ইসলামে কঠিন রোগের চিকিৎসা

শাইখুল আরব ওয়াল আজম হযরত মাওলানা হুসাইন আহমাদ মাদানী (রহ.) থেকে বর্ণিত যে, ‘সূরা ফাতিহা’র নিম্নোক্ত আমলটি এমন সব রোগ থেকে আরোগ্য লাভের জন্য পরীক্ষিত যেসব রোগ সম্পর্কে ডাক্তারগণ কোন চিকিৎসা নেই বলে দিয়েছেন। (মা’মুলাতে মাছুরা, পৃ. ৬৭)
১। দুরূদ শরীফ ৭ বার।
২। প্রথমে একবার ﺍَﻋُﻮْﺫُ ﺑِﺎﻟﻠﻪِ ﻣِﻦَ ﺍﻟﺸَّﻴْﻄَﺎﻥِ ﺍﻟﺮَّﺟِﻴْﻢِ পড়বে।
অতঃপর ﺑِﺴْﻢِ ﺍﻟﻠﻪِ ﺍﻟﺮَّﺣْﻤٰﻦِ ﺍﻟﺮَّﺣِﻴْﻢِ -কে ‘সূরা ফাতিহা’র সাথে মিলিয়ে পড়বে, যেমন, ﺑِﺴْﻢِ ﺍﻟﻠﻪِ ﺍﻟﺮَّﺣْﻤٰﻦِ ﺍﻟﺮَّﺣِﻴْﻢِ ﺍﻟْﺤَﻤْﺪُ ﻟِﻠّٰﻪِ ﺭَﺏِّ ﺍﻟْﻌَﺎﻟَﻤِﻴْﻦَ । এরপর আমীন বলবে। এভাবে ৭ বার ‘সূরা ফাতিহা’ পড়বে।
৩। দুরূদ শরীফ ৭ বার
অতঃপর সে পানি বা তেল এ ফুঁক দিবে। এ পানি বা তেল রোগী ব্যবহার করলে ‘সূরা ফাতিহা’র বরকতে ইনশাআল্লাহ অবশ্যই আরোগ্য লাভ হবে ।
দ্রষ্টব্য, ফজরের সুন্নাত ও ফরয নামাযের মধ্যবর্তী সময়ে উক্ত নিয়মে (অর্থাৎ বিসমিল্লাহকে সূরা ফাতিহার সাথে মিলিয়ে) ৪১ বার ‘সূরা ফাতিহা’ পড়লে কঠিন ও জটিল রোগ (যার চিকিৎসার আশা রোগী ছেড়ে দিয়েছে) ভাল হবে ইনশা-আল্লাহ। শুরু এবং শেষে ১১ বার দুরূদ শরীফ পড়তে হবে। যদি সুন্নাত ও ফরয নামাযের মধ্যবর্তী সময়ে পড়া সম্ভব না হয় তাহলে ফজরের নামাযের পর পড়বে এবং শেষে বুকে ফুঁক দিতে হবে।
(মা’মুলাতে ইয়াওমিয়া, পৃ. ১১)