6 টি উত্তর

পৌরনীতি হলো নাগরিকতা বিষয়ক বিজ্ঞান। প্রাচীন গ্রীসে নাগরিক ও নগর রাষ্ট্র ছিল অবিচ্ছেদ্য। ঐ সময় ছোট অঞ্চল নিয়ে গড়ে উঠত নগর-রাষ্ট্র।যারা নগর রাষ্ট্রীয় কাজে সরাসরি অংশগ্রহণ করত, তাদের নাগরিক বলা হত।দাস,মহিলা ও বিদেশিদের এ সুযোগ ছিলনা।


নাগরিকের আচরণ ও নিয়ে আলোচনাই হলো পৌরনীতির বিষয়বস্তু। বর্তমানে একদিকে নাগরিকের ধারণার পরিবর্তন ঘটেছে,অন্যদিকে নগর-রাষ্ট্রের স্থলে বৃহৎ আকারের জাতি রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।রাষ্ট্র প্রদত্ত নাগরিকের মর্যাদাকে নাগরিকতা বলা হয় নাগরিকতা ও রাষ্ট্রের সাথে জড়িত সবই "পৌরনীতির" বিষয়বস্তু।


তথ্যসূত্র

নাগরিকের অধিকার ও কর্তব্য নিয়ে আলোচনা করে তাকেই পৌরনীতি বলে।
যে শাস্ত্র নাগরিকের জীবন নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করে তাকে পৌরনীতি বলে|যেমন-নাগরিকের দায়িত্ব,কর্তব্য ইত্যাদি
পৌরনীতি :- পৌরনীতি হলো নাগরিকতা বিষয়ক বা নাগরিক সম্পর্কে আলোচিত বিষয় বা জ্ঞান। নাগরিকের আচরণ ও নিয়ে আলোচনাই বিস্তারিত বর্ণনা হলো পৌরনীতির বিষয়বস্তু।
পৌরনীতি বিষয়ক বিঙ্গান।কারণ নাগরিকতার সাথে জড়িত সকল বিষয় পৌরনীতিতে আলোচনা করা হয়।রাষ্টের নাগরিক হিসেবে আমাদের প্রত্যেকের পৌরনীত সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা থাকা প্রয়োজন।
নাগরিকতার সাথে জড়িত সকল প্রশ্ন নিয়ে যে বিষয়ে আলোচনা করা হয় তাকে পৌরনীতি বলে।