অনেকে সালাম করার সময় মাথা নত করে, তা কি বৈধ?

Asked on

4 Answer

Answered on 

সালাম ও মুসাফাহাহ করার সময় মাথা নত করা বৈধ নয়। বৈধ নয় আল্লাহ ছাড়া অন্য আর জন্য মাথা নত করা। (ইবনে উসাইমিন)

Answered on 

পা ছুয়ে ছালাম করা মুসলিমদের কোন রিতি না এটা হচ্ছে হিন্দু ঠাকুরদের পা ছুয়ে প্রণাম করার অনুকরন। তবে বয়োজেষ্ঠ কাউকে পা ছুয়ে ছালাম করলে সেটা অবৈধ কিছু না, এমন কোন দলিল কোথাও নেই। নিশ্চই অাল্লাহ মানুষের অন্তরের উদ্দেশ্য দেখে বিচার করেন তাই অাপনার উদ্দেশ্য যদি হয় মুরুব্বি কাউকে সন্মান করা তাহলে সমস্যার কিছু নেই। তেব এটা নিয়ে অনেকেই কূতর্ক করে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করে। পা ছুয়ে ছালাম করা অার সিজদাহ করা যে এক না এটা নিশ্চই পরিষ্কার।

Answered on 

এটা কখনও বৈধ হতে পারে না ।কারণ ইসলাম মতে শুধু হাত মাথায় দিয়ে সালাম দেওয়ার রেওয়ায আছে।এছাড়া মাথা নত করে সালাম করার নিয়ম নেই।শুধু আল্লাহর কাছে ছাড়া কারো কাছে মাথা নত করা আল্লাহর সাথে শরীক করার সমান।

Answered on 

বাংলাদেশে পাঁ ছুঁয়ে সালাম দেয়ার একটা সংস্কৃতি চালূ রয়েছে। অধিকাংশ সময়ে অবশ্য মেয়েরাই পাঁ ছুঁয়ে সালাম করে থাকে। হিন্দু সমাজে বেদের শিক্ষক তথা পুরোহিত থেকে শুরু করে গুরুজনেরা মূলত ব্রাহ্মণ সম্প্রদায়ের হয়। আর হিন্দু ধর্ম মতে ব্রাহ্মণরা বিশেষ করে ব্রাহ্মণ পুরোহিতরা হচ্ছে ঈশ্বরের প্রতিনিধি। ঈশ্বরের প্রতিনিধি হিসেবে তারা সাধারণ হিন্দুদের কাছে প্রায় পূজনীয় হিসেবে বিবেচিত হয়। মনুসংহিতাতে বেদের ছাত্রদেরকে উদ্দেশ্য করে বলা হয়েছে যে, বেদ শিক্ষার প্রতিটি পাঠের শুরুতে ও শেষে একজন ছাত্র অবশ্যই তার গুরুর দুই পা ছুঁয়ে আলিঙ্গন করবে। এই পা ছুঁয়ে আলিঙ্গন করাকে ব্রহ্মঞ্জলী বলা হয়। ইসলাম ধর্ম মতে : ইসলাম ধর্মে পা ছুঁয়ে সালাম করা নিষেধ। কেননা পা ছুঁয়ে সালাম করতে গেলে আরেকজনের সামনে মাথা নত করতে হয়। কিন্তু ইসলাম ধর্মে একমাত্র আল্লাহ ব্যতীত অন্য কারও সামনে মাথা নত করা নিষেধ। তাই যে কাউকে পা ছুঁয়ে সালাম করা ইসলামে নিষিদ্ধ।
Recent Questions
Loading interface...