মেধাশক্তি বৃদ্ধি ও দীর্ঘস্থায়ী জ্বর সারাতে রসুন বড়ই উপকারী?
 (26734 পয়েন্ট)

জিজ্ঞাসার সময়

1 Answer

 (26734 পয়েন্ট) 

উত্তরের সময় 

#9 রসুন মানব দেহে বহুবিধ উপকার করে থাকে। মেধাশক্তি বৃদ্ধি ও দীর্ঘস্থায়ী জ্বর সারাতেও বিশেষ উপকারে আসে। আসুন কিভাবে এই রসুন খেলে উপকার পাওয়া যাবে সে সম্পর্কে জেনে নেই।

রসুন প্রতিদিন এক বা দুই কোয়া চিবিয়ে খেয়ে গরম দুধ খেলে মেধা শক্তি বাড়ে। চুলের ঘনত্ব বাড়ে। এমনকি এই ওষুধটি রাতকানা রোগিদের জন্যও উপকারী। মাস খানেক এই ওষুধ গ্রহণ করলে রাতকানা রোগিদের রাতে দৃষ্টি ক্ষমতা বাড়ে। আমাদের দেশে বাতের রোগির সংখ্যা বেশি। সেই প্রাচীন কাল থেকেই বাতের ব্যাথায় সরষের তেলে রসুন ভেজে সেই তেল মালিশ করা হয়ে থাকে। এতে বাতের যন্ত্রণা বহুগুণ কমে যায়। আধুনিক পরীক্ষা নীরিক্ষাও এই ওষুধটির কার্যকারীতা প্রমাণিত হয়েছে। রসুন শুক্রতারুল্যর ক্ষেত্রে উপকারী। অল্প গরম দুধের সঙ্গে দুই এক কোয়া রসুন বাটা নিয়মিত খেলে শুক্রতারুল্য কেটে যায়। এই পথ্য হাড়ের শক্তি বাড়ে এবং শরীর মজবুত হয়।

রসুন ভেশজ শাস্ত্রে দীর্ঘস্থায়ি জ্বর সারাতে ব্যবহৃত হয়। ৫/৭ দিন জ্বর স্থায়ী হলে রসুনের রস এবং গাওয়া ঘি মিশিয়ে খেতে হয়। এতে দু’চার দিনের মধ্যেই জ্বর সেরে যায়। অনেকেই গন্ধের জন্য রসুন খেতে পারে না। কিন্তু রসুনের কোয়ার উপরের খোসা ছাড়িয়ে টুকরো করে টক দইয়ে এক রাত ভিজিয়ে রাখলে রসুনের গন্ধ থাকেনা। তবে রসুন খাবার সময় মনে রাখতে হবে যে, মাছের সঙ্গে কিংবা কাঁচা দুধের সঙ্গে রসুন খাওয়া ভেশজ শাস্ত্রে নিষিদ্ধ।

সম্পর্কিত প্রশ্নসমূহ

Loading...

জনপ্রিয় টপিকসমূহ

Loading...