খালেদ মাহমুদ সুজনকে গতিদানব বলে ট্রল করা হয় কেন?
বিভাগ:
4 টি উত্তর
কারন তার বলের গতি ১১০-১২০ এর মধ্যে থাকতো
বলা বলি থেকে রাখা হয়েছে তার বলের গতি ১৩০  
খালেদ মাহমুদ সুজনের বলের গতি তুলনামুলক ভাবে কম। তার বলের গতি ১১০ - ১২০ কি.মি/ঘন্টা। তিনি বর্তমানে বাংলাদের জাতীয় দলের কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। আর বাঙালির ট্রল বাহিনীর বাংলাদেশ জাতীয় দলের কোচ হিসেবে নাকি তার এই বোলিং এর গতিটি পছন্দ হয়নি। তাই তাকে উপহাস করে ট্রল বাহিনীরা "গতি দানব" নামটি রাখেন।

খালেদ মাহমুদ সুজনের বলের গতি তুলনামুলক ভাবে কম। তার বলের গতি ১১০ - ১২০ কি.মি/ঘন্টা। আর গতিদানব নামটি তার গতির জন্য নয়, উপহাস করার জন্য দেওয়া হয়েছে। যেমনঃ- একটা ক্লাসের দুর্বল স্টুডেন্টকে অনেক সময় ব্রিলিয়ান্ট বলে উপহাস করা হয়, যেমনঃ- ' এই যে আসছে ব্রিলিয়ান্ট শফিক! ' এখানে কিন্তু শফিককে সত্যি সত্যি  ব্রিলিয়ান্ট বলা হয়নি। বরং সে দুর্বল হওয়ায় টিটকারি করতে 'ব্রিলিয়ান্ট' বলা হয়। একই কারণে খালেদকে গতিদানব বলে ব্যঙ্গ করা হতো।