প্রাইম ইউনিভার্সিটি সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে চাই?
1 টি উত্তর

প্রাইম ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের একটি বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়। ঢাকা মহানগরীর দারুসসালামে প্রায় ৫৪,০০০ বর্গফুট সমপরিমান জায়গায় বিশ্ববিদ্যালয়টি অবস্থিত। ২০০২ সালে এই বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হয়। এখানে বিভিন্ন বিষয়ের উপর আন্ডারগ্রাজুয়েট এবং গ্রাজুয়েট প্রোগ্রামগুলো পরিচালিত হয়ে থাকে।

 

 অবস্থান ও ঠিকানা

 প্রাইম ইউনিভার্সিটি

২এ/১, উত্তর পূর্ব দারুসসালাম রোড, সেকশন ০১

মিরপুর, ঢাকা ১২১৬।

ফোন: ৮০৫১৭৮২, পিএবিএক্স: ৯০০৪৯৫৭, ৮০৩১৮১০

মোবাইল: ০১৭১২-৬৭৫৫৯৫, ০১৯৩৯-৪২৫০৩০

ফ্যাক্স: ৮০৫৫৬৪৭

ইমেইল: info@primeuniversity.edu.bd

ওয়েব: http://www.primeuniversity.edu.bd

 

ডিপার্টমেন্ট

ফ্যাকাল্টি অব আর্টস এন্ড সোশ্যাল সাইন্স

ফ্যাকাল্টি অব বিজনেস স্টাডিজ

ফ্যাকাল্টি অব ইঞ্জিনিয়ারিং

ফ্যাকাল্টি অব ইনফরমেশন টেকনোলজী

 

পরিচালিত প্রোগ্রামগুলো

আন্ডারগ্রাজুয়েট প্রোগ্রাম

পোস্ট গ্রাজুয়েট প্রোগ্রাম

ব্যাচেলর অব আর্টস ইন ইংলিশ (অনার্স)

মাস্টার অব বিজনেস এডমিনিস্ট্রেশন

ব্যাচেলর অব এডুকেশন

মাস্টার অব ল’স (প্রিলি এন্ড ফাইনাল)

ব্যাচেল অব বিজনেস এডিমিনিস্ট্রেশন

মাস্টার অব ল’স (রেগুলার)

ব্যাচেলর অব ল’স (অনার্স)

মাস্টার অব আর্টস ইন ইংলিশ

বিএসসি ইন ইলেক্ট্রনিক এন্ড টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং

মাস্টার অব এডুকেশন

বিএসসি ইন ইলেক্ট্রিক্যাল এন্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং

মাস্টার অব কম্পিউটার এপ্লিকেশন

বিএসসি ইন কম্পিউটার সাইন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং

------

ব্যাচেল অব ল’স (প্রিলি এন্ড ফাইনাল)

------

ডিপ্লোমা ইন ইংলিশ

------

 

প্রস্তাবিত প্রোগ্রামগুলো

  • বিএসসি ইন টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং
  • বিএসএস ইন আরলি চাইল্ডহুড ডেভেলপমেন্ট
  • এমএসএস ইন সোস্যাল ওয়ার্ক এন্ড সোস্যাল ডেভেলপমেন্ট
  • ডিপ্লোমা ইন হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট

 

বিষয়ভিত্তিক কোর্সের খরচ

কোর্সের নাম

কোর্সের মেয়াদ

মোট খরচ

বিবিএ

৪ বৎসর

২, ৫২,৬০০ টাকা

বি.এসসি ইন সিএসই

৪ বৎসর

২,৮৯,২০০ টাকা

বি.এসসি ইন ইটিই

৪ বৎসর

২,৯৪,৮০০ টাকা

বি.এসসি ইন ইইই

৪ বৎসর

৩,১৩,৫০০ টাকা

বিএ (অনার্স) ইন ইংলিশ

৪ বৎসর

১,৯৬,২০০ টাকা

এল.এল.বি (অনার্স)

৪ বৎসর

২,২০,৫০০ টাকা

এল.এল.বি (প্রিলি. এন্ড ফাইনাল)

২ বৎসর

৫৫,০০০ টাকা

বি.এড

১ বৎসর

১৩,০০০ টাকা

এম.সি.এ

২ বৎসর

৯৬,০০০ টাকা

এমএ (ইংলিশ)

২ বৎসর

৯৯,০০০ টাকা

এমএ (ইংলিশ)

১ বৎসর

৫৯,২০০ টাকা

এমবিএ (রেগুলার)

২ বৎসর

১,২৬,০০০ টাকা

এমবিএ (এক্সিকিউটিভ)

১৬ মাস

১,০৫,০০০ টাকা

এল.এল.এম (রেগুলার)

১ বৎসর

৩২,০০০ টাকা

এল.এল.এম (প্রিলি. এন্ড ফাইনাল)

২ বৎসর

৫৫,০০০ টাকা

এম.এড

১ বৎসর

১৪,০০০ টাকা

ডিপ্লোমা (ইঞ্জিনিয়ারিং)

৯ মাস

১৮,০০০ টাকা

 

টিউশন ফি পরিশোধে ছাড়

  • বিশ্ববিদ্যালয়ে ৫% ছাত্র-ছাত্রী টিউশন ফি পরিশোধে ১০০% ছাড় পেয়ে থাকে।
  • সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ছাত্র-ছাত্রীরা  ১৫% ছাড় পেয়ে থাকে।
  • এলএলবি ২ বছরের প্রোগ্রামে ভর্তিকৃত ছাত্রীরা, স্বামী-স্ত্রী এবং ভাই-বোন ১৫% ছাড় পেয়ে থাকে।
  • গরীব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ ছাড়ের ব্যবস্থা রয়েছে।

 

ভর্তি যোগ্যতা

  • আন্ডার গ্রাজুয়েট প্রোগ্রামে ভর্তি হতে এসএসসি এবং এইচএসসি পরীক্ষায় পৃথকভাবে জিপিএ ২.৫ পেতে হয়।
  • গ্রাজুয়েট প্রোগ্রামে ভর্তি হতে এসএসসি, এইচএসসি এবং ব্যাচেলর ডিগ্রীর পরীক্ষাসহ সর্বমোট ৬ পয়েন্ট পেতে হয়।
  • এক্সিকিউটিভ এমবিএ প্রোগ্রামে ভর্তি হতে অন্যান্য যোগ্যতার সাথে ২ বছরের কাজের অভিজ্ঞতা থাকতে হয়।

 

ভর্তি প্রক্রিয়া

৩৫০ টাকার বিনিময়ে অ্যাডমিশন অফিস থেকে ভর্তি ফরম সংগ্রহ করে তা যথাযথভাবে পূরণ করে অ্যাডমিশন অফিসে জমা দিয়ে ভর্তি পরীক্ষার প্রবেশ পত্র সংগ্রহ করতে হবে। সরাসরি অ্যাডমিশন অফিস ছাড়াও অনলাইন থেকে ভর্তি ফরম সংগ্রহ করে তা পূরণ করে ভর্তি ফরম মূল্য ৩৫০ টাকা সহ অফিসে জমা দিতে হবে। এরপর ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ছাত্র-ছাত্রীরা এস.এস.সি এবং এইচ.এস.সি পরীক্ষার নম্বরপত্র, ৪ কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবিসহ (সকল কাগজপত্র সত্যায়িত) ভর্তি ফি বাবদ ১০,০০০ টাকা পরিশোধ করে ভর্তি হতে পারবে।

 

 ক্লাসের সময় এবং শিফট

এই বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘ডে’ এবং ‘ইভিনিং’ এই দুই শিফটে ক্লাসের ব্যবস্থা রয়েছে। অনার্সের শিক্ষার্থীদের ক্লাসসমূহ ‘ডে’ শিফটে এবং মাস্টার্সের শিক্ষার্থীদের ক্লাস ‘ডে’ এবং ‘ইভিনিং’ উভয় শিফটেই হয়ে থাকে। প্রতিটি ক্লাসের ব্যাপ্তিকাল ১:০৫ ঘন্টা।

 

একাডেমিক সেমিস্টার

সেমিস্টার

মেয়াদ

স্প্রিং

জানুয়ারি থেকে এপ্রিল

সামার

মে থেকে আগস্ট

ফল

সেপ্টেম্বর থেকে ডিসেম্বর

 

বৃত্তি

এই বিশ্ববিদ্যালয়ে গরীব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের ১ বছরের জন্য বৃত্তি সুবিধা দিয়ে থাকে। নিম্নবর্ণিত ফলাফলের ভিত্তিতে বৃত্তি সুবিধা প্রদান করা হয়।

ফলাফল

প্রাপ্ত বৃত্তি

জিপিএ – ৫.০০

১০০%

জিপিএ – ৪.৫০ থেকে ৪.৯৯

৫০%

জিপিএ – ৪.০০ থেকে ৪.৪৯

২৫%

এছাড়া যাদের অর্জিত সিজিপিএ ন্যূনতম ৩.৭০ থাকে সেসকল ছাত্র-ছাত্রী পরের সেমিস্টারে ১০% থেকে ৫০% এবং যাদের সিজিপিএ ন্যূনতম ৪.০০ থাকে তারা ৫০% থেকে ১০০% বৃত্তি সুবিধা পেয়ে থাকে।

 

শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা

এই বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রায় ৪৪৭৮ জন ছাত্র-ছাত্রী রয়েছে। প্রতি বিভাগে প্রায় ১৫ জন করে স্থায়ী ও অস্থায়ী মিলিয়ে মোট ১৫২ জন শিক্ষক রয়েছে। এর মধ্যে ৯৬ জন স্থায়ী শিক্ষক এবং ৫৬ জন অস্থায়ী শিক্ষক।

   

ক্রেডিট ট্রান্সফার ব্যবস্থা

এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরা ইচ্ছা করলে দেশে ও বিদেশে যেকোন বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্রেডিট ট্রান্সফার করতে পারে। তবে সেক্ষেত্রে দেশের অভ্যন্তরে যেকোন বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্রেডিট ট্রান্সফারের ক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা করে থাকে এবং ন্যূনতম সিজিপিএ ৩.৭৫ থাকতে হয়। এছাড়া শিক্ষার্থী নিজ উদ্যোগে বিদেশের বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্রেডিট ট্রান্সফারের ব্যবস্থা করতে পারে।

 

লাইব্রেরী ও ক্লাব

এই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও সংশ্লিষ্ট সকলের জ্ঞানের পরিপূর্ণ বিকাশের লক্ষ্যে বিশ্ববিদ্যালয়টি একটি লাইব্রেরী স্থাপন করা হয়েছে। যেটি বিশ্ববিদ্যালয় ভবনের দ্বিতীয় তলায় অবস্থিত। এই লাইব্রেরীতে প্রায় ১৫,০০০ বই রয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে টেক্সট বুক, রেফারেন্স বুক, ম্যাপ, কালেকশন বুক প্রভৃতি। লাইব্রেরীতে একসাথে প্রায় ৩০ থেকে ৪০ জন শিক্ষার্থীর বসে বই পড়ার জন্য পর্যাপ্ত চেয়ার-টেবিলের ব্যবস্থা রয়েছে। লাইব্রেরীটি সকাল ৯.০০ টা থেকে রাত ৮.০০ টা পর্যন্ত খোলা থাকে। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন ধরনের ৬টি ক্লাব রয়েছে। ক্লাবসমূহ সদস্যপদ আহবান করলে নির্দিষ্ট ফরম পূরণ করে ক্লাবের সদস্য হওয়া যায়।

 

নৈশকালীন কোর্স

এই বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘ডে’ এবং ‘ইভিনিং’ শিফটের পাশাপাশি চাকুরিজীবীদের জন্য নৈশকালীন শিফটের ব্যবস্থা রয়েছে। শুধুমাত্র ইএমবিএ এর এর জন্য নৈশকালীন ক্লাসের ব্যবস্থা রয়েছে। অ্যাডমিশন অফিস থেকে ভর্তি ফরম সংগ্রহ করে তা পূরণ করে নির্ধারিত ভর্তি ফি ১০,০০০ টাকা পরিশোধ করে এই কোর্সে ভর্তি হওয়া যায়।

 

ফলাফল প্রকাশ পদ্ধতি

এই বিশ্ববিদ্যালয়টি ফলাফল প্রকাশের ক্ষেত্রে সরকার কর্তৃক নির্ধারিত গ্রেডিং পদ্ধতি অনুসরণ করে থাকে।

 

প্রশাসনিক ভবন

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক অফিস বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যেই অবস্থিত। ভর্তি ও অন্যান্য সকল প্রকার তথ্য প্রশাসনিক অফিস থেকে পাওয়া যাবে।  

 

খেলাধুলা

বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ শিক্ষার্থীদের একাডেমিক একঘেয়েমি দূর করার জন্য বছরের নির্দিষ্ট সময়ে বিভিন্ন ধরনের খেলাধুলার ব্যবস্থা করে থাকে। যেমন – ফুটবল, ক্রিকেট, দাবা, সাইবার গেমস প্রভৃতি। আউটডোর গেমসের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব কোন মাঠ নেই, প্রয়োজনে ভাড়া করা মাঠে সংশ্লিষ্ট খেলাসমূহ অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে।

 

বিবিধ

  • বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরে ছাত্র-ছাত্রীদের খাবারের সুবিধার্থে একটি ক্যান্টিন রয়েছে।
  • নিজস্ব ওয়েব সাইটে পরীক্ষার রেজাল্ট, বন্ধের ঘোষণা, নোটস, এসাইনমেন্ট ইত্যাদি প্রায় সকল প্রকার তথ্য নিয়মিত প্রকাশ করা হয়।
  • বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি ক্লাস রুম সুসজ্জিত ও শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত।