছোট করে সবাই আনন্দ পায়।

আপনি এ জাতীয় কোনো কথা মনে নিবেন না। সমলোচকরা সমলোচনার বিষয় না পেলে সব কিছু নিয়েই সমলোচনা করে। 

আপনি বরং কখনো অপরিচিত নম্বর থেকে কল আসলে পরিচয় জেনে নিবেন, অপরিচিত হলে সোজাসুজি রং নম্বর বলে রেখে দিবেন। ব্যস। আর এফবিতে অপরিচিত কারো উত্তর না দেওয়াই ঠিক। তখন সে যা ইচ্ছা বলুক। আপনি শুনবেন না।

সাম্প্রতিক প্রশ্নসমূহ