চেহারায় বয়সের ছাপ পরছে কিনা কিভাবে সেটা বুঝতে পারা যায় আর সেটা হলে তা কিভাবে প্রতিকার করা সম্ভব?

চেহারায় বয়সের ছাপ পরছে কিনা কিভাবে সেটা বুঝতে পারা যায় আর সেটা হলে তা কিভাবে প্রতিকার করা সম্ভব?
বিভাগ: 

1 টি উত্তর

**চোখের তলায় ভাঁজ, বলিরেখা, খোলা রোমকুপ নির্জীব ত্বক এসবই বয়সের ছাপের লক্ষণ।

তবে নিয়মিত পরিচর্যায় ত্বক সতেজ ও সুন্দর রাখা সম্ভব। দীর্ঘদিন ধরে ত্বকের যত্ন না নিলে বেশি বয়সের অনেক আগেই ত্বকে বয়সের ছাপ দেখা যায়। প্রথমেই কী কী কারণে ত্বকে বয়সের ছাপ পড়তে পারে এবং কীভাবে তা থেকে ত্বককে রক্ষা করবেন, সে ব্যাপারে ধারণা রাখুন।

০১)  চেহারায় বয়সের ছাপ দূরীকরণত্বকের সবচেয়ে ক্ষতি করে রোদ। সারাদিন বাইরে রোদের মধ্যে থাকলে, ইউভি রশ্মি থেকে সেল ড্যামেজ হয়।রোদে বের হওয়ার অন্তত 25 মিনিট আগে সানস্ক্রিন লাগাবেন। সাবান ব্যবহারের ফলে ত্বকের ভাবিক অ্যাসিড ব্যালেন্স নষ্ট হয়ে যেতে পারে। ফলে ত্বকে ময়েশ্চারাইজারের অভাব দেখা যায়। শুষ্ক ত্বকের জন্য সাবানের বদলে ক্লিনজিং জেল ব্যবহার করুন। এটি ত্বকের ওপর জমে থাকা ধুলা-ময়লা পরিষ্কার করে দেয়। দিনে দুবার ত্বক পরিষ্কার করুন। রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে ত্বক পরিষ্কার করা খুবই জরুরি।

০২) ফল এবং শাক-সাব্জিতে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন এ এবং ডি থাকে, যা আপনার ত্বককে পুণরোজ্জীবিত করে তুলতে সাহায্য করে। বিভিন্ন মৌসুমী সাব্জি এবং ফলের জুস বানিয়ে নিয়মিত পান করলে বয়সের ছাপ আপনার থেকে দূরে থাকবে।

০৩) ডিমের কুসুমটি বাদ দিয়ে সাদা অংশটি ফেটে নিন। এবার এটি আপনার তকের বিভিন্ন অংশে ম্যাসাজ করুন এবং 20 মিনিট রেখে দিন যেন তা শুকিয়ে যায়। এরপর পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। ডিমের সাদা অংশে যে ভিটামিন B এবং ভিটামিন E আছে তা আপনার ত্বকের যৌবন ফিরিয়ে আনতে সাহায্য করবে।

০৪) লেবু কেটে টুকরো করে আপনার ত্বকের আক্রান্ত স্থান গুলোতে ঘষুন যেন এর রসটি সেখানে লেগে যায়। লেবুর রসের এসিডিটি আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করবে এবং বলি রেখ কমিয়ে ফেলবে।

০৫) যতটুকু সম্ভব চিন্তুা মুক্ত থাকতে হবে এবং ৬-৮ ঘন্টা ঘুমাতে হবে।

সাম্প্রতিক প্রশ্নসমূহ