স্বামীর হাতে স্ত্রীর আংটি বা স্ত্রীর চুড়ি রাখা কি জরুরী? তা খুলে ফেললে কি কোন অমঙ্গল বা বিপদের আশঙ্কা আছে?

Asked on

2 Answer

Answered on 

দাম্পতের চিহ্নস্বরূপ হাতে আংটি দেওয়া বৈধ নয়। কারণ তা অমুসলিমদের আচরণ। ৫৭৫ (ইবনে উষাইমীন) হাতের সৌন্দর্যের জন্য মহিলাদের চুড়ি পরা বৈধ। তবে তাতে এই বিশ্বাস রাখা অমূলক যে, তা খুলে ফেললে স্বামীর কোন অমঙ্গল ঘটবে।

Answered on 

আসলে এগুলো ভ্রান্ত কথা,  যার উত্তর একজন নিচে দিয়েছে ।  সাধারণত বাঙালি ও বিবাহিত মুসলিমরা বিয়ের পরে চুরি ও নাকফুল বা আসল স্বর্নালংকার পরিধান করে থাকে  । আর বিবাহের আগে বা অবিবাহিত মেয়েরা স্বর্নের ডাল(ডাল আকৃতির স্বর্ণ) বা কাঠি জাতীয় বস্তু নাকে লাগিয়ে রাখে ।  যেমনটা হিন্দুরা বিবাহের পর সিঁদুর পড়িয়া থাকে  । যখন কোন মানুষ কোন মহিলাকে নাকে নাকফুল ও হাতে হাতে চুরি ব্যাবহার করতে দেখে তখন মানুষ বুঝতে পারে  যে এই মহিলাটি বিবাহিত, এ থেকে অনেক মানুষের কু দৃষ্টি থেকে বাঁচা যায় । তবে মহিলারা নিজের বিবাহের কথা গোপন করতে চাই বা প্রকাশ করতে পছন্দ করেনা ।  কারন বিবাহের কথা প্রকাশ করলে কেউ তাকে দেখবেনা তাই তারা নাক ফুল ও চুড়ি খুলে ফেলে দিতে চাই বা হাতে রাখতে চাইনা ।  এতে পরপুরুষদের কুদৃষ্টি বেড়ে যায় তাই হাতে চুড়ি ও নাকে নাকফুল পড়া জরুরী বলা হয়ে থাকে । 
Recent Questions
Loading interface...