ঘুমের মধ্যে কথা বলা ও হাসার কারণ এবং তা দূর করার উপায় জেনে নিন?
 (26726 পয়েন্ট)

জিজ্ঞাসার সময়

1 Answer

 (26726 পয়েন্ট) 

উত্তরের সময় 

নাক ডাকার মতো ঘুমের মধ্যে কথা বলা বা স্লিপি টকিং একটি সমস্যা। যিনি কথা বলছেন তার হয়তো কোনো সমস্যা না হলেও তার পাশে থাকা সঙ্গী কিংবা রুমমেটের ঘুমের ক্ষেত্রে সমস্যা হয়। অনেক সময় মনে হতে পারে তিনি আপনাকে উদ্দেশ্য করে কিছু বলছেন। কিন্তু পরে দেখা যায়, তিনি নিজে নিজেই কথা বলছেন। চলুন জেনে নেয়া যাক  ঘুমের মধ্যে কথা বলা বা স্লিপ টকিং কি, কেন হয় ও এর প্রতিকার কি?

স্লিপ টকিং কী:

ঘুমের মধ্যে অসচেতন হয়ে নিজের সাথে কথা বলাই হচ্ছে, স্লিপ টকিং। এটি এক ধরণের প্যারাসমনিয়া বা অস্বাভাবিক আচরণ যা ঘুমের মধ্যে হয়। এই সময়ে ঐ ব্যক্তি একা একা বা কাল্পনিক কোন চরিত্রের সাথে কথা বলতে পারে। এর বিষয়বস্তু নিজের জীবনে ঘটে যাওয়া দূর অতীতের বা নিকট অতীতের কোন ঘটনা বা সম্পূর্ণ কাল্পনিক কোন ঘটনা হতে পারে। ঘুমের মধ্যে কথা বলার ধরন রোগীর স্বাভাবিক অবস্থায় কথা বলার ধরন থেকে সম্পূর্ণ আলাদা হয়। রোগী ফিসফিস বা বিড়বিড় করতে পারেন। আবার খুব জোরেও কথা বলতে পারেন। ঘুমের মধ্যে কথা বলাসহ হাসে, গুণাগুণ করে বা চিত্কার ও করে থাকে, অনেক সময় এমনও মনে হতে পারে যে অন্যের সঙ্গে কথা বলছে। যে কোন মানুষ এই সমস্যাটিতে ভুগতে পারে তবে পুরুষ ও শিশুরাই বেশি ভুগে থাকে।

স্লিপ টকিংয়ের কারণ

বিভিন্ন কারণে এই সমস্যা দেখা যায়। সাধারণভাবে ঘুমের মধ্যে কথা বলার কারণগুলো হল- অত্যধিক মানসিক চাপ, হতাশা, জ্বর, পরিমিত পরিমাণ ঘুমের অভাব, অতিরিক্ত মদ্যপান ইত্যাদি। অনেকেই বংশগতভাবে এই সমস্যায় ভুগে থাকেন।

স্লিপ টকিংয়ের প্রতিকার:

শোবার আগে খুব বেশি পেট ভরে না খাওয়া, অ্যালকোহল বা মদ্যপান না করা, ঘুমানোর সময় অতিরিক্ত চিন্তা না করা, পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুমের মাধ্যমে এই সমস্যা থেকে অনেকাংশে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। এছাড়াও চিনিযুক্ত ও ক্যাফেইন সমৃদ্ধ খাবার এড়িয়ে চলুন।

সম্পর্কিত প্রশ্নসমূহ

Loading...

জনপ্রিয় টপিকসমূহ

Loading...