বিজ্ঞাপন

ফাস্ট চার্জিং এর সুবিধা এবং অসুবিধা । - (Fast Charging in Smartphones - Advantages and Disadvantages )?

প্রযুক্তি উন্নয়নের সাথে সাথে নতুন একটি প্রযুক্তি আমাদের সামনে খুব দ্রুত উন্নতি করে যাচ্ছে । এই প্রযুক্তিকে বলা হচ্ছে কম্পিউটারের প্রতিযোগী । ধারণা করা হয় এমন একসময় কম্পিউটার দিয়ে যে কাজ করা হয় সেটা এই ছোট্ট ডিভাইস মোবাইল দিয়ে করা যাবে। আমরা অনেকেই মোবাইল ডিভাইস ব্যবহার করি । বেশিরভাগ ক্ষেত্রে আমাদের এর চার্জিং সমস্যা নিয়ে ভুগতে হয়। বিশেষকরে আমরা যখন দেখি ফোন খুব স্লো চার্জ নিচ্ছে তখন আর মাথা কাজ করেনা ।  


মাথায় একেবারে আগুন ধরে যায়। আগুন নিভানোর উপয় হিসেবে কিনে ফেলি দ্রুতগামী চার্জার মানে আমরা যাকে ফাস্ট চার্জিং বলি যাকে । এটা করার আগে খুব সতর্ক থাকা জরুরি । আমাদের চার্জার কেমন হবে সেটা আমাদের ডিভাইস ঠিক করে দিবে। সেটা আমরা ঠিক করতে পারিনা । আমাদের ফোনে সেই সকল চার্জার ব্যবহার করা উচিৎ নয় যার ফলে ব্যাটারির লাইফ টাইম একদম শেষ হয়ে যায় । অনেকের এরকম হয়েছে যে , দেখা যায় ফোন ৩০% এর কাছাকাছি আসলে ফোন হয়েযায় বন্ধ।  যার প্রধান এবং মূল কারণ উল্টোপাল্ট চার্জার দিয়ে মোবাইল চার্জ করে ব্যাটারির লাইফ ধ্বংস করা । এই মর্মে বলা যায় ফাস্ট চার্জিং ভালো নাকি খারাপ সেটা আপনার ডিভাইসের উপর নির্ভরশীল । 


ফাস্ট চার্জিং এর ক্ষেত্রে জানতে হবে আপনার ফোন কেমন ফাস্ট চার্জ নেয়। এটা জেনেই আপনাকে ফাস্ট চার্জিং এর চার্জার ব্যবহার করতে হবে । পাওয়ার ব্যাংক দিয়ে কিন্তু ফাস্ট চার্জিং করা যায় না এবং সেটা করার চেষ্টা করলে ফোনের ব্যাটারি ড্যামেজ হয়ে যাবে । ফোন ব্যাটারি আয়ু একদম কমে যাবে । 


যদি আপনার ফোনে ফাস্ট চার্জিং সাপোর্টেড না থাকে তাহলে আপনার ফোনে এই ফাস্ট চার্জার ব্যবহার করা হলে অবশ্যই নিজের পায়ে নিজে কুড়াল মারার মতো  ব্যাপার হবে । তবে হ্যাঁ যদি পারেন তবে এরকম না করে  ঐ কম্পানির সাথে যোগাযোগ করে চার্জার নিয়ে নিবেন বা কিনে নিবেন। 


যদি না পাওয়া যায় তবে , আপনাকে জানতে হবে আপনার চার্জার কত আউটপুটের কারেন্ট দেয় । ঠিক ঐরকমই একটি চার্জার নিতে পারেন । সেটা যেকোন কোম্পানি হতে পারে , তবে ভালো হবে স্যামসাং কোম্পানি হলে । যদি আপনার ফোন ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে তাহলে আপনি ফাস্ট চার্জিং নিতে পারেন । 


মূল কথাঃ ফাস্ট চার্জিং ভালো না খারাপ সেটা সম্পূর্ণ আপনার ফোনের উপর নির্ভরশীল । যদি আনসাপোর্টেড ডিভাইসে চার্জিং লাগান তাহলে অবশ্যই ফোনের ক্ষতি হবে এবং ফোন ব্লাস্ট (অনেক যায়গায় শোনা যায়) হতে পারে। যদি সাপোর্ট করে তবে সমস্যা নেই তবে উল্টোপাল্টা চার্জার ব্যবহার করবেন না ।  

প্রযুক্তি উন্নয়নের সাথে সাথে নতুন একটি প্রযুক্তি আমাদের সামনে খুব দ্রুত উন্নতি করে যাচ্ছে । এই প্রযুক্তিকে বলা হচ্ছে কম্পিউটারের প্রতিযোগী । ধারণা করা হয় এমন একসময় কম্পিউটার দিয়ে যে কাজ করা হয় সেটা এই ছোট্ট ডিভাইস মোবাইল দিয়ে করা যাবে। আমরা অনেকেই মোবাইল ডিভাইস ব্যবহার করি । বেশিরভাগ ক্ষেত্রে আমাদের এর চার্জিং সমস্যা নিয়ে ভুগতে হয়। বিশেষকরে আমরা যখন দেখি ফোন খুব স্লো চার্জ নিচ্ছে তখন আর মাথা কাজ করেনা ।  


মাথায় একেবারে আগুন ধরে যায়। আগুন নিভানোর উপয় হিসেবে কিনে ফেলি দ্রুতগামী চার্জার মানে আমরা যাকে ফাস্ট চার্জিং বলি যাকে । এটা করার আগে খুব সতর্ক থাকা জরুরি । আমাদের চার্জার কেমন হবে সেটা আমাদের ডিভাইস ঠিক করে দিবে। সেটা আমরা ঠিক করতে পারিনা । আমাদের ফোনে সেই সকল চার্জার ব্যবহার করা উচিৎ নয় যার ফলে ব্যাটারির লাইফ টাইম একদম শেষ হয়ে যায় । অনেকের এরকম হয়েছে যে , দেখা যায় ফোন ৩০% এর কাছাকাছি আসলে ফোন হয়েযায় বন্ধ।  যার প্রধান এবং মূল কারণ উল্টোপাল্ট চার্জার দিয়ে মোবাইল চার্জ করে ব্যাটারির লাইফ ধ্বংস করা । এই মর্মে বলা যায় ফাস্ট চার্জিং ভালো নাকি খারাপ সেটা আপনার ডিভাইসের উপর নির্ভরশীল । 


ফাস্ট চার্জিং এর ক্ষেত্রে জানতে হবে আপনার ফোন কেমন ফাস্ট চার্জ নেয়। এটা জেনেই আপনাকে ফাস্ট চার্জিং এর চার্জার ব্যবহার করতে হবে । পাওয়ার ব্যাংক দিয়ে কিন্তু ফাস্ট চার্জিং করা যায় না এবং সেটা করার চেষ্টা করলে ফোনের ব্যাটারি ড্যামেজ হয়ে যাবে । ফোন ব্যাটারি আয়ু একদম কমে যাবে । 


যদি আপনার ফোনে ফাস্ট চার্জিং সাপোর্টেড না থাকে তাহলে আপনার ফোনে এই ফাস্ট চার্জার ব্যবহার করা হলে অবশ্যই নিজের পায়ে নিজে কুড়াল মারার মতো  ব্যাপার হবে । তবে হ্যাঁ যদি পারেন তবে এরকম না করে  ঐ কম্পানির সাথে যোগাযোগ করে চার্জার নিয়ে নিবেন বা কিনে নিবেন। 


যদি না পাওয়া যায় তবে , আপনাকে জানতে হবে আপনার চার্জার কত আউটপুটের কারেন্ট দেয় । ঠিক ঐরকমই একটি চার্জার নিতে পারেন । সেটা যেকোন কোম্পানি হতে পারে , তবে ভালো হবে স্যামসাং কোম্পানি হলে । যদি আপনার ফোন ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে তাহলে আপনি ফাস্ট চার্জিং নিতে পারেন । 


মূল কথাঃ ফাস্ট চার্জিং ভালো না খারাপ সেটা সম্পূর্ণ আপনার ফোনের উপর নির্ভরশীল । যদি আনসাপোর্টেড ডিভাইসে চার্জিং লাগান তাহলে অবশ্যই ফোনের ক্ষতি হবে এবং ফোন ব্লাস্ট (অনেক যায়গায় শোনা যায়) হতে পারে। যদি সাপোর্ট করে তবে সমস্যা নেই তবে উল্টোপাল্টা চার্জার ব্যবহার করবেন না ।  

জিজ্ঞাসা করেছেন
বিজ্ঞাপন
bissoy.com এ মানসম্মত উত্তর দিয়ে জিতে নিন উপহার। উপহারের অর্থমূল্য নিয়ে নিন মোবাইল ব্যাংকিং এ। বিস্তারিত দেখুন এখানে