বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
148 জন দেখেছেন
"ইসলাম" বিভাগে করেছেন (252 পয়েন্ট)
সম্পাদিত করেছেন

2 উত্তর

+5 টি পছন্দ
করেছেন (8,829 পয়েন্ট)
সম্পাদিত করেছেন
সূরা আলাকের প্রথম পাঁচ আয়াত অবতীর্ণ হওয়ার কিছুদিন ওহী আসা বন্ধ থাকার পর সূরা মুদ্দাসসির অবতীর্ণ হয়েছে। তবে এই সময়টুকু কতদিন তা নির্দিষ্ট করে বলা সম্ভব হবেনা। কেননা এই বিষয়ে মতানৈক্য রয়েছে। কতদিন যাবত ওহী বন্ধ ছিল সেই ব্যাপারে ইতিহাসবিদগণ কয়েকটি মতামত প্রকাশ করেছেন। সেগুলোর মধ্যে সঠিক মত হলো ওহী বন্ধ ছিলো মাত্র কয়েকদিন।

সর্বপ্রথম যে অহী নাযিল হয় তা হলো সূরা আলাকের প্রথম পাঁচ আয়াত। এরপর ওহী আসা কিছু দিন বন্ধ থাকে। ফলে রাসুল (সাঃ) খুবই অস্থির ও চিন্তিত হয়ে পড়েন। এক দিন আবারো তিনি প্রথমবার হিরা গুহায় ওহী নিয়ে আগমনকারী ফিরিশতাকে আসমান ও যমীনের মধ্যস্থলে একটি কুরসীর উপর বসা অবস্থায় দেখেন। এ থেকে রাসূল (সাঃ)-এর মধ্যে ভীতির সঞ্চার হয়। তাই তিনি ঘরে গিয়ে ঘরের লোকদেরকে বললেন, আমাকে কোন কাপড় দিয়ে ঢেকে দাও বা আমাকে কোন চাদর দিয়ে ঢেকে দাও। ফলে তারা রাসূল (সাঃ)-এর শরীরে একটি কাপড় চাপিয়ে দিলেন। ঠিক এই অবস্থাতেই এই অহী অবতীর্ণ হয়। (বুখারী ও মুসলিম, সূরা মুদ্দাসসির)

হাদীসে আরো এসেছে, সর্ব প্রথম হেরা গিরি গুহায় রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের কাছে ফেরেশতা জিবরাইল (আঃ) আগমন করে ইকরা সূরার প্রাথমিক আয়াত সমূহ পাঠ করে শোনান। ফেরেশতার এই অবতরণ ও ওহীর তীব্ৰতা প্ৰথম পর্যায়ে ছিল। ফলে এর স্বাভাবিক প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। রাসূলুল্লাহ্ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম খাদিজা রাদিয়াল্লাহু ‘আনহার নিকট গমন করলেন এবং তার কাছে বিস্তারিত ঘটনা বর্ণনা করলেন। এরপর বেশ কিছুদিন পর্যন্ত ওহীর আগমন বন্ধ থাকে। বিরতির এই সময়কালকে “ফাতরাতুল ওহী” বলা হয়। রাসূলুল্লাহ্ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হাদীসে এই সময়কালের উল্লেখ করে বলেন, একদিন আমি পথ চলা অবস্থায় হঠাৎ একটি আওয়াজ শুনে আকাশের দিকে তাকিয়ে দেখি, হেরা গিরিগুহার সেই ফেরেশতা আকাশ ও পৃথিবীর মাঝখানে এক জায়গায় একটি ঝুলন্ত চেয়ারে উপবিষ্ট রয়েছেন। তাকে এই আকৃতিতে দেখে আমি প্রথম সাক্ষাতের ন্যায় আবার ভীত ও আতংকিত হয়ে পড়লাম। আমি গৃহে ফিরে এলাম এবং গৃহের লোকজনকে বললাম, আমাকে বস্ত্ৰাবৃত করে দাও। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে আলোচ্য আয়াত নাযিল হল। (বুখারীঃ ৪, মুসলিমঃ ১৬১, তিরমিজিঃ ৩৩২৫)
0 টি পছন্দ
করেছেন (4,777 পয়েন্ট)

রাসূল সা.এর ‍উপর ওহী অবতীর্ণ হওয়ার পর কত দিন যাবত ওহী বন্ধ ছিল তা নিয়ে বিজ্ঞ উলামায়ে কেরামের মাঝে মতৈক্য আছে।

কেউ বলেছেন, তিন বছর।

কেউ বলেছেন, আড়াই বছর।

কেউ বলেছেন, চল্লিশ দিন।

কেউ বলেছেন,পনের  দিন।

কেউ বলেছেন, তিন দিন। তবে আল্লামা মোবারকপুরী রহ. তিন বছরের সময়কালকে অগ্রধিকার দিয়েছেন।

সূত্র: আল-মাওয়াহিবুল লাদুনিয়্যা ১/২১২, তুহফাতুল আহওয়াযি ১০/৯৪, উমদাতুল কারী ১/১৬৪, ফাতহুল বারী ইবনু হাজার রহ.কৃত ১/২৭

করেছেন (252 পয়েন্ট)
তিন বছর আড়াই বছরের কথাটা সম্পূর্ণ ভুল। মাত্র অল্প কদিন বন্ধ ছিল। কোন উত্তরের আগে আরো ভালো করে যাচাই করবেন। সঠিকটা জেনে উত্তর দিবেন। শুধু সূত্র দিলেই উত্তর সঠিক হয় না। সূত্রের মধ্যেও ভুল থাকে।
করেছেন (5,921 পয়েন্ট)

@আমীরুল ইসলাম, "তিন বছর ও আড়াই বছর" -একথা দু'টি সম্পাদনা করুন। এটি ভুল মতামত। বিস্তারিত জানতে দেখুনঃ 'তরিকুল ইসলাম, রাসূল (সঃ)-এর জীবনী পর্ব, পৃষ্ঠা নং ২৯৭-৩২০'  

করেছেন (4,777 পয়েন্ট)
ভাই আমার কাছে তো উক্ত কিতাব নেই। তাহলে আমি কি করব? দয়া করে জানাবেন।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
28 এপ্রিল 2014 "ইসলাম" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Abdur Rob (447 পয়েন্ট)
0 টি উত্তর
14 জানুয়ারি "নবী-রাসূল" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন অামজাদ (26 পয়েন্ট)
1 উত্তর
28 এপ্রিল 2014 "ইসলাম" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Abdur Rob (447 পয়েন্ট)
1 উত্তর
17 ফেব্রুয়ারি 2017 "ইতিহাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন বকর সিদ্দিকী (21 পয়েন্ট)

330,066 টি প্রশ্ন

420,876 টি উত্তর

130,679 টি মন্তব্য

180,589 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...