টিয়েন্স (Tiens) সম্পর্কে জানতে চাই? আজ আমার এক বন্ধু আমাকে জোর করে টিয়েন্স এর প্রোগ্রমে নিয়ে গেল। সেখানে আমাকে জোর করেই নিজের পকেট থেকে ৫০০ টাকা দিয়ে আমার নামে ফরম পূরণ করালো। এবং আমাকে ২২ তারিখের মধ্যে ২৫০০০ টাকা জমা দিয়ে থ্রী স্টার নামক মেম্বারশিপ গ্রহণ করতে হবে। তারা আমাকে ২৫০০০ টাকার ঔষুধ দেবে। এখানেই আমার কাজ শেষ। এরপর তারা আমাকে প্রতি মাসে মোটা অংকের টাকা সেলারি দেবে। আমি তাদের বিশ্বাস করতে পারছিনা। আপনারা কি কেউ আছেন যারা চীনা কোম্পানি টিয়েন্স এর দ্বারা প্রতারিত হয়েছেন?
2 টি উত্তর

টিয়েন্স একটি এমএলএম কোম্পানি। এমএলএম কোম্পানি সম্বন্ধে এ দেশের কোটি মানুষের তিক্ত অভিজ্ঞতা রয়েছে। এ জাতীয় কোম্পানিগুলোর মূল এজেন্ডা হলো লাখো মানুষকে ক্ষতিগ্রস্থ করে কিছু মানুষের জিরো থেকে হিরো হওয়া। কোনো আইনেই ব্যবসার এ রীতি সিদ্ধ নয়। এ জাতীয় কোম্পানিতে যথেষ্ট প্রতারণার সম্ভাবনা রয়েছে। ওদের প্রতারণার ব্যাপারটি হুট করেই দৃশ্যমান হবে না। ধীরে ধীরে দৃশ্যমান হবে। আপনিই দেখুন, আপনাকে একরকম জোর করেই তাদের ব্যবসায়ে যুক্ত করা হলো। এখান থেকেই তো প্রতারণার একটা ধারণা লাভ করা যায়। এটা স্বাভাবিক লাভজনক ব্যবসা হলে এত টানা হেচড়া কেন ? কেন এত কথার ফুল ঝুরি। 'ডাল মেঁ কুছ কালা' এতেই উপলুব্ধ হয়। তাই ওদের মুখরোচক উপস্থাপনায় বিভ্রান্ত না হয়ে স্বাভাবিক বৈধ ব্যবসায় মনোযোগী হোন। আপনাকে চারটি লিংক দেয়া হলো। লিংকগুলো থেকে টিয়েন্স এর প্রতারণা সম্বন্ধে কিছুটা ধারণা লাভ করতে পারবেন।

১। নবাবগঞ্জে মানুষের জীবন নিয়ে খেলছে তিয়ানশি

https://www.jugantor.com/city/2016/06/29/42454/%E0%A6%A8%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%AC%E0%A6%97%E0%A6%9E%E0%A7%8D%E0%A6%9C%E0%A7%87-%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%A8%E0%A7%81%E0%A6%B7%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%9C%E0%A7%80%E0%A6%AC%E0%A6%A8--%E0%A6%A8%E0%A6%BF%E0%A7%9F%E0%A7%87-%E0%A6%96%E0%A7%87%E0%A6%B2%E0%A6%9B%E0%A7%87-%E0%A6%A4%E0%A6%BF%E0%A7%9F%E0%A6%BE%E0%A6%A8%E0%A6%B6%E0%A6%BF

২।

প্রতারণার অপর নাম তিয়ানশি

http://hotnews24bd.com/2013/07/25/13596/

৩।

ডিগ্রি ছাড়াই চিকিৎসক, ফি ৫০০ টাকা!

http://archive.prothom-alo.com/print/news/63232

৪।

ওষুধও 'চীনা পণ্য'
http://www.kalerkantho.com/print-edition/culture/2012/10/05/290099


ভাই,,আপনি আগে আপনার বন্ধুকে একটা ধন্যবাদ দিন,,,কারণ বেকারত্বের অভিশাপ থেকে আপনাকে বাচাতে আপনাকে সেমিনারে নিয়ে গেছে,,এবং তার পকেট থেকে আপনার ফরম করেছে,,আপনি খুবই ভাগ্যবান। আবার তাকে এটাও বলিয়েন যে কেন শুধু তিয়ানশির নাম বদনাম করছো,,যদি সততার সাথে কাজ করতে না পারো তো ছেড়ে দাও,,,এবার আপনার প্রশ্নে আসি,,,২৫০০ না ২৬০৩টাকা মানে ২৭ ডলার যে বছরে যত টাকা হয়,,দ্বিতীয়ত এগুলো ঔষধ না,, স্বাস্ত্যসম্পূর্ণ প্রোডাক্ট।। আপনার যদি খিদে পায় আপনার শরীর দূর্বল লাগে তাই না??ঠিক তেমনি ব্রেইন,,লিভার,,ফুসফুস,,কিডনি,,এদের ও তো খুদা লাগে,,অর্থাৎ এ ওরগানগুলো যদি যথাযথ পুষ্টি না পায়,,তারাও দুর্বল হয়ে যায়,,আচ্ছা,,ঔষধ কি কখনো তাদের পুষ্টি যোগাতে পারে,,তখন ঔষধ তৈরি হয় কেমিক্যাল দিয়ে।।আর তিয়ানশির সব প্রোডাক্ট ওই সকল পুষ্টি সম্পূর্ণ যাদের জন্য ওরগানগুলো দূর্বল হয়।। তারপর আপনাকে মোটাঅংকে টাকা দেয়া,,মানে কোম্পানির নয় ব্যক্তির দোষ।। দুঃখিত তুলনার জন্য,,কিন্তু মসজিদে মুসল্লি ও চোর উভয় যায়,,মুসল্লি নামাজ পড়তে আর চোর জুতা চুরি করতে,,তবে চোর যদি চুরি করে এটা কি মসজিদের দোষ নাকি ইমামের বলুন এবার???   ঠিক তেমনি কিছু দুর্নীতিগ্রস্ত ব্যক্তিরা তিয়ানশির নাম বদনাম করার জন্য এমন কাজ করছে,,কোম্পানি বা চেয়ারম্যানের কি দোষ?? আর যে কোম্পানি ১৯০ টা দেশে সুন্দর করে ব্যবসা করছে,,সেটা বাংলাদেশে এসে দুর্নীতি শুরু করেছে!!! আসলে কোম্পানি নয় কিছু অসৎ মানুষ এসব কাজ করছে,, আর যদি আপনি এমন অসৎ ব্যক্তিদের খোজ পান,,সরাসরি ঢাকা মেইন অফিসে যোগাযোগ করুন,, আর তার আইডি নাম্বার দিন,,তাহলে তার আইডি ব্লক করে দিবে সারাজীবনের জন্য,, সে কখনো তিয়ানশিতে কাজ করতে পারবে না,,আর ভাই যেনতেন ওয়েবসাইটে উত্তর না খোঁজে,,  গুগল,,ক্রোম,,ব্রাওজারে সার্চ করুন,,সঠিক তথ্য পাবেন।।০১৭০৬৯০৭৪৩২ (ইমু)যদি আরো বিশদভাবে জানতে চান,,তবে আমার সাথে কন্টেক করতে পারেন