একটি মেয়েকে পছন্দ হয়, তারপর ব্যাপারটি প্রেম-ভালবাসা এর দিকে এগোতে থাকে...কিন্ত ইসলামে এগুলো হারাম তাই নিজেরা বিবাহ করার সিদ্ধান্ত নেই (সমাজের প্রেক্ষাপটে পরিবার থেকে আমাদের বিয়ে দিতো না) এই বিয়ে কি বিয়ে বৈধ হবে না? মূলত, আমি ব্যাতীত অন্য কারো কাছে যেন মেয়ের পরিবার জোর করে বিয়ে না দিতে পারে তার সতর্কতা হিসেবেও বিয়েতে দুই জন সম্মত হই। এর পর আমরা মাঝে মাঝে স্বামী-স্ত্রীর মত থাকি। এখন এগুলা কি গুণাহ হয়েছে? উত্তর দিলে কৃতজ্ঞ থাকবো। আমাদের উদ্দেশ্য খারাপ কিছু না, আর ইসলামিক নিয়মে সমাজ চলে না যার জন্য নিশ্চিত হওয়া যায় না মেয়ের পরিবার এসব মেনে নিবে (পাত্রীর পছন্দ মত বিয়ে)। এই দৃষ্টিকোণ থেকে দেখে উত্তর দিবেন আশা করি।
বিভাগ:
1 টি উত্তর
না, আপনাদের বিয়ে অবৈধ হবে না কারন প্রাপ্ত বয়স্ক ছেলে এবং মেয়ে শরীয়াত সম্মত ভাবে বিয়ে করতে পারবে। তবে আপনার এ কাজটি ঠিক হয়নি আপনার বাবা মাকে জানানো উচিত ছিল, এ কথা শুনলে আপনার বাবা মা ও তার বাবা মা মন থেকে কষ্ট পাবে।