বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
65 জন দেখেছেন
"পবিত্রতা ও সালাত" বিভাগে করেছেন (6,118 পয়েন্ট)

4 উত্তর

+1 টি পছন্দ
করেছেন (896 পয়েন্ট)
নির্বাচিত করেছেন
 
সর্বোত্তম উত্তর
নামাজে প্রত্যেক ব্যক্তি (চাই সে ইমাম হোক বা মুক্তাদি অথবা একাকি নামাজ আদায়কারী) তাঁর নিজের শারীরিক গঠন অনুযায়ী যেভাবে দাঁড়ালে কষ্ট হবেনা সেভাবে দাঁড়াবে।যেন অস্বাভাবিক ভাবে দাঁড়ানোর দ্বারা নামাজের একাগ্রতা নষ্ট না হয়। তবে স্বাভাবিক গঠনের লোকদের জন্য চার আঙ্গুল পরিমাণ ফাঁক রেখে দাঁড়ানোই যথেষ্ট।

সূত্রঃ রদ্দুল মুহতার ৩/৩৮৪ হিন্দিয়া ৩/৬১
0 টি পছন্দ
করেছেন (926 পয়েন্ট)
নামাযের সময়ে দুপায়ের মাঝে হতের চার আঙ্গুল সমান ফাকা রাখতে হবে।
0 টি পছন্দ
করেছেন (64 পয়েন্ট)
শরীরের আকৃতি অনুযায়ী, অর্থাৎ আপনার কাধের সমান ফাকা দেওয়াটাই উত্তম....তাহলে আপনার পাশের লোকটিও এইভাবে দাড়ালে কাঁধের সাথে কাঁধ এবং আপনার পায়ের সাথে পা লেগে দাঁড়াতে পারবে। যেটা সুন্নাত..... তবে কিছু কিছু ভাই বলে থাকেন যে তার আঙ্গুল ফাঁকা বা এক বিঘাত ফাকা যেটা বাস্তবিক দিক দিয়ে যৌক্তিক না।এতে করে কাধ মিলে গেলে পায়ের মাঝে ফাকা থেকে যায় যেটা সম্পুর্ণ সুন্নাতের বিরোধী, 

রাসূল (স:) বলেন: তোমরা কাতারের মাঝে ফাকা বন্ধ করো কেননা শয়তান কে আমি ছাগল বা ভেড়ার বাচ্চার মতো কাতারের ফাঁকে দাড়াতে দেখেছি। 
0 টি পছন্দ
করেছেন (1,109 পয়েন্ট)
সর্বোচ্চ অর্ধেক হাত ফাকা রাখতে পারবেন।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

2 টি উত্তর
0 টি উত্তর
14 ডিসেম্বর 2019 "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন অজ্ঞাতকুলশীল

368,621 টি প্রশ্ন

464,148 টি উত্তর

145,528 টি মন্তব্য

193,658 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...