7 টি উত্তর
এই প্রশ্নে উত্তর দিয়ে জিতে নিন 1 টি কফি (25 BDT)!
দিয়েছেন

জামানতের মাধ্যমে লোন নেওয়াকে সিসি লোন বলে,,,বিভিন্ন ব্যাংক জামানতের মাধ্যমে লোন দিয়ে থাকে,,,আপনি আপনার যেকোন মূল্যবান বৈধ সম্পত্তি জামানত রাখতে পারেন সেটা হতে পারে আপনার বসতবাড়ি,, স্থায়ী সম্পত্তি,ব্যবসা প্রতিষ্ঠান,, ফ্ল্যাট, অলংকার ইত্যাদি।এসব জামানতের মাধ্যমে ব্যাংক আপনাকে নির্দিষ্ট পরিমাণ লোন দিবে সেটা আপনার জামানত জিনিসের মোট মূল্যের ৫০%-৬০% এমনকি ৭৫% ও হয়ে থাকে।

সিসি লোনের সুবিধা হচ্ছে এতে সুদের হার কম,এবং দীর্ঘ মেয়াদী লোন নেওয়া যায়,বিভিন্ন ব্যাংক বিভিন্ন মেয়াদে লোন দিয়ে থাকে।ঝামেলাহীন ও অধিক লোন নেওয়ার জন্য সিসি লোন উওম।সাধারণ ব্যবসায়ীরা এই লোন বেশি নিয়ে থাকে,,


অসুবিধা হচ্ছে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে লোন পরিশোধ করতে না পারলে ব্যাংক আপনার জামানত নিলামে তুলার অধিকার রাখে,তাছাড়া কিছু কিছু ব্যাংক লোন দেওয়ার পূর্বে সুদের টাকা গ্রহণ করে থাকে।


আরো বিস্তারিত জানতে স্থানীয় ব্যাংক এর মেনেজার এর সাথে যোগাযোগ করে দেখতে পারেন।


ধন্যবাদ

দিয়েছেন

CC loan হলো নগদ ক্রেডিট (Cash Credit)। এটি একটি সংস্থার জন্য অর্থের একটি স্বল্পমেয়াদি উৎস। যখনই তহবিল অর্থাৎ অর্থ প্রয়োজন হয় তখনই অর্থ সরবরাহ করে।


এ লোন ব্যবস্থায় ব্যাংক যতবার অর্থ উঠাবার প্রয়োজন ততবার উত্তোলন করতে দেয়। এ ক্ষেত্রে লোন ক্রেডিট কার্ডের উপর নেওয়া হয়। এতে সুদের হার উল্লেখযোগ্য ।


ধন্যবাদ 

দিয়েছেন
cash card loan (cc) এটা এক ধরনের ঋন।এ ঋন ব্যবসার জন্য ব্যাংক থেকে নিতে পারে ।ভবিষ্যতে যা পরিশোধ ক রতে হয়।
দিয়েছেন

cash card loan (cc) এটা এক ধরনের ঋন।এই লোনে নিদির্ষ্ট একটি তারিখ থাকে ঐ তারিখের মধ্যে আপনাকে লোন পরিশোধ করতে হবে। নাহলে আপনি যে জিনিস ব্যাংকে রেখে লোন নিবেন তা ব্যাংক কর্মকর্তা নিলাম তুলবে। 1; কমপক্ষে তিনটি সাধারন ঋন নিয়ে নিয়মিত পরিশোধ করা হলে সাধারনত সি সি লোন গ্রহন করা যাবে। 2; চলমান সাধারণ ঋনটি কমপক্ষে একবছর নিয়মিত পরিশোধ করার পর সাধারণ সিসি ঋন গ্রহন করা যাবে 3;সাধারন সি সি ঋন এ প্রতি মাসে সুদ প্রদান করতে হবে। বিজনেস সি সি ঋনের ক্ষেত্রেন ১। বিজনেস সিসি ঋণের ক্ষেত্রে .৫% হারে মাসিক কিস্তি প্রদান করতে হবে। মাসিক হারে পরিশোধ না করলে ৩ মাস অন্তর ১.৫% হারে অবশ্যই পরিশোধ করতে হবে। ২। প্রত্যেকবার ঋণ ফেরতের সময় সুদ আদায় না করে সুদের টাকা তিন মাস পর পর সঞ্চয়ী হিসাব থেকে সমন্বয় করা হবে। ঋণ গ্রহীতা চাইলে প্রতিবারে সুদ প্রদান করতে পারবেন। ৩। সঞ্চয়ী হিসেবে টাকা না থাকলে লোনকে ডেবিট করা হবে এবং সদস্যকে খেলাপী হিসেবে গন্য করা হবে এবং সুদের অর্ধেক জরিমানা গ্রহণ করা হবে। ৪। সিসি ঋণ সিলিং ভিত্তিক অনুমোদন করা হবে। ৫। গৃহীত সিসি ঋণের ৩ গুণ সমপরিমাণ লেনদেন করলে পরবর্তী সিলিং প্রাপ্র্য হবেন তবে ১ বৎসরের পূর্বে না। ৬। মাসিক লেনদেন না থাকলে পরবর্তী সিসি লোন বিবেচনা করা হবে না। ৭। এসটিডি হিসাব খুলে সিসি লোনের লেনদেন করতে হবে। জেনারেল সিসি ঋণ সংক্রান্ত : ১। জেনারেল সিসি ঋণের ক্ষেত্রে .৫% হারে মাসিক কিস্তি প্রদান করতে হবে। ২। কিস্তির টাকা সঞ্চয়ী হিসেব থেকেও সমন্বয় করা যাবে। সঞ্চয়ী হিসাবে টাকা না থাকলে লোনকে ডেবিট করা হবে এবং সদস্যকে খেলাপী হিসেবে গন্য করা হবে এবং সুদের অর্ধেক জরিমানা গ্রহণ করা হবে। ৩। সিসি ঋণ সিলিং ভিত্তিক অনুমোদন করা হবে। ৪। গৃহীত সিসি ঋণের ৩ গুণ সমপরিমাণ লেনদেন করলে পরবর্তী সিলিং প্রাপ্র্য হবেন তবে ১ বৎসরের পূর্বে না। ৫। মাসিক লেনদেন না থাকলে পরবর্তী সিসি লোন বিবেচনা করা হবে না। ৬। এসটিডি হিসাস খুলে সিসি লোনের লেনদেন করতে হবে।

anon
দিয়েছেন

ভাইজানরা, আমার মনে হয় এদেশে মাঝারি ছোট ব্যবসায়ীরা ব্যাংকের ঋন পাওয়া মানে আপনি অনেক ভাগ্যবান. যা লিখছে ত নেবার পরও তাদের শুধু কাগজ মিসিং হয়. আপনি লোন পেলে জানিয়েন, আমিও চেষ্টা করছিতো তাই.         

দিয়েছেন

cash card loan (cc) এটা এক ধরনের ঋন।এই লোনে নিদির্ষ্ট একটি তারিখ থাকে ঐ তারিখের মধ্যে আপনাকে লোন পরিশোধ করতে হবে। নাহলে আপনি যে জিনিস ব্যাংকে রেখে লোন নিবেন তা ব্যাংক কর্মকর্তা নিলাম তুলবে।

দিয়েছেন

সিসি লোন সাধারণত ব্যবসায়িদের জন্য। যে কোন নিদিষ্ট জামানত ব্যাংকের নিকট গচ্ছিত রেখে

সময় নিদিষ্ট করে সিসি লোন দেয় যা নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই পরিশোধ করতে হয়, ভালভাবে শেষ হলে

 অবশিষ্ট গুচ্ছিত জামানত ফেরত পাবেন। না হলে বাড়তি/সুদ/নিলাম।

Download Bissoy Answers App Bissoy Answers