মাহাদিvai
জিজ্ঞাসা করেছেন
11 টি উত্তর
দিয়েছেন
আপনি বাবা-মায়ের সত্যিকারের সন্তান হয়ে থাকেন,তাহলে অবশ্যই তুচ্ছ একটি মেয়ের জন্য নিজের জন্মদাতাদের ছেড়ে চলে যাবেন না।মনে রাখবেন,দশটা বউ পাবেন কিন্তু বাবা-মা দুজনই।তাই ওদের(বাবা-মা) কষ্ট না দিয়ে বউকে তালাক দিন।তবে যদি মা-বাবাকে বুজিয়ে বলেন তাহলে হয়তো ওরা সম্পর্ক মেনে নেবে।
আমার মনে হয় আপনার বাবা মার কথা শোনা উচিত।কেননা জীবনে বউ হারিয়ে গেলে আপনি হয়ত আরো অনেক বউ পাবেন।কিন্তু বাবা মাকে যদি হারিয়ে ফেলেন তাহলে আপনি তাদেরকে কখনো আর ফিরে পাবেন না।আর বাবা মাকে কষ্ট দিয়ে জীবনে কেউ কখনো সুখী হতে পারে না।
দিয়েছেন
আপনি একসাথে দুই নৌকোয় পা রাখতে গেলে পা পিছলে পড়ে যাওয়ার সম্ভাবনাই সবচেয়ে বেশি। মনে রাখবেন, বাবা মা কে কষ্ট দিয়ে কেউ কোনদিন সুখী হতে পারে নি। ইহকালেও না,পরকালেও না। আবার ভালোবাসার মানুষকে বিয়ে করে বিচ্ছেদ ঘটানোটাও খুবই কষ্টকর। 
তাই, আপ্রাণ চেষ্টা করুন একটা হালাল উপার্জন এর পথ খুঁজতে। তারপর পরবর্তী সময়ে বাচ্চাকাচ্চা নিতে দেরী করবেন না। নাতি-নাতনীর মুখ দেখলে হয়তো আপনার বাবা-মা উভয়ই আবেগাপ্লুত হয়ে আপনাদের সবাইকে মেনে নিবেন ইনশাআল্লাহ্‌। তবে বাবা-মাকে যতটুকু সম্ভব সুখী রাখার চেষ্টা করুন। দুয়া করি, আল্লাহতালা আপনার সহায় হোন।
মন্তব্য সমূহ
MustakimAkhi

Right

দিয়েছেন
মা বাবা কে ভালভাবে বোঝান।।। বউ তালাক দেয়ার দরকার নাই।।আল্লাহ কাছে মাফ চান।।।কোনো আলেমের সাথে কথা বলেন।।
মেয়েকে ছেড়ে দেয়া একদমই ঠিক হবে না। কারন আপনি এখন তাকে বিয়ে করেছেন। তার  জীবনটাই শেষ করে দিয়েছেন । বিয়ে করার বা সম্পর্ক করার আগে মনে ছিল না এসব ? যদিো বাবা মা এর হক বেশি সব সময়। তবুও মেয়ের কথা চিন্তা করুন। সে মারাও যেতে পারে আত্নহত্যা করে। বাবা মা কে বোঝান যে আপনারা সুখে থাকবেন। আপনাদের অসুবিধা হবেনা। বোনটা যদি আপনার হতো তাহলে কি করতেন আপনি ? দয়া করে কেউ হারাম সম্পর্কে জড়িয়ে কারো জীবন নষ্ট করবেন না।
দিয়েছেন
এখানে প্রশ্ন হচ্ছে একবার আপনার মা বাবা রাজি হয়েছে। পরে না করল কেন।।। যাই হোক আপনি ভাল একটা কাজ করেন টাকা পয়সা রোজগার করেন।।। আপনি সুখে থাকলে মাবাবা সুখি।।।। যতসম্ভব পারেন আপনার স্ত্রী সহ মা বাবার কাছে গিয়ে উঠেন মায়ের সাথে কথা বলেন মাকে বেশি বেশি ডাকেন সব ঠিক হবে।।। আল্লা তায়ালা নিশ্চয় আপনাকে একটা পরিক্ষায় ফেলিয়েছেন।।। তাই আল্লাহ  কে একটু সরণ করুন।।। ধর্য্য ধারন করুন।।। দোয়া করি আল্লাহ যেন আপনার মা বাবার মনকে আপনার প্রতি কোমল করিয়ে বরন করেন।।।
দিয়েছেন
যদি প্রাপ্ত বয়স্ক হয়ে থাকেন তাহলে আপনার বাবা মায়ের কোন অধিকার নেই এমন করার।ধর্ম ও আইন এ প্রতেকটা মানুষের অধিকার আছে তার জীবন সাথি বেছে নেয়ার।যদি কোর্ট ম্যারিজ করে থাকেন বা প্রাপ্ত বয়স্ক হয়ে কাজী অফিসে বিয়ে করে থাকেন।তাহলে আইনের সহযোগিতা নিতে পারেন।
দিয়েছেন
Apnar kind eta real problem na matha khatiya niccen
আপনার বাবা মা এক সময় মেনে নিতে বাধ্য হবেই
দিয়েছেন
ভাই,,,আপনার পোস্টটি ২০১৬ সালের,,২০১৯ সালে এসে জানতে চাই,,আপনার সমস্যাটা কি সমাধান হয়েছে?? হয়ে থাকলে এখন কি মা বাব মেনে নিয়েছেন?  নাকি বুঝিয়েছেন?   
Download Bissoy Answers App Bissoy Answers