সংযুক্ত আরব আমিরাতের পর এবার উপসাগরীয় আরেক দেশ বাহরাইনও ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে রাজি হয়েছে বলে জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প।

শুক্রবার টুইটারে তিনি বলেছেন, “৩০ দিনের মধ্যে দ্বিতীয় একটি আরব দেশও ইসরায়েলের সঙ্গে শান্তি স্থাপন করল।”

দশকের পর দশক ধরে আরব দেশগুলো ইসরায়েলকে বয়কট করে আসছিল। ফিলিস্তিন সংকটের সমাধান হলেই কেবল তেল আবিবের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন হতে পারে, এমন ইঙ্গিত ছিল তাদের। এর ব্যতিক্রম ঘটিয়ে গত মাসে সংযুক্ত আরব আমিরাত ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে রাজি হয়। এবার বাহরাইনও একই পথ ধরল।

বাহরাইন যে ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করতে যাচ্ছে, তা নিয়ে গত মাস থেকেই গুঞ্জন ছিল বলে জানিয়েছে বিবিসি।

ইসরায়েল-ফিলিস্তিন বিরোধ নিষ্পত্তিতে জানুয়ারিতে ট্রাম্প ‘মধ্যপ্রাচ্য শান্তি পরিকল্পনা’ হাজির করেছিলেন। ইসরায়েলের সঙ্গে সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাহরাইনের সমঝোতায়ও তিনিই মধ্যস্থতা করেছেন।

মিশর ও জর্ডানের পর সংযুক্ত আরব আমিরাত আর বাহরাইন- ১৯৪৮ সালে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর এখন পর্যন্ত মধ্যপ্রাচ্যের এ চারটি দেশের স্বীকৃতি পেল ইসরায়েল।

দেশটির প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু বলেছেন, আরেকটি আরব দেশের সঙ্গে ‘শান্তি চুক্তিতে’ পৌঁছাতে পেরে তিনি উৎফুল্ল।

ট্রাম্প পরে টুইটারে তার সঙ্গে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু ও বাহরাইনের বাদশা হামাদ বিন ইসা বিন সালমান আল খলিফার একটি যৌথ বিবৃতির কপিও পোস্ট করেন।

“মধ্যপ্রাচ্যে শান্তির ক্ষেত্রে এটি যুগান্তকারী ঘটনা যা অঞ্চলটির স্থিতিশীলতা, সুরক্ষা ও সমৃদ্ধি বাড়াবে,” বলা হয়েছে ওই বিবৃতিতে।

ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনে বাহরাইনের পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছ সংযুক্ত আরব আমিরাত। আর ফিলিস্তিনি কর্মকর্তারা ব্যক্ত করেছেন ক্রুদ্ধ প্রতিক্রিয়া। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বাহরাইন থেকে তাদের রাষ্ট্রদূতকে ডেকেও পাঠিয়েছে।

ফিলিস্তিনি সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাস বলেছে, বাহরাইনের এই পদক্ষেপে ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের জন্য ভয়াবহ ক্ষতি হল।

বাহরাইন-ইসরায়েল সম্পর্ক স্বাভাবিক করার ঘোষণাকে ফিলিস্তিনের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা হিসেবে অ্যাখ্যা দিয়েছেন ইরান পার্লামেন্টের স্পিকারের আন্তর্জাতিক বিষয়ক বিশেষ পরামর্শদাতা হোসেইন আমির-আবদুল্লাহিন।

মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসে ইসরায়েল ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের মধ্যে চুক্তিটি আনুষ্ঠানিকভাবে স্বাক্ষরিত হতে যাচ্ছে। একই অনুষ্ঠানে বাহরাইনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুললতিফ আল জায়ানিও থাকবেন।

নেতানিয়াহু ও জায়ানি সেদিন দুই দেশের মধ্যে হওয়া ‘ঐতিহাসিক শান্তির ঘোষণা’ দেবেন বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

আরব লীগের সদস্যদের মধ্যে উত্তর-পশ্চিম আফ্রিকার দেশ মৌরিতানিয়া ১৯৯৯ সালে ইসরায়েলের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন করলেও ১১ বছর পর, ২০১০ সালে তা ছিন্ন করে।
লিংক


সাবাহআজমাননাহিয়ান
প্রকাশের সময়
এক সাধারণ জ্ঞানপিপাসু হোমো স্যাপিয়েন্স। জ্ঞানার্জন করতে ভালোবাসি। মনোবিজ্ঞান, যুক্তিবদ্যা, ইতিহাস ও ঐতিহ্য আমার চিত্তকে সর্বদাই উদ্বেলিত করে। এক নিশাচর, 'Never mind' মনোভাবের মানুষ।
মন্তব্য সমূহ
talukdernbt

সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদের সাথেও প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বৈঠক করেছেন। তবে সালমান এখনো ইসরায়েলের সাথে আনুষ্ঠানিক মৈত্রী স্থাপনে সবুজসংকেত দেননি। ট্রাম্পের জামাতা জ্যারেড কুশনার মধ্যপ্রাচ্য শান্তি পরিকল্পনা উন্মোচন করলে ফিলিস্তিনিরাও এতে ক্ষুব্ধ হয়। প্রকৃতপক্ষে বাংলাদেশিরাই ফিলিস্তিনিদের প্রকৃত বন্ধু। এখনো বাংলাদেশ ও ইসরাইলের কূটনৈতিক সম্পর্ক নেই। প্রয়াত পররাষ্ট্রসচিব ফারুক চৌধুরীর জীবনের বালুকাবেলা বইটি থেকে জানা যায়, ইসরাইল স্বাধীনতার পরে বাংলাদেশকে স্বীকৃতির আনুষ্ঠানিক ঘোষণাপত্র দিতে চাইলেও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তা গ্রহণ করেনি। ফিলিস্তিনিদের স্বাধীন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার দাবির প্রতি বাংলাদেশের এ সংহতি নিঃসন্দেহে প্রশংসার যোগ্য। দশ লক্ষ রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দেওয়া বাংলাদেশের অন্যতম মহানুভবতা । তাইতো জাতির পিতার বাংলাদেশ স্রষ্টার মেহেরবানি থেকে কখনো বঞ্চিত হবে না।

Alamin313

you can visit my blogs for latest news update. alibaba313.blogspot.com Sonar Bangla Blogs Tnx in Advance

bissoy.com এ মানসম্মত উত্তর দিয়ে জিতে নিন উপহার। উপহারের অর্থমূল্য নিয়ে নিন মোবাইল ব্যাংকিং এ। বিস্তারিত দেখুন এখানে
Download Bissoy Answers App Bissoy Answers