মাহরম না হলে একজন পুরুষ একজন মহিলার সাথে কথা বলতে পারবে কিনা ?

মাহরম না হলে একজন পুরুষ একজন মহিলার সাথে কথা বলতে পারবে কিনা ?
বিভাগ: 
Share

1 টি উত্তর

মাহরাম না হলে একজন পুরুষের একজন মহিলার সাথে কথা বলা শরীয়তে জায়েজ নেই । এর কোনো অনুমতি নেই । তবে বিশেষ কোনো প্রয়োজন দেখা দিলে কথা বলা যাবে । কিন্তু সেক্ষেত্রে শরীয়ত নির্দিষ্ট সীমা নির্ধারন করে দিয়েছে । তা হচ্ছে - ১) যদি নারীদের কাছ থেকে পুরুষের কোনো কিছু নেয়ার প্রয়োজন দেখা দেয় , তাহলে সরাসরি সামনে আসবেনা বরং পর্দার অন্তরাল থেকে চাবে । কোরআন শরীফে ইরশাদ হয়েছে - وَإِذَا سَأَلْتُمُوهُنَّ مَتَاعًا فَاسْأَلُوهُنَّ مِن وَرَاء حِجَابٍ তোমরা তাঁর পত্নীগণের কাছে কিছু চাইলে পর্দার আড়াল থেকে চাইবে। (সুরাহ আহযাব : ৫৩ ) উপরের হুকুমটি বিশেষভাবে নবী পত্নীগন কে লক্ষ্য করে বলা হলেও তা সমগ্র উম্মতের জন্য প্রযোজ্য । ( মাআরেফুল কোরআন ৭ম খন্ড ) ২ ) এবং এছাড়াও যদি গায়রে মাহরাম নারীর সাথে কোনো পুরুষের কথা বলার প্রয়োজনীয়তা দেখা দেয়, তবে বাক্যালাপের সময় নারীগন কৃত্রিমভাবে কন্ঠের স্বভাবসুলভ কোমলতা এবং লাজুকতা পরিহার করবে । অর্থ্যাৎ এমন কোমলতা যা শ্রোতার মনে অনাকাংখিত কামনা/আগ্রহ সৃষ্টি করে । কুরআন শরীফে আল্লাহ তাআলা ইরশাদ করেন : يَا نِسَاء النَّبِيِّ لَسْتُنَّ كَأَحَدٍ مِّنَ النِّسَاء إِنِ اتَّقَيْتُنَّ فَلَا تَخْضَعْنَ بِالْقَوْلِ فَيَطْمَعَ الَّذِي فِي قَلْبِهِ مَرَضٌ وَقُلْنَ قَوْلًا مَّعْرُوفًا হে নবী পত্নীগণ! তোমরা অন্য নারীদের মত নও; যদি তোমরা আল্লাহকে ভয় কর, তবে পরপুরুষের সাথে কোমল ও আকর্ষনীয় ভঙ্গিতে কথা বলো না, ফলে সেই ব্যক্তি কুবাসনা করে, যার অন্তরে ব্যাধি রয়েছে তোমরা সঙ্গত কথাবার্তা বলবে। (সুরাহ আহযাব : ৩২ ) সূত্র: ১। তাফসীরে মাজহারী ( ৬ষ্ঠ খন্ড/৩৩৭ পাতা) ২। তাফসীরে ইবনে কাসীর ( ৩য় খন্ড/৮৯১ পাতা) ৩। তাফসীরে মাআরিফুল কোরআন ( ৭ম খন্ড/১০ পাতা) ৪। আহকামুল কোরআন ( ৩য় খন্ড/৩১৬ পাতা) ৫। আহসানুল ফতোয়া ( ৮ম খন্ড/৪০ পাতা) ৬। ফতোয়ায়ে শামী ( ১ম খন্ড/২৭২ পাতা ) উত্তর দিয়েছেন: মুফতী রফিকুল ইসলাম হাদিস এবং তফসীর বিভাগের প্রধান ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার বসুন্ধরা , ঢাকা - ১২১২ বাংলাদেশ ।

সাম্প্রতিক প্রশ্নসমূহ