বিজ্ঞাপন

আমার লজ্জাস্থানের দু পাশে সবসময় ভেজা ভেজা থাকে এবং প্রচুর গন্ধ হয়।তাছাড়া সেখানে হাত দিলে চামড়া উঠে আসে।এজন্য কী করতে পারি। এর চিকিতসা কী.? আমার লজ্জাস্থানের দু পাশে সবসময় ভেজা ভেজা থাকে এবং প্রচুর গন্ধ হয়।তাছাড়া সেখানে হাত দিলে চামড়া উঠে আসে।এজন্য কী করতে পারি। এর চিকিতসা কী.?
জিজ্ঞাসা করেছেন
বিভাগ:
3 টি উত্তর
ইহা আপনার চত্রাক ইনফেকশন এর জন্য হতে পারে  যা ঘম ও অপরিস্কার অন্তর বাস ব্যবহার করার কারন । আপনি আক্রান্ত স্থানে সাবান লাগাবেন না। পরিস্কার ও শুকনো অন্তর বাস  ব্যবহার করবেন। ভিজা বা স্যাঁতসেঁতে অন্তর বাস  ব্যবহার করবেন না। আক্রান্ত স্ত্থনে  চুলকাবেন না বা  সেখানে অপরিস্কার হাত লাগাবেন না।   প্রতিদিন দুই বেলা করে কোমর থেকে রান পর্যন্ত ও গোপনাঙ্গের আশেপাশে নারকেল  তৈল ব্যবহার করবেন।। ঘুমানোর আগের এবং গোসলের পর  ফাঙ্গিসন ক্রিম ব্যবহার করবেন। পাশাপাশি চর্ম বিশেষজ্ঞ  চিকিৎসক এর পরামর্শে নিন।
গোসল করার সময় সাবান দিয়ে গোসল করবেন। গোসল করা শেষ হলে নারিকেল তেল দিতে পারেন
আপনার ছত্রাকের সমস্যার কারণে এরকম সমস্যা হচ্ছে। যৌনাঙ্গের চারপাশ পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখার চেষ্টা। এতে ছত্রাকের সমস্যা৷ থেকে কিছুটা মুক্তি পেতে পারেন। ছত্রাক আক্রান্ত স্থান ঘাম মুক্ত রাখার চেষ্টা করুন। ঘামমুক্ত থাকলে ছত্রাকের সংক্রমণ থেকে ইনফেকশন এর সম্ভাবনা কম হবে। আপনি আপনার যৌনাঙ্গ পরিষ্কার রাখুন। লক্ষ্য রাখবেন যেন যৌনাঙ্গ ঘেমে ও ভিজে না যায়। ভিজে গেলে ফাঙ্গাল ইনফেকশন সংক্রমনের সম্ভাবনা বেড়ে যেরে পারে। ঢিলে ঢালা প্যান্ট পড়ুন। যাতে চলা ফেরায় সহায়তা করে। অন্তর্বাস ব্যবহার করলে পরিচ্ছন্ন অন্তর্বাস ব্যবহার করুন। অপরিচ্ছন্ন অন্তর্বাস ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন। প্রয়োজনে প্রতিদিন দুইবার অন্তর্বাস বদলে ফেলুন। আক্রান্ত হাত লাগাবেন না। এর ফলে ফাঙ্গাস ছড়িয়ে পড়ার আসংখ্যা রয়েছে। সপ্তাহে প্রতিদিন অলিভ অয়েল আক্রান্ত স্থানে লাগিয়ে ম্যাসাজ করতে পারেন। নিয়মিত করার চেষ্টা করুন। নারিকেল তেলও ব্যবহার করতে পারেন। যদি নারিকেল তেলে অ্যালার্জি জনিত সমস্যা থাকে তাহলে নারিকেল তেল ব্যবহার বিরত থাকুন। আপনি Fundigal–HC ক্রীম দিনে ২ বার প্রতিদিন ব্যবহার করুন। যদি কোন উন্নতি না ঘটে তাহল একজন চর্ম রোগ বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ নিন।
বিজ্ঞাপন