জাপানে ভূমিকম্পে উৎপন্ন সুনামির লাইভ ভিডিও প্রকাশ করা হল।দেখলে আপনি স্তম্ভিত হয়ে যাবেন?
 (26721 পয়েন্ট)

জিজ্ঞাসার সময়

1 Answer

 (26721 পয়েন্ট) 

উত্তরের সময় 

#9 ভূমিকম্প একটি সাধারন প্রাকৃতিক দুর্যোগ। তবে সাধারন প্রাকৃতিক দুর্যোগ হলেও প্রাকৃতিক দুর্যোগের মধ্যে এর ভয়াবহতা এবং ক্ষতির পরিমান সব থেকে বেশি। ঝড়, বন্যা হলে সেটা কাটিয়ে ওঠা যায়, অনাবৃষ্টি, অতি বৃষ্টি হলেও কাটিয়ে ওঠা যায়। তবে ভূমিকম্পের কারনে কোন এলাকায় যদি ক্ষতি হয় সেটার পরিমান একেবারে অকল্পনীয়। যাদের ভূমিকম্প দেখার অভিজ্ঞতা হয়নি, তারা মনে করুন ঝাল মুড়ি তৈরীর সময় যেভাবে ঝাকি দেয় ঠিক তেমনি ভূমিকম্পের সময়ও একেকটা ঝাকি এভাবে এসে সব যায়গায় লাগে।তবে ভূমিকম্পে যে পরিমান ক্ষয়ক্ষতি হয় সেই মাত্রাকে আরো কয়েকগুন বাড়িয়ে দেয় সুনামি। প্রিয় মুক্তমঞ্চ.কম পাঠক, সুনামির নাম অনেকেই শুনেছেন। অনেকেই সুনামির নাম শোনেন নি। কি রকম হয় তাও দেখেন নি। কিন্তু সুনামি যারা দেখেছে তারা জানেন। কোন ধরনের বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যায় না গিয়ে সবার সহজ করে বোঝানোর জন্য, সাধারন করে বলছি। সুনামি সমুদ্রের গভীরে ভূমিকম্পের ফলে সৃষ্ট বিশাল বিশাল ঢেউ। হয়তো বা আপনারা বিভিন্ন সমুদ্র সৈকতে গিয়েছেন। কে্উ কক্সবাজার গিয়েছেন, কেউ পতেঙ্গা অথবা কেউ কুয়াকাটা। তবে সাগরে সাধারন সময়ে যে সব ঢেউ দেখা যায়। সুনামির ঢেউ সচরাচর তার থেকে তিনগুন উচ্চতা বিশিষ্ট হয়। আর গতি থাকে দুর্দান্ত। ওই ঢেউয়ের সামনে যা কিছু পরবে, ভিত্তি যদি অত্যন্ত মজবুত না হয় তাহলে একদম খড়ের মতো ভাসিয়ে নিয়ে যাবে। সম্প্রতি জাপানে ভূমিকম্প হয়।আমরা জানি জাপান অত্যন্ত ভূমিকম্প প্রবণ অঞ্চল। সম্প্রতি জাপানের ক্যুয়্যুশু নামক জেলার কুমামোতো অঞ্চলে ৪.৬ মাত্রার ভূমিকম্প হয়। রিখটার স্কেলে ৪.৬ মাত্রার ভূমিকম্প সাধারন মাত্রা হলেও জাপানের কুমামোতো অঞ্চলের সমস্ত বাড়িঘর এর প্রভাবে ভেঙ্গে গেছে। আর সমুদ্র তীরবর্তী অঞ্চল হওয়ার কারনে জাপানে ভূমিকম্পের পর পরই সুনামির বিশাল বিশাল ঢেউ এসে ভাসিয়ে নিয়ে যায় সব কিছু। শুধু জাপান নয়, সারা বিশ্বের সমুদ্র তীরবর্তী সকল স্থানই ভূমিকম্পের পর সুনামির সম্ভাবনায় থাকে।

সম্পর্কিত প্রশ্নসমূহ
Loading interface...
জনপ্রিয় টপিকসমূহ
Loading interface...