বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
94 জন দেখেছেন
"ধর্ম ও আধ্যাত্মিক বিশ্বাস" বিভাগে করেছেন (11 পয়েন্ট)

1 উত্তর

+5 টি পছন্দ
করেছেন (4,425 পয়েন্ট)
যদি বান্দা সকল খারাপ কাজ একেবারে ছেড়ে দিয়ে সকল ভালো কাজকে আঁকড়ে ধরে এবং ইবাদাত-বন্দেগী আর মোনাজাতে কান্নাকাটি করার মাধ‍্যমে আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জন করতে পারে, তাহলে আল্লাহ চাইলে যেকোনো বড় গুনাহ ক্ষমা করে দিতে পারেন। আল্লাহ অতি ক্ষমাশীল, অতি দয়ালু। তিনি তার বান্দাদেরকে যতটা মায়া করেন, তা অতুলনীয়। তাই সকলের উচিত কুরআন-হাদীসকে আঁকড়ে ধরে আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জন করা। তওবা করলে আল্লাহ গোপনের গুনাহ গোপনেই ক্ষমা করে দেন। তাই গোপন গুনাহ প্রকাশ না করে তওবা করে আল্লাহর নৈকট‍্য ও করুণা লাভ করার চেষ্টা করা উচিত।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

4 টি উত্তর
আমি জিনা করেছিলাম।আমি আল্লাহর কাছে মনে মনে অনুতপ্ত হয়েছি,ক্ষমা চেয়েছি কিন্তু নামাজ পরে তওবা করিনি।আমি তখন জানতাম না যে এরকম ব্যভিচার করলে পবিত্র কাউকে বিয়ে করা যায়না।আমি আমার স্বামীকে বিয়ের আগে জানিয়েছিলাম যে আমার আগে একজনের সাথে সম্পর্ক ছিল কিন্তু জিনার কথা লজ্জায় বলিনি।বিয়ের কিছুিদন পর সে সব জেনে যায়।এখন সে আমাকে খুব সন্দেহ করে।আমি জানি সেটা তার দোষ না।কিন্তু আমাদের সংসার প্রায় ভেঙ্গে যাওয়ার পথে।আমি ইস্তেগফারের নামাজ পরে আল্লাহর কাছে মাফ চেয়েছি।আমি আমার স্বামীকে অনেক ভালোবাসি।কিন্তু কিভাবে সব ঠিক হবে বুঝি না।আমার জন্য দোয়া করবেন যেন আল্লাহ আমাকে মাফ করেন।?
06 জানুয়ারি 2016 "ধর্ম ও আধ্যাত্মিক বিশ্বাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন সিমিন (11 পয়েন্ট)
1 উত্তর

312,744 টি প্রশ্ন

402,308 টি উত্তর

123,566 টি মন্তব্য

173,287 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...