চোখের পানি আসে কোথায় থেকে?

Asked on

1 Answers

Answered on 

আমাদের চোখের উপরে টিয়ার গ্ল্যান্ড (ল্যাক্রিমাল গ্ল্যান্ড) থাকে যার মধ্যে প্রতিনিয়ত রাসায়নিক বিক্রিয়ার মাধ্যমে কিছু বিশেষ ধরনের তরল পদার্থ এসে জমা হয় আর আমাদের চোখের পানি উত্স মূলত এটাই I আর এই গ্ল্যান্ড গুলোর কাজ আমাদের চোখকে প্রতিনিয়ত ভিজিয়ে রাখা ,আমরা যখন প্রতিবার চোখের পাতা ফেলি তখন কিছু তরল পদার্থ এসে চোখ কে ভিজিয়ে দেয় যার ফলে আমাদের চোখ শুকনো হয়ে যাওয়া থেকে মুক্তি পায় ! একে ব্যাসল টিয়ারস বলে I এখন কোনো কারণে, যদি সেই নিসৃতর পরিমান বেশি হয় তাহলে তাকে কান্না বলে ! এবং এইটা কোনো রিফ্লেক্স অ্যাকশন ( এই যেমন পেয়াজ কাটলে !) এর কারণে হতে পারে আবার কোনটা ইমোশনাল কারণে (মন খারাপ করে বসে থাকলে !) হতে পারে যেইটা ইমোশনাল কারণে হয় মূলত তাকেই কান্না বলে ! এখন আমরা যখন কান্না করি তখন সেই টিয়ার গ্ল্যান্ড এ চাপ করার কারণে নরমাল যেরকম হয় তার থেকে বেশি এবং অবিরাম তরল নিসৃত হতে থাকে ! (সেই সাথে বাড়তি কিছু রাসায়নিক পদার্থ নিসৃত হয় যা আমাদের মানসিক প্রশান্তি দেয় !) এখন, অনেকের মনেই প্রশ্ন আসতে পারে যদি কোনো ভাবে টিয়ার গ্ল্যান্ড এর পানি শেষ হয়ে যায় তখন কি হবে ? চোখের পানি শুকিয়ে যাবে ? আসলে চোখের পানি কখনই শুকিয়ে যায়না (বিশেষ অসুখ ছাড়া ) কিন্তু, উত্পাদনের চেয়ে নিসৃতের পরিমান বেশি হলে তখন এর পরবর্তিতে হয়ত অনেক কম নিসৃত হয় ! এই কারনে আমরা দেখব একজন মানুষ প্রথমে কিছুক্ষণ কান্না করার পর পরবর্তিতে দুঃখ থাকলেও আর ততটা তরল নিসৃত হতে পারছেনা ,আর যাকে সাহিত্যিকেরা হয়ত বলেন "চোখের পানি শুকিয়ে যাওয়া" !
Recent Questions
Loading interface...