2 টি উত্তর

বন্ধুত্ব এবং ভালবাসা এই দুটি শব্দের মধ্যে অনেক পার্থক্য।বাস্তবিক ভাবে বন্ধুত্ব নির্ভর করে আন্তরিকতার উপর আর ভালবাসা নির্ভর করে আত্মবিশ্বাসের উপর।  আর বন্ধু মানে কাছের একজন মানুষ। যার সাথে সুখ দুঃখ এমন কি ভালবাসার মানুষের সাথে একটু মনমালিন্য হলে সে কথা গুলো বন্ধুর সাথে অনায়াসে শেয়ার করা যায়। যা অন্য কারো সাথে করা যায় না। মানুষের জীবনে এমনও কিছু ঘটনা ঘটে । এমন কিছু কথা আছে যা কাউকে বলা যায় না এমন কি জীবন সাথীকেও না কিন্তু বন্ধুর সাথে শেয়ার করা যায় ।অনেকে বলে থাকেন বন্ধুত্ব ক্রমশ পরিবর্তিত হয়ে ভালোবাসায় উপনীত হতে পারে, কিন্তু ভালোবাসা নেমে অবশেষে বন্ধুত্বে এসে ঠেকতে পারে না। একবার যাকে ভালোবেসেছি, হয় তাহকে ভালোবাসবো নয় ভালোবাসবো না; কিন্তু একবার যার সঙ্গে বন্ধুত্ব হয়েছে, ক্রমে তার সঙ্গে ভালোবাসার সম্পর্ক স্থাপিত হতে আটক নেই। অর্থাৎ বন্ধুত্বের উঠবার নামবার স্থান আছে। কারণ, সে সমস্ত স্থান আটক করা থাকে না। কিন্তু ভালোবাসার উন্নতি অবনতির স্থান নেই। যখন সে থাকে তখন সে সমস্ত স্থান জুড়ে থাকে, নয় সে থাকে না। আপনি আপনার বন্ধু হিসেবে অনেককেই নির্বাচন করতে পারবেন কিন্তু ভালবাসার মানুষ হিসেবে বেছে নিতে হবে একজনকেই।
পরিস্থিতি বিচার করে আমার কাছে মনে হচ্ছে আপনার প্রশ্নটিই এরকম একটি ছেলে একটি মেয়েকে অথবা একটি মেয়ে একটি ছেলেকে অর্থাৎ বিপরীত লিঙ্গের কাউকে  ভালোবাসা,  এই ভালোবাসা এবং বন্ধুত্ব এর মধ্যে পার্থক্য কি...? ভালোবাসার মানুষ এবং বন্ধুত্বের মানুষ এই দুটি বিষয়ের মধ্যে অনেক পার্থক্য আছে  কিন্তু বন্ধু এবং ভালোবাসা এর মধ্যে পার্থক্য তেমন কিছুই নেই, প্রথমত পার্থক্য বলা যায় উদ্দেশ্যকে। এরূপ ভালোবাসার উদ্দেশ্য থাকে দুটি একটি নেতিবাচক ও ইতিবাচক। নীতিবাচক আলোচনা করছি না। ইতিবাচক শ্রেণীতে, একটি হল: ভালোবাসার ক্ষেত্রে উদ্দেশ্য মেয়েটিকে আপনার বিবাহ করা। যদি এমন হয় যাকে ভালবাসবেন আপনার তার সাথে বিবাহ হবে না তাহলে নিশ্চয়ই ইতিবাচক কোনো কেউ এরূপ কাউকে ভালবাসবে না। অন্যদিকে বন্ধুত্ব করতে হয় এত কিছু ভাবতে হয় না। আপাতত এটাই মাথায় থেকে যে আমি তার সাথে সারা জীবন ভালো বন্ধুত্ব রাখব। বন্ধুত্বের সম্পর্ক অনেক ধরনের হতে পারে এবং যেকোনো ধরনের মানুষের সাথে হতে পারে কিন্তু ভালোবাসা সবার সাথে সম্ভব নয়। একজন মানুষের বন্ধু বলতে বেশ বড় একটি দলকে বুঝাই কিন্তু ভালোবাসা সীমিত থাকে। ভালোবাসার মানুষ থেকে বন্ধুত্ব টাই বেশি দিন টিকে থাকে যখন দুটো সম্পর্কেই এক সাথে টিকে থাকে তখন এক জায়গায় করলে দেখা যায় বন্ধুত্ব থেকে ভালোবাসার মানুষটিকে বেশি গুরুত্ব দেয়া হয় (সবাই নয়)।  এটি সাময়িক সময়ের জন্য মনে হতে পারে কিন্তু পুরো জীবনকে বিচার করলে ভালোবাসার মানুষ থেকে বন্ধুত্ব এই জীবনে বেশি প্রয়োজন/পাশে থাকে এবং বিস্তার লাভ করে। ভালোবাসার মানুষের সাথে সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে অনেক ধর্মীয় অনুশাসন এর বাইরে যেতে হয় (টাকা পয়সা খরচ হয় ইত্যাদি নেতিবাচক কাজ করতে হয়) কিন্তু বন্ধুত্বের ক্ষেত্রে পুরোটাই ভিন্ন। বন্ধুত্ব একটি পবিত্র বন্ধন এর সাথে করা যায় এবং সাধারন তো বেস্ট ফ্রেন্ড হলে কোন স্বার্থ থাকে না।  ভালোবাসার মানুষ এবং বন্ধুত্বের মানুষ এবং পরিস্থিতি এসব বিষয় বিবেচনা করে ভালোবা ও বন্ধুত্বের মধ্যে আরো অনেক পার্থক্য অমিল হতে পারে সেগুলো ঘটনা না জেনে আলোচনা করা সম্ভব না।

সাম্প্রতিক প্রশ্নসমূহ