সুস্বাদু খিচুরি কীভাবে বানায়?
 (1856 পয়েন্ট)

জিজ্ঞাসার সময়

2 Answers

 (3381 পয়েন্ট) 

উত্তরের সময় 

উপকরণ: সরিষার তেল , তেজপাতা , এলাচ , পিয়াজ কুঁচি , লং , রসুন বাটা , দারুচিনি , গরুর মাংস , মসুরের ডাল , জিরা গুঁড়ো , লবন , মরিচ গুঁড়ো , কাঁচা মরিচ , পোলাউ চাল ইত্যাদি। 

প্রাণালী: প্রথমেই মাংস রান্না করতে হবে। একটি প্যানে ১ / ৩ কাপ পরিমাণ সয়াবিন তেল নিবেন। তেল গরম হলে ২ টুকরা দারুচিনি , ৩টি এলাচ , ৩টি লং , একটি তেজপাতা( ছিড়ে) দিয়ে ভেজে নিবেন। তারপর  ১ কাপ পরিমাণ পিয়াজ কুচি ( পিয়াজ মোটা করে কাটতে হবে)  দিয়ে দিবেন। পিয়াজ নরম হলে গেলে দেড় চামচ পরিমাণ আদা বাটা এবং দেড় চামচ রসুন বাটা দিয়ে কিছু সময় অপেক্ষা করে হাফ কাপ পরিমাণ পানি দিতে হবে(এতে আদা রসুন বাটার কাঁচা গন্ধ চলে যাবে)। এবার গুঁড়ো  মসলা ( ১ চা চামচ হলুদের গুঁড়ো , দেড় চা চামচের পরিমাণ লাল  মরিচের গুঁড়ো , ১ চা চামচ পরিমাণ জিরা গুড়ো , স্বাদ মত লবন) দিয়ে ভালো ভাবে কষিয়ে নিবেন। মসলার তেল  উপরে উঠে আসলে হাড় চর্বি সহ কেটে রাখা গরুর মাংস মসলার সঙ্গে মিশিয়ে ঢাকা দিয়ে দিবেন। চুলার আঁচ মিডিয়ামে রেখেই মাংস কষিয়ে নিবেন আর মাঝেমাঝে নেড়ে চেড়ে ( যাতে পুড়ে না যায়) দিতে হবে। তেল উপরে উঠে আসলে ঝোলের জন্য গরম পানি দিয়ে কম আচেঁ রেখে ঢাকনা দিবেন ১ ঘণ্টার জন্য ( পানি আপনাদের ইচ্ছা মতো দিতে পারেন তবে মাংস কিন্তু ভুনা ভুনা করতে হবে)। অবশ্যই খেয়াল রাখবেন মাংসে যেন পানি না থাকে। এভাবে মাংস সিদ্ধ করে রান্না করতে হবে। 

একটি প্যানে ১ / ৩ কাপ পরিমাণ সরিষার তেল দিয়ে দিবেন। তেল গরম হলে কিছু গরম মসলা ( তেজপাতা ১ টি , এলাচ ৩ টি , দারুচিনি ২ টুকরা) দিয়ে দিবেন( ফ্লেভারের জন্য)। পেয়াজ কুঁচি দেড় কাপ ( হালকা ভেজে নিবেন) , ১ টেবিল চামচ আদা বাটা , ১ টেবিল চামচ রসুন বাটা দিয়ে কষিয়ে নিবেন। এরপর একটু পানি দিয়ে গুড়া মসলা ( হাফ চা চামচ পরিমাণ হলুদের গুঁড়ো , ১ চা চামচ পরিমাণ লাল মরিচের গুঁড়ো , স্বাদ মতো লবন ) দিয়ে দিবেন। এবার ধুয়ে রাখা ৩ কাপ পোলাউয়ের চাল , হাফ কাপ মসুরের ডাল দিয়ে মসলার সঙ্গে একটু ভাজা ভাজা করে ৬ কাপ পানি পরিমাণ দিয়ে দিবেন( ৩ কাপ চালে ৬ কাপ পানি , চালের দ্বিগুন পানি নিতে হবে)। চুলার আঁচ মিডিয়ামে রেখে ৫ মিনিট জ্বাল দিবেন। তারপর এর মধ্যে রান্না করা মাংস , গরম মসলার গুঁড়ো এবং ৫ – ৬ টি কাঁচা মরিচ দিয়ে মিশিয়ে নিবেন। অল্প আঁচে ঢাকা দিয়ে ৭ – ৮ মিনিটের মতো দমে রেখে দিবেন। কিছু সময় পর উপরের খিচুড়ি নিচে আর নিচের খিচুড়ি  উপরে দিয়ে ( সমান ভাবে সিদ্ধ করার জন্য) আবার ৬ – ৭ মিনিট দমে রেখে দিতে হবে। এভাবেই তৈরি হয়ে যাবে মজাদার গরুর মাংসের খিচুড়ি। 

 (499 পয়েন্ট) 

উত্তরের সময় 

রঙিন ডেস্ক : ফ্রিজে গরুর মাংস আর কিছু সাধারণ মসলা থাকলে রান্না করতে পারেন লোভনীয় স্বাদের ভুনা খিচুড়ি। এটি খেতে খুবই সুস্বাদু। চলুন দেরি না করে শিখে নেয়া যাক রান্নাটা- উপকরণ: সরিষার তেল, তেজপাতা, এলাচ, পিয়াজ কুঁচি, লং, রসুন বাটা, দারুচিনি, গরুর মাংস, মসুরের ডাল, জিরা গুঁড়ো, লবণ, মরিচ গুঁড়ো, কাঁচা মরিচ, পোলাউ চাল ইত্যাদি। প্রাণালী: প্রথমেই মাংস রান্না করতে হবে। একটি প্যানে ১ / ৩ কাপ পরিমাণ সয়াবিন তেল নিবেন। তেল গরম হলে ২ টুকরা দারুচিনি, ৩টি এলাচ, ৩টি লং, একটি তেজপাতা( ছিড়ে) দিয়ে ভেজে নিবেন। তারপর ১ কাপ পরিমাণ পিয়াজ কুচি ( পিয়াজ মোটা করে কাটতে হবে) দিয়ে দিবেন। পিয়াজ নরম হলে গেলে দেড় চামচ পরিমাণ আদা বাটা এবং দেড় চামচ রসুন বাটা দিয়ে কিছু সময় অপেক্ষা করে হাফ কাপ পরিমাণ পানি দিতে হবে(এতে আদা রসুন বাটার কাঁচা গন্ধ চলে যাবে)। গোড়ালিতে ব্যথা হওয়ার কারণ ও সমাধান এবার গুঁড়ো মসলা ( ১ চা চামচ হলুদের গুঁড়ো, দেড় চা চামচের পরিমাণ লাল মরিচের গুঁড়ো, ১ চা চামচ পরিমাণ জিরা গুড়ো, স্বাদ মত লবন) দিয়ে ভালো ভাবে কষিয়ে নিবেন। মসলার তেল উপরে উঠে আসলে হাড় চর্বিসহ কেটে রাখা গরুর মাংস মসলার সঙ্গে মিশিয়ে ঢাকা দিয়ে দিবেন। চুলার আঁচ মিডিয়ামে রেখেই মাংস কষিয়ে নিবেন আর মাঝেমাঝে নেড়ে চেড়ে ( যাতে পুড়ে না যায়) দিতে হবে। তেল উপরে উঠে আসলে ঝোলের জন্য গরম পানি দিয়ে কম আচেঁ রেখে ঢাকনা দিবেন ১ ঘণ্টার জন্য ( পানি আপনাদের ইচ্ছা মতো দিতে পারেন তবে মাংস কিন্তু ভুনা ভুনা করতে হবে)। অবশ্যই খেয়াল রাখবেন মাংসে যেন পানি না থাকে। এভাবে মাংস সিদ্ধ করে রান্না করতে হবে। একটি প্যানে ১ / ৩ কাপ পরিমাণ সরিষার তেল দিয়ে দিবেন। তেল গরম হলে কিছু গরম মসলা ( তেজপাতা ১ টি, এলাচ ৩ টি, দারুচিনি ২ টুকরা) দিয়ে দিবেন( ফ্লেভারের জন্য)। পেয়াজ কুঁচি দেড় কাপ (হালকা ভেজে নিবেন), ১ টেবিল চামচ আদা বাটা, ১ টেবিল চামচ রসুন বাটা দিয়ে কষিয়ে নিবেন। এরপর একটু পানি দিয়ে গুড়া মসলা (হাফ চা চামচ পরিমাণ হলুদের গুঁড়ো, ১ চা চামচ পরিমাণ লাল মরিচের গুঁড়ো, স্বাদ মতো লবন) দিয়ে দিবেন। এবার ধুয়ে রাখা ৩ কাপ পোলাউয়ের চাল, হাফ কাপ মসুরের ডাল দিয়ে মসলার সঙ্গে একটু ভাজা ভাজা করে ৬ কাপ পানি পরিমাণ দিয়ে দিবেন (৩ কাপ চালে ৬ কাপ পানি, চালের দ্বিগুন পানি নিতে হবে)। চুলার আঁচ মিডিয়ামে রেখে ৫ মিনিট জ্বাল দিবেন। তারপর এর মধ্যে রান্না করা মাংস, গরম মসলার গুঁড়ো এবং ৫ – ৬ টি কাঁচা মরিচ দিয়ে মিশিয়ে নিবেন। অল্প আঁচে ঢাকা দিয়ে ৭ – ৮ মিনিটের মতো দমে রেখে দিবেন। কিছু সময় পর উপরের খিচুড়ি নিচে আর নিচের খিচুড়ি উপরে দিয়ে (সমান ভাবে সিদ্ধ করার জন্য) আবার ৬ – ৭ মিনিট দমে রেখে দিতে হবে। এভাবেই তৈরি হয়ে যাবে মজাদার গরুর মাংসের খিচুড়ি।
সম্পর্কিত প্রশ্নসমূহ
Loading interface...
জনপ্রিয় টপিকসমূহ
Loading interface...