2 Answers

 (326 পয়েন্ট) 

উত্তরের সময় 

স্বাভাবিকভাবেই কেউ আপনাকে যদি প্রশ্ন করে, আপনার অভিভাবক কে? নিশ্চয়ই উত্তর দিবেন, মাবাবা। যদি বলা হয় কেন? তাহলে আপনাকে জানতে হবে 'অভিভাবক' শব্দটির মানে কি? এর মানে হচ্ছে, হর্তাকর্তা, দেখভালকারী, দায়ভার বহনকারী, দায়িত্ব বহনকারী ইত্যাদি। এখন সহজেই বলা যাবে যে, মাবাবারা সন্তানদের হর্তাকর্তা, আর তাই তারা সন্তানদের জন্য স্বাভাবিক ভাবেই অভিভাবক। [১] আপনাকে যদি বলা হয়, অমুক আপনার পিতামাতা কেন? উত্তর দিবেন, তারা জন্ম দিয়েছে কিংবা তাদের ঔরষজাতে আমি এসেছি তাই তারা আমার পিতামাতা। [২] ঠিক একইভাবে আল্লাহ্ তায়ালা মানুষ ও জ্বীনজাতিসহ সমস্ত প্রাণিকুলকে সৃষ্টি করেছে। তিনি কুরআনুল কারীমে বলেছেন, 'তিনিই প্রকৃত রিজিকদাতা, পালনকর্তা ও লালনকর্তা।' অতএব, তাই তিনিই প্রকৃত অভিভাবক। [৩] আশা করি বোঝাতে পেরেছি।
 (7407 পয়েন্ট) 

উত্তরের সময় 

দুনিয়াতে ও আখিরাতে মানব ও জ্বীনজাতির প্রকৃত অভিভাবক একমাত্র আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তায়ালা, এতে কোনো সন্দেহ নেই। কেননা, তিনিই আমাদের সকলের সৃষ্টিকর্তা, আমাদের রিজিকদাতা, আমাদের পালনকর্তা ইত্যাদি। আল্লাহ তায়ালা স্বয়ং নিজেই যে আমাদের অভিভাবক, সেকথা তিনি পবিত্র কুরআনে বলেই দিয়েছেন। পবিত্র কুরআনে বর্ণিত আছেঃ "তুমি কি জান না যে, নিশ্চয় আসমানসমূহ ও যমীনের রাজত্ব আল্লাহর? আর আল্লাহ ছাড়া তোমাদের কোন অভিভাবক ও সাহায্যকারী নেই।" (সুরা বাকারা, আয়াত নং ১০৭) আল্লাহ তায়ালা শুধু মুমিনদের অভিভাবক, বই আর কারো নয়। এ সম্পর্কে তিনি পবিত্র কুরআনে এরশাদ করেছেনঃ "যারা ঈমান এনেছে আল্লাহ তাদের অভিভাবক, তিনি তাদেরকে অন্ধকার থেকে আলোর দিকে বের করে আনেন। আর যারা কুফরী করে, তাদের অভিভাবক হল তাগূত। তারা তাদেরকে আলো থেকে বের করে অন্ধকারে নিয়ে যায়। তারা আগুনের অধিবাসী, আর সেখানে তারা স্থায়ী হবে।" (সুরা বাকারা, আয়াত নং ২৫৭)
সম্পর্কিত প্রশ্নসমূহ

Loading...

জনপ্রিয় বিভাগসমূহ

Loading...