Taef এর উত্তরসমূহ

অসহায় রোগীদের দান করুন, একজন ব্যক্তির রক্তের গ্রুপ একটাই হয়, 

মাসিক চলাকালিন সেক্স করা হারাম

বিস্তারিত উল্লেখ করে প্রশ্ন করুন

ইউটিভ এ ভিডিও দেখো তার ছাড়াই সংযোগ করতে পারবে..

কনডম ব্যবহার করুন..

কনডম ব্যবহার করুন..

রিচার্জ অফার রিচার্জ করলেই পেয়ে যাবে,, আর একাউন্টে টাকা জমা হবে তা কেটে নিবে আগেই…

আপনি আপনার জেলা পাসপোর্ট অফিসে যোগাযোগ করুন

সেক্স এমনিতে কারো উঠে না, কারো স্পর্শ পেলে, কিছু চিন্তা করলে তারপর সেক্স উঠে..

বিয়ে করুন..

আপনার স্ত্রীর ভালো লাগা, পছন্দ অপছন্দ কি করতে ভালো লাগে, কোথায় ঘুরতে যেতে ইচ্ছে করে, এমন টপিক নিয়ে আলোচনা করতে পারেন..

সেক্সটাইম বাড়ানোর নিয়ম – হাতের ওপর জোর বাড়ানো। অনেক সময় দেখা যায় ছেলেরা যৌন মিলন করার সময় সব বা প্রায় সব ভর পেনিসে দিয়ে থাকে, এতে দ্রুত বীর্য বের হয়ে যেতে পারে তাই হাতে জোর বাড়াতে হবে। – এক পজিশনে বেশিক্ষণ না করে পজিশন বদলে বদলে করতে হবে। – একটি অন্যরকম পদ্ধতি হল একবার বের করে দেয়া। আপনি আপনার বীর্য পার্টনারকে দেখিয়ে তার গায়ে অথবা অন্য কোথাও যৌন মিলন এর আগেই বের করুন একবার। সে হর্নি হবে দেখে। এবার পেনিসটা ভালমত পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। এবার ২মিনিট ব্রেক এর পর আস্তে আস্তে আবার কিসিং শুরু করুন। ১৫মিনিটের মাথায় আবার যোনীতে ঢুকাতে সক্ষম হবার কথা। – ঢোকানো অবস্থায় যদি আপনার মনে হয় যে এখনি বের হয়ে আসছে তখন আর সোজা ধাক্কা না দিয়ে বের করে তাকে আদর করুন। স্বাভাবিক হলে আবার শুরু করেন – একটি অভ্যাস প্র্যাকটিস করুন বাসায়। নিজে পেনিসকে উত্তেজিত করে বীর্য বের হওয়ার ঠিক আগ মুহূর্ত পর্যন্ত নিয়ে যান, এর পর আবার স্বাভাবিক হোন বের না করে। এটি সপ্তাহে একবারের বেশি না করাই ভাল কারণ এতে দেহের ক্ষতি হতে পারে। আশা করি এসকল ব্যাপারে সতর্ক থাকলে আপনার সেক্স লাইফ হবে দারুন।

কিছু দিনের সময় নেন, বলেন যে বেবি ডেলিভারি হোক তারপর ডিএনএ টেস্ট রিপোর্ট যা বলবে আমি তা মেনে নিবো, আপনি যদি ঐমেয়ের সাথে শারীরিক সম্পর্ক না গিয়ে থাকেন তাহলে ঐ বাচ্চা ডিএনএ আপনার সাথে ম্যচ করবে না, তখন আপনি নির্দোষ প্রমানিত হবেন…

আপনি যে এলাকায় ইউজ করবেন ঐ এলাকায় টেলিটক সিমের নেটওয়ার্ক কেমন তা জেনে নিন, নয়তো কথা বলতে সমস্যা হবে, ইন্টারনেট তো ভুলেও ইউজ করতে পারবেন না ৪জি ছাড়া…

রিকোভারি নাম্বার & ইমেল ছাড়া জিমেল ফিরে পাওয়ার কোনো সিস্টেম নাই…

প্রশ্নের উত্তর পেতে বিস্তারিত উল্লেখ করুন, প্রশ্নটি বুঝিয়ে লিখুন..

মাসিক হওয়ার আগের দিন ঘটে থাকলে প্রেগন্যান্ট হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই, মাসিকের ৭দিন আগে থেকে মাসিক চলাকালিন সহবাসের জন্য নিরাপদ সময়, মাসিক চালাকালিন সহবাস করা ইসলামে ‘হারাম’ ।

মিলনের নিরাপদ সময় হচ্ছে পিরিয়ডের ৭দিন আগে এবং পিরিয়ড চলাকালিন, আপনি যেহেতু নিরাপদ সময়ে মিলন করেছেন, বীর্যপাতও হয়নি, পিলও সেবন করিয়েছেন, এতে আপনি নিশ্চিত থাকতে পারেন প্রেগন্যান্ট হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই…

ঔষধের প্রয়োজন হবে না, আপনি তার সাথে ভালো ব্যবহার করুন, তার পছন্দের কাজ গুলা করুন, রাতে শুয়ার সময় আপনি তাকে জরিয়ে ধরুন, আদর করুন, তাকে উত্তেজিত করুন তখন সে নিজ থেকে আপনার সাথে সেক্স করতে আগ্রহী হবে…

হ্যা করা যাবে, এক বছরের যাবতিয় ফি দিতে হবে।

তা এখনো নিশ্চিত ভাবে বলা যাচ্ছে, দেশের পরিস্থিতি ঠিক হলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

রাতে, তবে সকল ঔষধ ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে সেবন করা ভালো।

আপনি এখন নিরাপদ, প্রেগন্যান্ট হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই।

আপনি বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে ঔষধ নেন।

বিস্তারিত উল্লেখ না করলে পরামর্শ কিভাবে নিবেন।

এগুলা শুটিং করা হয়, এডিট করে এতটা সময় করা হয়।

যৌন তৃপ্তি বা যৌন আনন্দ পায়।

বীর্য তো নাপাক, এটা প্রান করা ঠিক হবে না,,

2,272,691

প্রশ্ন

2,496,574

উত্তর

491,031

ব্যবহারকারী
Taef এর সেরা প্রশ্নসমূহ