2 টি উত্তর
দিয়েছেন
লেবুর রস লেবুর রসে যে এসিড উপাদান রয়েছে সেটি ব্রণ দূর করতে বেশ কার্যকর। সামান্য লেবুর রস হাতে নিয়ে পুরো মুখে লাগিয়ে ব্রণের ওপর বেশি করে লাগান। কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন। এবার পানি দিয়ে ভালো করে মুখ ধুয়ে ফেলুন। লেবুর রস ও মধু লেবুর রসের সঙ্গে সামান্য মধু মিশিয়ে মুখে লাগান। ১৫ মিনিট পর মুখ ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাক মুখের ব্রণ দূর করার পাশাপাশি ব্রণের দাগও দূর করে। এ ছাড়া এটি ত্বকের কালচে দাগও দূর করে। লেবুর রস ও কমলার রস সমান পরিমাণ লেবুর রস ও কমলার রস একসঙ্গে মিশিয়ে মুখে লাগান। ২০ মিনিট পর পানি দিয়ে মুখ ভালো করে ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাক মুখের ব্রণ দূর করার পাশাপাশি ত্বক উজ্জ্বল করে। দুধ ও লেবুর রস সমান পরিমাণে দুধ ও লেবুর রস একসঙ্গে মিশিয়ে মুখে লাগান। বিশেষ করে যেসব জায়গায় ব্রণ আছে সেই জায়গায় বেশি করে লাগান। ১৫ মিনিট পর পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাক ব্রণ দূর করার পাশাপাশি ত্বকের কালচে ভাব দূর করে এবং ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখে।
দিয়েছেন

-মুখ খুব ভালো করে পরিষ্কার করে নিন। ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ধুয়ে তোয়ালে দিয়ে মুছে নিন।

-যদি স্বাভাবিক বা তৈলাক্ত ত্বক হয়, তাহলে তাজা পাকা লেবুর রস (যে লেবু পেকে হলদে হয়ে গেছে, অর্থাৎ লেমন) সরাসরি মুখের কালো দাগে লাগিয়ে নিন। লেবুর রসের সাথে সামান্য মধুও মিশিয়ে নিতে পারেন। তারপর শুকাতে দিন। এবং লেবুর রস মুখে নিয়েই ঘুমিয়ে যান। স্বাভাবিক বা তৈলাক্ত ত্বকে কোন সমস্যা হবে না। সকালে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ মুছে নিন।

-আর যদি শুষ্ক বা সেনসিটিভ ত্বক হয়, তাহলে পাকা লেবুর রসের সাথে মুলতানি মাটি ও মধু মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণ ধোয়া মুখে লাগিয়ে ৩০ মিনিট রাখুন। তারপর ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত ব্যবহারে ত্বকের কালো দাগ মিলিয়ে যাবে।


ত্বকে লেবুর রস দেয়ার পর যদি কোন রকম অস্বস্তি অনুভব করেন, তাহলে অবিলম্বে মুখে ধুয়ে ফেলুন এবং পুনরায় ব্যবহার করবেন না।

তখন অন্য পদ্ধতি ব্যবহার করতে হবে।

Download Bissoy Answers App Bissoy Answers