বিজ্ঞাপন

[২০১৯ ]বাংলাদেশ আর কয়টা খেলা জিতলে সেমিফাইনালে যেতে পারবে.. বিস্তারিত বুঝিয়ে বললে ভাল হত? বাংলাদেশ আর কয়টা খেলা জিতলে সেমিফাইনালে যেতে পারবে.. বিস্তারিত বুঝিয়ে বললে ভাল হত   বাংলাদেশ আর কয়টা খেলা জিতলে সেমিফাইনালে যেতে পারবে.. বিস্তারিত বুঝিয়ে বললে ভাল হত  
জিজ্ঞাসা করেছেন
বিভাগ:
3 টি উত্তর
বাংলাদেশের কাছে আর মাত্র ৪ টি ম্যাচ বাকি আছে তার মধ্যে সেমিফাইনাল এ যেতে কমপক্ষে ৩টিতে জিততে হবে আর ৪টিতে জিততে পারলে ১০০% সেমিফাইনাল নিশ্চিত।।।           
বাংলাদেশ এখন বাকি চারটি ম্যাচ জিতলে সেমিফাইনালে যাবার সম্ভাবনা রয়েছে।অর্থাৎ,বাংলাদেশ চারটি ম্যাচই যদি জেতে তারপরেও সেমিফাইনালে না যাবার সম্ভাবনা রয়েছে।আবার বাংলাদেশ তিনটি ম্যাচ জিতেও সেমিফাইনালে যেতে পারবে।এখন পয়েন্ট টেবিল বিশ্লেষণ করলে দেখা যায়-
পয়েন্ট টেবিলে যে চারটি দল প্রথমে আছে তাদের সেমিফাইনালে যাবার সুযোগ ও সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি।
বাংলাদেশ যদি সেমিফাইনালে যেতে চায় তবে তাদের একজনকে রেস থেকে হারাতে হবে।এক্ষেত্রে বাংলাদেশের সহজ টার্গেট হচ্ছে অস্ট্রেলিয়া।আমার কথার অর্থ বাংলাদেশ সহজেই অস্ট্রেলিয়াকে হারাতে পারবে তা নয়।এর অর্থ হচ্ছে বাংলাদেশের পক্ষে অস্ট্রেলিয়াকে রেস থেকে হারানো বেশি সহজ।
তার কারণ নিম্নরূপ-
বাংলাদেশকে ইতিমধ্যে ইংল্যান্ড এবং নিউজিল্যান্ড হারিয়েছে।তাই তাদের পয়েন্ট কমানোতে বাংলাদেশ কোন ভূমিকা রাখতে পারবে না।ভারত,অস্ট্রেলিয়ার মধ্যে শুধু অস্ট্রেলিয়া এক ম্যাচ হেরেছে।এখন বাংলাদেশ অস্ট্রেলিয়াকে হারালে ও বাংলাদেশ অন্য তিনটি ম্যাচই জিতলে এবং অস্ট্রেলিয়া নিজেদের অন্য আরেকটি ম্যাচ হারলে বাংলাদেশের সেমিফাইনালে যাওয়া নিশ্চিত।ভারতের ক্ষেত্রে দেখা যায় বাংলাদেশ বাদে ভারতকে দুটি ম্যাচ হারতে হবে,যেখানে অস্ট্রেলিয়াকে হারতে হবে একটি।
বাংলাদেশের সেমি ফাইনালখেলার সমীকরণ । এখনও পর্যন্ত বাংলাদেশ ৫ ম্যাচ খেলে ৫ পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম অবস্থানে আছে, আগামীকাল অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশ জিতলে ৬ ম্যাচ খেলে আমাদের পয়েন্ট হবে ৭ এবং সমান সংখ্যক ম্যাচ খেলে অস্ট্রেলিয়ার পয়েন্ট ৮ ই থাকবে। সেক্ষেত্রে অস্ট্রেলিয়ার পরবর্তী তিন ম্যাচ খেলতে হবে ইংল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকার মতো কঠিন প্রতিপক্ষের সাথে। এই তিন দলের যেকোন ২ দলের সাথে হারতে হবে অস্ট্রেলিয়াকে। যা এই টুর্নামেন্টের বাস্তবতায় খুবই সম্ভব। সেক্ষেত্রে অস্ট্রেলিয়ার পয়েন্ট হবে ১০। আর অস্ট্রেলিয়ার সাথে জেতার পরও বাংলাদেশের জিততে হবে পরবর্তী ৩ ম্যাচের যে কোন ২ ম্যাচ। (৩ ম্যাচ জিতলে সরাসরি সেমিতে চলে যাবে)। আফগানিস্তান ও পাকিস্তানের সাথে বাংলাদেশ অনায়াসে জিতবে বলে আশা করি। সেক্ষেত্রে বাংলাদেশের পয়েন্ট হবে ১১। এবং চতুর্থ দল হিসেবে বাংলাদেশ সেমিতে কোয়ালিফাই করবে। ভারত ও ইংল্যান্ডের যে খেলা গুলো বাকি আছে সেগুলোর অধিকাংশ ছোট দলগুলোর বিপক্ষে, এজন্য এ দুই দল সেমিফাইনালে খেলবে নিশ্চিত। নিউজিল্যান্ডের ম্যাচ বাকি আরও ৫ টি এবং খেলাগুলো দক্ষিণ আফ্রিকা, ওয়েষ্ট ইন্ডিজ, পাকিস্তান, অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। এই ৫ ম্যাচের ৩ টিতে জিতলে অনায়াসে চলে যাবে সেমিতে, দুইটিতে জিতলে বাংলাদেশের সমান ১১ পয়েন্ট হবে (বাংলাদেশ পরবর্তী ৪ম্যাচের ৩টিতে জয় ধরে) সেক্ষেত্রে রান রেটের ব্যবধানে নিউজিল্যান্ড সেমিতে খেলবে। সমীকরন খুব সহজ। আগামীকাল বাংলাদেশকে জিততে হবে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এবং প্রার্থনা করতে হবে অস্ট্রেলিয়া যেন তাদের বাকি তিন ম্যাচের কমপক্ষে ২ টি হেরে যায়। তাহলে বাংলাদেশের সেমি নিশ্চিত । অথবা আজ নিউজিল্যান্ড যেন হেরে যায় আফ্রিকার কাছে এবং তাদের ৪ পরবর্তী ম্যাচের কমপক্ষে ২ টি বড় ব্যাবধানে হেরে যায়। তাহলে বাংলাদেশের সুযোগ থাকবে সেমিফাইনালে খেলার।
বিজ্ঞাপন