আমার মুখে অনেক এলার্জি এবং ত্বক অনেক শুষ্ক। যার ফলে মুখে ছোট বড় অনেক দাগ হয়ে গেছে।প্লিজ কেউ আমাকে একটা সঠিক পরামর্শ দিন।এমন একটা ক্রিম এর নাম বলুন যা use করলে শুষ্ক ত্বক,এলার্জি ও মুখের কালো দাগ থেকে চিরতরে মুক্তি পাবো। বি:দৃ: বাহিরের দেশে ক্রিম টার নাম কি হতে পারে দয়া করে তাও জানাবেন? আমার মুখে অনেক এলার্জি এবং ত্বক অনেক শুষ্ক। যার ফলে মুখে ছোট বড় অনেক দাগ হয়ে গেছে।প্লিজ কেউ আমাকে একটা সঠিক পরামর্শ দিন।এমন একটা ক্রিম এর নাম বলুন যা use করলে শুষ্ক ত্বক,এলার্জি ও মুখের কালো দাগ থেকে চিরতরে মুক্তি পাবো। বি:দৃ: বাহিরের দেশে ক্রিম টার নাম কি হতে পারে দয়া করে তাও জানাবেন?
জিজ্ঞাসা করেছেন
বিভাগ:
3 টি উত্তর
আপনি প্রথমে সেসব খাবার ব্জন করুন যেগুলো খেলে এলার্জি হয়।তারপর আপনি মুখের দাগ দুর করার জন্য রেমি স্পট আউট ক্রীমটি ব্যবহার করতে পারেন।
যে কোন ধরনের এলার্জির জন্য প্রথম পরামর্শই হলঃ " প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধ উত্তম"। কেননা এলার্জি এমন একটি সমস্যা যা খুব সহজে ভাল হবার নয়। তাই আপনার প্রথম কাজ হওয়া উচিৎ সকল ধরনের এলার্জি উৎপাদক জিনিস থেকে দূরে থাকা। আপনি লক্ষ্য করুন কোন সাবানে বা প্রসাধনে আপনার এলার্জি হচ্ছে, কোন খাবার খেলে বা কোন পরিবেশে গেলে এমন হয় সেসব এড়িয়ে চলুন। সব সাবানেই এলার্জি হলে বেসন দিয়ে মুখ ধুতে পারেন। আর মুখে চাকা চাকা দাগ হলে তাতে হাত লাগাবেন না। কারণ হাত লাগালে চুলকানি আরও বেশি হয় এবং দাগও বেশি হয়। তার পরিবর্তে মুখে অল্প করে পরিষ্কার বরফ ঘষে দেখতে পারেন। আর দাগ কমানর জন্য বাজারে বিভিন্ন কোম্পানির কর্টিসন সমৃদ্ধ ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন। কোজিক এসিড বা আরবুটিন সমৃদ্ধ ক্রিমও ব্যবহার করতে পারেন। প্রচুর পানি, ভিটামিন সি জাতীয় ফল এবং সবজি খাবেন, কেননা এরা মুখের দাগ কমাতে অত্যন্ত সহায়ক। আর একটা কথা অবশ্যই মনে রাখবেন এলার্জি একেবারেই ভাল হবার মতো কোন ঔষধ নেই। তবে এর নিয়ন্ত্রণ আপনার হাতে। আপনার সচেতনতাই সবচেয়ে বড় ঔষধ। তবে হ্যাঁ আজকাল ধাপে ধাপে এলার্জির চিকিৎসা করা হয়। এলার্জিকে সহনীয় মাত্রায় রাখতে প্রথমে অল্প শক্তিমাত্রার ঔষধ থেকে শেষ পর্যন্ত ব্যয়বহুল ইমিউনোথেরাপির ব্যবস্থাও নিতে পারেন। ধন্যবাদ।
অাপনি ১ স্পোর্ট ক্লিন ক্রিম , রাতে  একবার ব্যাবহার করেন  ১মাস   ২ ট্যাবলেট   ইবাগ্রিন রাতে একটা ১মাস   ৩ লোমোফা ফেস ওয়াস  মুখ ধৈত করুন।  ইনসাঅাল্লা উপকার পাবেন