বর্জপাত সৃষ্টি হয় কি কারণে এবং কিভাবে?
বিভাগ:
1 টি উত্তর
আর্দ্র ও উত্তপ্ত আবহাওয়ায় বায়ু যখন দ্রুতগতিতে ঠান্ডা হয় তখন বাতাসের জলীয় বাষ্পে বজ্রমেঘের সৃষ্টি হয়। বজ্রমেঘের মধ্যে বাতাসের দ্রুতগতির আলোড়নের ফলে জলীয়বাষ্পে একই সময়ে একই সাথে শিশির বিন্দু, বৃষ্টিকণা ও তুষারকণার সৃষ্টি হয়। এই বৃষ্টিকণা ও তুষারকণার দ্রুত সংঘর্ষে স্থির বিদ্যুতের সৃষ্টি হয়। তবে ঘটনাটি যেহেতু বিশাল মেঘমালার মধ্যে ঘটে, তাই এর ফ্রিকোয়েন্সি, পরিমাণ এবং সংঘর্ষে সৃষ্ট শব্দের পরিমাণও অনেক বেশি হয়। এই বিদ্যুৎ প্রায় ৩০ হাজার ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড তাপ উৎপন্ন করে। তাই এর ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণও এত বেশি হয়।

জলবায়ু এবং আবহাওয়া পরিবর্তনের কারণে বজ্রপাতের শক্তি পূর্বের যেকো্নো সময়ের তুলনায় এখন অনেক বেড়েছে। আগে যেখানে বজ্র সংঘর্ষে ২ হাজার ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড তাপ উৎপন্ন হতো, এখন সেখানে উৎপন্ন হয় ৩০ হাজার ডিগ্রী! স্থির বিদ্যুতের পরিমাণ আগে যা ছিল ৫০ কিলো ভোল্ট, তা এখন ৩৫০ কিলো ভোল্ট শক্তি নিয়ে পৃথিবীতে আছড়ে পড়ছে।